gramerkagoj
বুধবার ● ১৭ এপ্রিল ২০২৪ ৪ বৈশাখ ১৪৩১
gramerkagoj

আমাদের পথচলা

সত্য, বস্তুনিষ্ঠ ও নির্যাতিত পীড়িত মানুষের কণ্ঠস্বর হিসেবে যশোরসহ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে দীর্ঘ এক যুগ পেরিয়ে ২১তম বছরে সুনামের সাথে মিশে আছে দৈনিক গ্রামের কাগজ। পত্রিকাটির কর্ণধার মবিনুল ইসলাম মবিন ১৯৯৯ সালে ২৬শে মার্চ নিজের চেষ্টা ও নিষ্ঠা দিয়ে যশোরের সংবাদপত্রের তালিকায় নতুন এ সংবাদপত্রের নাম যোগ করেন । প্রথমে এটি সাপ্তাহিক পত্রিকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। ২০০১ সালের ২২ ডিসেম্বর হতে দৈনিক হিসেবে চালু করা হয়।

২০০২ সালের ১৭ই মার্চ হতে গ্রামের কাগজে রঙের ছোয়া লাগে। গ্রামের কাগজই দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সর্বপ্রথম রঙ্গিন দৈনিক পত্রিকা। একঝাঁক উদ্যোমী তরুণ সাংবাদিকের নিরলস পরিশ্রমে অতি অল্প সময়ের মধ্যে গ্রামের কাগজ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে। বস্তুনিষ্ঠ, নিরপেক্ষ ও ব্যতিক্রমী সংবাদ পরিবেশনের কারণে পাঠকদের কাছে আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয় গ্রামের কাগজ। শুধু বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন নয়,সামাজিক ও সেবামূলক কাজ করেও গ্রামের কাগজ এ অঞ্চলের মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছে। পিতৃহারা দরিদ্র অসহায় শিশু মুন্নী হৃদরোগে আক্রান্ত হলে তাকে বাঁচাতে পাশে এসে দাঁড়ায় গ্রামের কাগজ। প্রায় ৫লাখ টাকা সংগ্রহ করে দিয়ে সফলভাবে তার হার্ট অপারেশনে অসাধারণ ভূমিকা রাখে পত্রিকাটিতে কর্মরতরা।

এই মহতি উদ্যোগ পাঠক ও সুধীমহলে ব্যাপক সুনাম অর্জন করে। এছাড়া এ জনপদের চুয়াডাঙ্গার মেয়ে ক্লোজআপ ওয়ান খ্যাত লালন কন্যা বিউটির পাশে এসে দাঁড়ায় গ্রামের কাগজ। গ্রামের কাগজ প্রতিদিনই ব্যতিক্রমী পরিবেশনা নিয়ে পাঠকের সামনে হাজির হচ্ছে। তথ্য প্রযুক্তিতেও এগিয়ে গেছে গ্রামের কাগজ। পত্রিকার পরিচিত বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে উদ্যোগী হয় গ্রামের কাগজ কর্তৃপক্ষ। ২০১০ সালের ১৩ মার্চ আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করে গ্রামের কাগজের অন-লাইন প্রকাশনা

www.gramerkagoj.com । ব্যতিক্রমধর্মী উপস্থাপনা ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশের ফলে গ্রামের কাগজ পৌছে গেছে বিশ্বব্যাপী। ২০১৭ সালের ২৬ মার্চ গ্রামের কাগজের পথচলার দেড় যুগ পার করেছে। গ্রামের কাগজ আরো অনেকদুর এগিয়ে যেতে চাই। যুগযুগ ধরে বেচেঁ থাকতে চাই। তারই ধারবাহিকতায় মবিনুল ইসলাম মবিনের নেতৃত্বে এক ঝাঁক সৎ ও পরিশ্রমী উদ্যোমী সংবাদ কর্মীদের প্রচেষ্টায় এগিয়ে চলছে গ্রামের কাগজ। যশোর বাংলাদেশের প্রথম ডিজিটাল জেলা হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে ২০১৩ সালে।

গ্রামের কাগজ ডিজিটাল হয়েছে ২০১০ সালে। যা যশোরের সংবাদপত্রে ইতিহাসে প্রথম। গ্রামের কাগজ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সংবাদপত্র জগতে সব সময় প্রথম স্থান দখল করছে ব্যতিক্রমী আয়োজন যুক্ত করে। তারই ধারাবাহিকতায় খুলনা বিভাগে প্রথমবারের মতো গ্রামের কাগজ ই-পেপার সংযোজন করেছে। পত্রিকাজগতে প্রযুক্তির শেষ ধাপটি গ্রহণ করেছে গ্রামের কাগজ।

গ্রামের কাগজের মূল প্রকাশনা www.egramerkagoj.com ভিজিট করলে দেখা যাবে বিশ্বের যেকোন প্রান্ত থেকে। এখানেই থেমে নেই গ্রামের কাগজের প্রচেষ্টা। যশোরসহ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলসহ দেশ ও বিদেশে ঘটে যাওয়া ঘটনার তাৎক্ষণিক প্রকাশ করার জন্যে www.gramerkagoj.com সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সমন্বয়ে তৈরী করা হয়েছে অনলাইন নিউজ পোর্টাল।

মোবাইলেও গ্রামের কাগজের অনলাইন নিউজ পোর্টালের সর্বশেষ খবর পড়া যাবে । এক্ষেত্রে মোবাইল ফোনে ইন্টারনেট কানেকশন থাকলেই চলবে। আলাদা কোন ইমেজ বা সফটওয়্যার ইনস্টল করা লাগবে না। গ্রামের কাগজের পথ চলার সাথী হয়ে অনুপ্রেরণা দিতে সবার প্রতি রইল কৃতজ্ঞতা।


🔝