gramerkagoj
বৃহস্পতিবার ● ২৫ এপ্রিল ২০২৪ ১২ বৈশাখ ১৪৩১
gramerkagoj
মহাকাশে পারমাণবিক অস্ত্র রাখার ইচ্ছা নেই রাশিয়ার : পুতিন
প্রকাশ : বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি , ২০২৪, ০১:২৬:০০ পিএম
আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
GK_2024-02-21_65d59ad332093.jpg

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার সূত্র থেকে জানা যায় মহাকাশে পরমাণু অস্ত্র প্রয়োগ করে স্যাটেলাইট ধ্বংসের ক্ষমতা আয়ত্ত করার চেষ্টা করছে রাশিয়া। এমন খবরে সৃষ্টি হয় উদ্বেগের। তবে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন জানিয়েছেন, মহাকাশে পারমাণবিক অস্ত্র রাখার কোনো ইচ্ছা নেই দেশটির।
বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।
প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাশিয়ার মহাকাশে পারমাণবিক অস্ত্র স্থাপনের কোনো ইচ্ছা নেই বলে ঘোষণা করেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তার দাবি, মস্কো কেবল যুক্তরাষ্ট্রের মতোই মহাকাশ সক্ষমতা তৈরি করেছে।
এর আগে গত সপ্তাহে হোয়াইট হাউস দাবি করেছিল, রাশিয়া একটি ‘সমস্যাজনক’ অ্যান্টি-স্যাটেলাইট অস্ত্রের সক্ষমতা অর্জন করেছে, যদিও এই ধরনের অস্ত্র এখনও তেমন কার্যকর নয়। এরপর মঙ্গলবার পুতিন এ বিষয়ে মন্তব্য করলেন।
হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তার মুখপাত্র জন কিরবি বলেছিলেন, এটি আন্তর্জাতিক মহাকাশ চুক্তি লঙ্ঘন করবে, তবে অস্ত্রটি পারমাণবিক সক্ষমতা-সম্পন্ন কিনা সে বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি তিনি।
প্রসঙ্গত, ১৯৬৭ সালের ‘আউটার স্পেস’ চুক্তির আওতায় পৃথিবীর কক্ষপথ বা মহাকাশে ‘পরমাণু অস্ত্র বা অন্য যে কোনও ধরনের গণবিধ্বংসী অস্ত্র’ স্থাপন বা ‘অন্য যে কোনও উপায়ে আউটার স্পেসে অস্ত্র’ স্থাপন করা নিষিদ্ধ। এই চুক্তিটিতে রাশিয়াসহ ১৩০টিরও বেশি দেশ স্বাক্ষর করেছে।
তবে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ওয়াশিংটন ও মস্কোর মধ্যে সম্পর্কের ক্রমাগত অবনতির কারণে একাধিক আন্তর্জাতিক সামরিক চুক্তির ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।
হোয়াইট হাউস বলেছে, তারা তাদের এই উদ্বেগ সম্পর্কে রাশিয়ানদের সঙ্গে সরাসরি জড়িত হওয়ার চেষ্টা করবে।
এমন অবস্থায় প্রেসিডেন্ট পুতিন বলেন, ‘আমাদের অবস্থান বেশ পরিষ্কার এবং স্বচ্ছ: আমরা সবসময়ই মহাকাশে পারমাণবিক অস্ত্র স্থাপনের বিরোধিতা করে আসছি এবং সেই অবস্থানেই রয়েছি। এর বিপরীতে, আমরা এই ক্ষেত্রে বিদ্যমান সমস্ত চুক্তি মেনে চলার জন্য সবাইকে আহ্বান জানাচ্ছি।’
তিনি এই অভিযোগকে ‘পশ্চিমে উত্থাপিত হৈচৈ’ এর অংশ বলেও অভিহিত করেন।
পুতিন বলেন, রাশিয়া ‘অনেকবার (মহাকাশ) ক্ষেত্রে যৌথ সহযোগিতা জোরদার করার পরামর্শ দিয়েছে কিন্তু কিছু কারণে পশ্চিমা দেশগুলোতে এই বিষয়টি খুব বেশি সামনে আসেনি’।
রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগুর সাথে বৈঠকের সময় পুতিন উল্লেখ করেন, রাশিয়া কেবলমাত্র সেই মহাকাশ সক্ষমতাই তৈরি করেছে যা ‘যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্যান্য দেশগুলোর আছে। এবং তারাও এটি জানে।’
এদিকে সের্গেই শোইগু বলেন, ‘আমরা মহাকাশে কোনও পারমাণবিক অস্ত্র স্থাপন করিনি বা উপগ্রহের বিরুদ্ধে ব্যবহার করার জন্য বা স্যাটেলাইটগুলো দক্ষতার সাথে কাজ করতে পারে না এমন ক্ষেত্র তৈরি করতে সেখানে কোনও উপাদানও স্থাপন করিনি।’
শোইগু অভিযোগ করেন, হোয়াইট হাউস নতুন করে রাশিয়ান মহাকাশ সক্ষমতার বিষয়ে অভিযোগ করছে যাতে কংগ্রেসকে ইউক্রেনের জন্য সহায়তা করতে বাধ্য করতে পারে এবং মস্কোকে পারমাণবিক অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আলোচনায় পুনরায় প্রবেশ করতে উৎসাহিত করতে পারে। মূলত ইউক্রেন নিয়ে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উত্তেজনার কারণে এই আলোচনা স্থগিত রয়েছে।
পুতিন অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রের সাথে ভবিষ্যতের সম্ভাব্য যোগাযোগ বা আলোচনাকে অস্বীকারও করেননি। তিনি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র এবং পশ্চিমারা একদিকে রাশিয়ার কৌশলগত পরাজয়ের আহ্বান জানাচ্ছে, অন্যদিকে তারা কৌশলগত স্থিতিশীলতার বিষয়ে সংলাপও করতে চায়। এটি কাজ করবে না।’

আরও খবর

🔝