gramerkagoj
রবিবার ● ২১ এপ্রিল ২০২৪ ৮ বৈশাখ ১৪৩১
gramerkagoj
দেশে ঊর্ধ্বমুখী করোনা
প্রকাশ : রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারি , ২০২৪, ০৯:৪৩:০০ এ এম
:
GK_2024-02-10_65c7536b33aa9.jpg

দেশে আবারও করোনার উর্দ্ধগতি লক্ষ্য করা গেছে। যা নতুন করে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার সৃষ্টি করেছে। গত একদিনে দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে কারও মৃত্যু হয়নি ঠিকই। কিন্তু এদিন নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ৪৭ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০ লাখ ৪৭ হাজার ৪৮৭ জন। আর এ পর্যন্ত দেশে করোনা ভাইরাসে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৯ হাজার ৪৮৩ জনের। শুক্রবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনা বিষয়ক এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিগত ৪ দিনের শনাক্তের পরিমাণ থেকে দেখা যায়, এটি ক্রমান্বয়ে ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছে।
শুক্রবারের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সারা দেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮৮৫টি ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৮৩৩টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে এক কোটি ৫৬ লাখ ৫০ হাজার ৫১৭টি। এতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৩ জন সুস্থ হয়েছেন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ২০ লাখ ১৪ হাজার ৬৮২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার পাঁচ দশমিক ৬৪ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ০৮ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৮ দশমিক ৪০ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪৪ শতাংশ। এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দুই জন আইসোলেশনে এসেছেন এবং আইসোলেশন থেকে একজন ছাড়পত্র পেয়েছেন। এ পর্যন্ত মোট আইসোলেশনে এসেছেন চার লাখ ৫২ হাজার ৮৬৭ জন এবং আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন চার লাখ ২৩ হাজার ৬০৮ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ২৯ হাজার ২৫৯ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। সেই থেকে করোনা আমাদের পিছু ছাড়েনি। মাঝে করোনা আর সেইভাবে হানা দিতে না পারলেও আবারও মাথা ব্যাথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এখনই উচিৎ হবে করোনা প্রতিরোধে কার্যকর উদ্যোগ নিতে হবে।

আরও খবর

🔝