gramerkagoj
শুক্রবার ● ১ মার্চ ২০২৪ ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০
gramerkagoj
তবু আমি বুকায় রবো !
প্রকাশ : শনিবার, ৩ ফেব্রুয়ারি , ২০২৪, ০৮:৫৭:০০ পিএম
আক্কেল চাচা:
GK_2024-02-03_65be55b81f6ff.jpg

ম্যালাদিন আগে গানডা শুনিলাম। শিল্পীর বাপ দাদার ভিটে আমাগের দেশে হলিও তিনার পরিচিতি ভারতের শিল্পী বিলে। নচিকেতা দাদুর গাওয়া গানডার কতা ছিলো এইরাম, তবু আমি বুকাই রবো ইডাই আমার এম্বিশেন। গানের মদ্দি আরো কওয়া হইলো, বড় যদি চাবা হতি, স্যানেও লোক ঠগানো, সৎ ভাবে বাচো বাচাও, একতা লোক ভুলানো। সৎভাবে যাবে বাচা, বড় হওয়া যাবে নাকো, শুধু কতা না শুইনে, বড়গের দেকেই শেখ। এ সবই থাক তুমাগের, আমি বড় চাই নে হতি, ধুলো মাখা পতই আমার, তুমি চোড়ো জয়োরথি। শত নাইনছেদ দিয়ে কইরে আমায় অসুম্মান, তবু আমি বুকাই রবো ইডাই আমার এম্বিশন। একন চারিদকি মানুস হ্যাতো স্যায়না হইয়েচে তাইগের সাতে তাল মিলোয় চলায় দুস্কর। একপা গোরে এক পা ড্যাঙ্গায় তবু মানসির মুকিত্তে এট্টা কতা দূও কত্তি পাল্লাম না। আক্কেল তুই বেআক্কেলই থাইকে গেলি। না পারি চোকি মুকি কতা কতি। না পারি ভুং ভাং কোন কাজ কত্তি। সেদিন আমার এক ভাইপো আমারে কলে, চাচা তুমি যে এই সব নীতির কতা কও এই সব একন চলে? মানসির একন ধান্দা টাকা কামানো। সিডা যে পতেই হয় হোকগে। কিডা মইল্লো, কিডা বাইচলো, সে সব দেকার সুমায় কারো একন আচে। ধরো আমাগের এলেকায় এক সুমায় এট্টা লোক ছিল। যারে স¹লি বসির চিটার নামে চিনতো। তামান এলেকায় হ্যানো কোন লোক ছিল না বসির চাচারে চিনতো না। চিটারি কইওে হলি লোকের মুকি মুকি তার নাম ছিল। আর এই যে তুমি কুচো চিটি হররোজ লিকে বেড়াও। কেউ তুমারে চেনে। না তুমার লিকা কারো কাজে লাগে। ফাও কাজে এই সব লিকে লাভডা কি কওদিনি। এই সব কাজে সুমায় য্যান না কইরে কোন ফান পাইতে কামোয় করা যায় সিডা নিয়ে ভাবো। মেঘে মেঘে তো কম বেলা হইলো না। কবে ককন কাইজে যাও তার তো ঠিক নেই। তার জ্ঞান দিয়ার কায়দা দেইকে মনে হলে সে আমার চাচা, আমি তার ভাইপো। আমি তারে কলাম বাপুরে, কামোয় করার ফান কি স¹লি পাততি পারে। না সব কাজ সবার সাজে। তুরা স্যায়না বেশি তুরা ঐ সব কইরে বেড়াগে। আমি বুগদা আছি তাইই থাকি। আর সব কিচুই যে টাকার পাল্লা তুইলে মাপতি হবে সিডাই বা কেন। আমার কতা শুনে মনে হলো তার পাকা ধানে বাসোই দিয়ে দিলাম। মিজাজ খাররা কইরে হাটা দেলে। মনে মনে কলাম, যে যিরাম তার ভাবনাডা তো সিরামই হবে।
ইতি
অভাগা আক্কেল চাচা

 

আরও খবর

🔝