gramerkagoj
রবিবার ● ২১ এপ্রিল ২০২৪ ৭ বৈশাখ ১৪৩১
gramerkagoj
মস্কো হামলার প্রতিশোধ নিতে সেনাবাহিনীতে যোগদানের আগ্রহ রাশিয়ানদের
প্রকাশ : বুধবার, ৩ এপ্রিল , ২০২৪, ০১:৪৭:০০ পিএম
আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
GK_2024-04-03_660d053f3bfb3.jpg

রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনীতে যোগদানের জন্য চুক্তি স্বাক্ষরকারীর সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে। মস্কোতে একটি কনসার্ট হলে মারাত্মক হামলার পর থেকে সশস্ত্র বাহিনীতে যোগদানের সংখ্যা বেড়েছে বলে জানিয়েছে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।
বুধবার এক বিবৃতিতে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, চলতি বছরের শুরু থেকে এক লাখেরও বেশি রাশিয়ান- সামরিক বাহিনীর সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে, যার মধ্যে শুধুমাত্র গত ১০ দিনেই প্রায় ১৬ হাজার রুশ বাহিনীতে যোগ দেওয়ার বিষয়ে সম্মত হয়েছে।
বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সাম্প্রতিক সপ্তাহে রাশিয়ার শহরগুলোর সৈন্য নিয়োগ কেন্দ্রগুলোতে নেওয়া সাক্ষাত্কারের সময় বেশিরভাগ প্রার্থী মস্কো হামলার প্রতিশোধ নেওয়ার আকাঙ্ক্ষার ইঙ্গিত দিয়েছেন।
প্রসঙ্গত, গত ২২শে মার্চ রাতে মস্কোর ক্রোকাস সিটি হল কনসার্ট সেন্টারে কনসার্ট দেখতে জড়ো হওয়া মানুষদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় একদল বন্দুকধারী। এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৪৩ জন নিহত হয়েছেন। পাশাপাশি আহত হয়েছেন প্রায় দেড়শো মানুষ।
এ ঘটনায় মোট ১৪ জনকে আটক করে রাশিয়ার ফেডারেল সিকিউরিটি সার্ভিস (এফএসবি)। আটককৃতদের মধ্যে চারজন সরাসরি হামলায় জড়িত রয়েছে বলে দাবি এফএসবির।
এই হামলার দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক কুখ্যাত জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের আফগান শাখা ‘ইসলামিক স্টেট খোরাসান’ বা আইএস-কে। তবে এতে ইউক্রেনের হাত রয়েছে বলেই দাবি রাশিয়ার।
এরআগে ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ‘আংশিক’ সামরিক সমাবেশের ঘোষণা দেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর রাশিয়ায় প্রথমবারের মতো এরকম সামরিক সমাবেশের ঘোষণা দেয়া হয়। এর ফলে আতংকিত হয়ে হাজার হাজার লোক পালিয়ে যায়। তবে চলতি বছর স্বেচ্ছায় সামরিক বাহিনীতে যোগদানের জন্য চুক্তিতে স্বাক্ষরকারীর সংখ্যা উল্লেখযোগ্য হওয়ায় দ্বিতীয় সমাবেশ অভিযান ঘোষণা করার প্রয়োজন নেই। এর পরিবর্তে রুশ নাগরিকদের আর্থিক প্রণোদনা ও একটি বিশাল জনসংযোগ প্রচারাভিযান বেছে নিয়েছে মস্কো।
এছাড়াও মস্কোর মেয়রের ওয়েবসাইটে দেয়া এক নোটিশে বলা হয়েছে, ইউক্রেনে অভিযানের জন্য ‘বিশেষ সামরিক অভিযানের জোনে’ সেনাদের ‘কমপক্ষে ২ লাখ ৪ হাজার রুবল’ দেয়া হবে।
২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেন আক্রমণ করে রাশিয়া, গত বছর ইউক্রেনীয় পাল্টা আক্রমণ উল্লেখযোগ্য সফলতা পেতে ব্যর্থ হওয়ার পরে গত দুই মাসে ধীরে ধীরে অগ্রসর হচ্ছে।
রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই শোইগু গত মাসে বলেছিলেন, মস্কো এই বছরের শেষ নাগাদ দুটি নতুন সেনাবহর এবং ৩০টি নতুন ফর্মেশন যুক্ত করে তার সামরিক শক্তিকে শক্তিশালী করবে।
সূত্র: রয়টার্স

আরও খবর

🔝