শিরোনাম: পুলিশে নতুন আক্রান্ত ১৫২, মোট সুস্থ ১১ শতাধিক       করোনার মাঝে কাশি হলে যা করবেন       বন্ধ হবে স্যাটেলাইট, মোবাইল!       একদিনেই মৃত্যু ২১, আক্রান্ত ১১৬৬ জন       যেসব উপসর্গে চিকিৎসকরাও অবাক       বিএনপির নেতারা পুরনো বৃত্তেই ঘুরপাক খাচ্ছেন : কাদের       দিনাজপুরে ঘরে ধান তুলতে ব্যস্ত কৃষক       নারায়ণগঞ্জে আরও ১৪৫ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত       ভারতে ছুটে আসছে পঙ্গপালের আরেকটি বাহিনী!       ভারতে ২৪ ঘণ্টায় সাড়ে ৬০০০সহ মোট আক্রান্ত প্রায় দেড় লাখ      
প্রধানমন্ত্রীর কাছে আঞ্চলিক সংবাদপত্র পরিষদের প্রণোদনার আবেদন
কাগজ সংবাদ :
Published : Thursday, 2 April, 2020 at 9:35 PM
প্রধানমন্ত্রীর কাছে  আঞ্চলিক সংবাদপত্র পরিষদের প্রণোদনার আবেদন চলমান করোনা পরিস্থিতিতে দেশের মফস্বলের ২৯৭টি সরকারি মিডিয়া তালিকাভুক্ত দৈনিক সংবাদপত্রের ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সরকারি বিশেষ প্রণোদনার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ আঞ্চলিক সংবাপত্র পরিষদ (বিএএসপি)।

সংগঠনের  পক্ষে মহাসচিব জাহাঙ্গীর হোসেন মন্জু স্বাক্ষরিত আবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে,  
করোনা মোকাবেলায় জনগণকে সচেতন করতে মফস্বলের সংবাদপত্র দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করছে। সরকারের ম্যাসেজগুলো জনগণের কাছে পৌঁছে দিচ্ছে এবং সরকারের সঙ্গে ঘনিষ্টভাবে কাজ করছে। করোনাভাইরাসের কারণে মফস্বলের এসব দৈনিক সংবাদপত্র অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতির সম্মুখিন। কর্মচারীবৃন্দ করোনা ঝুঁকি এড়াতে সরকারি নির্দেশনা মেনে বাড়িতে অবস্থান করছে। চলমান পরিস্থিতিতে তাদের কর্মস্থলে আসতে বলা সমিচিন নয়। এছাড়া চলমান দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতিতে দেশের প্রায় সকল জেলার সংবাদপত্র হকার্স ইউনিয়ন/সমিতি সংগঠনের সদস্যদের (হকার) নিরাপত্তার স্বার্থে এবং অনেক পাঠক-গ্রাহকের আপত্তির কারণে পত্রিকা বিপণন ও সরবরাহ থেকে বিরত থাকার ঘোষণা দিয়েছে। এ ঘোষণায় সংবাদপত্র বিলি-বন্টন করা যাচ্ছে না। অবস্থার প্রেক্ষিতে আঞ্চলিক/স্থানীয় সংবাদপত্রের মালিক সম্পাদকগণকে সংবাদপত্রসেবীদের নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনায় নিতে হয়েছে। তবে পত্রিকাগুলো অনলাইন সংস্করণে চলমান সংবাদ ও সচেতনতামূলক প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে।

আবেদনে বলা হয়েছে, এ পরিবেশ পরিস্থিতির কারণে মফস্বলের দৈনিক সংবাদপত্রের মুদ্রণ, সার্কুলেশন ও বিজ্ঞাপনে চরম সংকট সৃষ্টি হয়েছে। সরকারি-বেসরকারি বিজ্ঞাপন বর্তমান বন্ধ। বাণিজ্যিক অচলাবস্থা বিরাজ করছে। অর্থনৈতিকভাবে চরম ক্ষতির সম্মুখিন এ সকল সংবাদপত্র। সাংবাদিক, কর্মকর্তা-কর্মচারিদের বেতন-ভাতা পরিশোধ করা, পত্রিকা প্রকাশনার কাজে প্লেট, কাগজ, কালি ও ট্রেসিং, ক্রয় করা এবং অফিস ভাড়া ও বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা অসম্ভব হয়ে পড়ছে। নানা প্রতিকূল পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হচ্ছে সংবাদপত্রগুলোকে।

সংবাদপত্রের বিকাশে তথা গণমাধ্যমের উন্নয়নে এবং সাংবাদিকদের কল্যাণে প্রধানমন্ত্রী অনেক অবদান রাখছেন উল্লেখ করে মফস্বলের এসব পত্রিকায় প্রণোদনা প্রদানের পাশাপাশি সরকারি বিজ্ঞাপনের ও ক্রোড়পত্রের বকেয়া বিল সত্তর পরিশোধের ব্যবস্থা গ্রহণেও
তাঁর আশু হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়েছে।







« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft