শিরোনাম: ‘রেলের নিম্ন পদের কর্মচারীদের বিদেশে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা’       আমার কাছে প্রমাণ আছে, জিয়া সবচেয়ে বড় রাজাকার : শেখ সেলিম       ‘ব্যালট বাক্স ছিনতাই করতে পারে, ইভিএমে এ সুযোগ নেই’       মোদি সকলকে বোকা বানিয়েছেন : রাহুল গান্ধি       শহীদ আখ্যা দেয়াদের রাষ্ট্রদ্রোহের বিচার করা উচিত : ইনু       ভাগ্যবানরা ঢাকায় থাকেন : শিল্পমন্ত্রী       পশ্চিমবঙ্গের জেলায় জেলায় রেল-সড়ক অবরোধ, আগুন-ভাঙচুর       ভারত ভ্রমণে সতর্ক যুক্তরাষ্ট্র-ব্রিটেনসহ ৫ দেশ       রাজাকার কোনো সময় শহীদ হতে পারে না : রব       ভারতের নাগরিকত্ব আইন সংখ্যালঘুদের প্রতি বৈষম্যমূলক      
সঙ্গিনীকে বশে রাখবেন যে উপায়ে
কাগজ ডেস্ক :
Published : Wednesday, 13 November, 2019 at 6:00 AM
সঙ্গিনীকে বশে রাখবেন যে উপায়েমেয়েদের মন বোঝা দায়- এমন কথা ছেলেদের কাছ থেকে প্রায়ই শোনা যায়। সঙ্গিনীর মেজাজ বুঝে চলতে গিয়ে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয় ছেলেদের। কেন মেয়েরা কথায় কথায় এত রাগ করে বলুন তো!
আসলে নিজের সঙ্গীর মধ্যে কয়েকটি অভ্যাস বা স্বভাব একেবারেই মেনে নিতে পারেন না। আর যেগুলি পছন্দ করেন না, সেগুলিই তার সঙ্গীর মধ্যে লক্ষ্য করলে চটে যান মেয়েরা। আসুন জেনে নেওয়া যাক সেই বিষয়গুলি সম্পর্কে যেগুলি মেয়েরা একেবারেই পছন্দ করেন না বা তাঁদের রাগিয়ে দিতে পারে-
১) বাড়ির বেশিরভাগ কাজ মেয়েরাই করে থাকেন। চেষ্টা করুন সঙ্গিনীর কাজকেও সমান গুরুত্ব দিতে। ওই বিষয়গুলিতে কথা উঠলে, সেগুলি মন দিয়ে শুনুন, পারলে প্রশংসাও করুন। এই বিষয়গুলিতে তাঁকে গুরুত্ব না দিলেই বিপদ!
২) মেয়েরা তার সঙ্গীর কাছ থেকে মিথ্যা কথা একদমই সহ্য করতে পারেন না। যত সমস্যাই হোক, তাঁদের সত্যিটাই বুঝিয়ে বলার চেষ্টা করুন। কারণ, আপনার মিথ্যা ধরা পড়ে গেলেই শুরু হতে পারে দীর্ঘমেয়াদী অশান্তির!
৩) মেয়েরা কখনওই তার পরিবার বা প্রিয় বন্ধুদের সম্পর্কে কোনও রকম সমালোচনা সহ্য করতে পারেন না। তাই সঙ্গিনীর সামনে তার আপনজনদের সম্পর্কে সমালোচনা না করাই ভাল।
৪) মেয়েরা একটু বেশিই অভিমানী। তাই ছোট ছোট বিষয় হলেও, কথা দিয়ে কথা রাখার চেষ্টা করুন।
৫) কখনই নিজের সঙ্গিনীকে অন্য কারও সঙ্গে কখনওই তুলনা করবেন না। এতে তারা মনে কষ্ট পেতে পারেন।
৬) সঙ্গিনী অভিমান করলে অবশ্যই তাকে মানানোর চেষ্টা করুন। মেয়েরাও সেটাই আশা করেন তার সঙ্গীই অভিমান ভাঙানোর চেষ্টা করবেন। তাই সঙ্গিনীর অভিমানের কারণ বুঝে তাকে মানানোর চেষ্টা অবশ্যই করুন।
৭) আপনার সঙ্গিনীর উপস্থিতিতে কখনও সেখানে উপস্থিত কোনও তৃতীয় ব্যক্তিকে বেশি গুরুত্ব দেবেন না। কোনও পুরনো বন্ধু বা পরিচিত কেউ সামনে থাকলেও সমান ভাবে সঙ্গিনীকেও সময় দিন।
৮) মেয়েদের বেশি অপেক্ষা করাবেন না। কোথাও ঘুরতে যাওয়া বা ডেটের ক্ষেত্রে সব সময় সময় মতো পৌঁছানোর চেষ্টা করুন। কারণ, অপেক্ষা করতে হলেই মেয়েদের মেজাজ বিগড়ে যেতে পারে।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft