gramerkagoj
সোমবার ● ৪ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪৩০
gramerkagoj
‘শয়তানের নিঃশ্বাস’ এবার যশোর শহরে

❒ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে প্রতারক চক্র

প্রকাশ : শনিবার, ১৩ মে , ২০২৩, ১২:২২:০০ এম , আপডেট : শনিবার, ২ ডিসেম্বর , ২০২৩, ১১:১২:২৫ এম
শিমুল ভূইয়া ::
gramerkagoj
যশোরে প্রতারক চক্রের উৎপাত বেড়েছে। অভিনব কায়দায় একের পর এক প্রতারণা করে মানুষকে সর্বস্বান্ত করছে তারা। মলমপার্টি, অজ্ঞানপার্টি, পণ্যক্রয়ের নামে প্রতারণার পর এখন আলোচনায় রয়েছে ‘শয়তানের নিঃশ্বাস’। অভয়নগরের পর এবার খোদ যশোর শহরে পড়েছে তথাকথিত শয়তানের নিঃশ্বাস! সম্প্রতি এই চক্র ইব্রাহিম নামে এক ইজিবাইক চালককে ডেভিল ব্রেথ বা শয়তানের নিঃশ্বাসের মাধ্যমে ‘বশ’ করে অতিসহজে ইজিবাইক নিয়ে পালিয়েছে। যাত্রী সেজে তারা ইজিবাইকে উঠে চালককে একটি ভিজিটিং কার্ড দেয়। এরপর তারা চালক ইব্রাহিমকে ইজিবাইক থেকে নেমে দৌড় দিতে বলে। তাদের কথামতো ইব্রাহিম ইজিবাইক ফেলে দৌড় দেন। পরে প্রতারক চক্রের সদস্যরা তার ইজিবাইক নিয়ে পালিয়ে যায়।
যশোরের মণিরামপুর উপজেলার জামজামি গ্রামের মৃত নিছার আলীর ছেলে ইব্রাহিম হোসেন। প্রতিদিনের মতো গত ৮ মে ইজিবাইক নিয়ে শহরে আসেন। দুপুর ২ টায় যশোর শহরের মোল্লাপাড়া মোড় থেকে এক ব্যক্তি বেজপাড়ায় যাওয়ার কথা বলে তার ইজিবাইকে উঠেন। বেজপাড়া মোড়ে পৌঁছালে ওই ব্যক্তি ইজিবাইক থেকে নেমে যায়। তখনই একটি প্রাইভেটকার সেখানে আসে। যার রেজিস্ট্রেশন নাম্বার ঢাকা মেট্রো-খ ২৫৩৬৪৭। ইজিবাইক থেকে নেমে যাওয়া লোক ওই প্রাইভেটকারে থাকা একজনের সাথে গেলোযোগ বাধায়। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে তাদের সাথে থাকা অপর ব্যক্তি মুড়লি যাওয়ার কথা বলে তার ইজিবাইকে ওঠে। কিছুদূর যাওয়ার পর তাকে নিজের পরিচয় দিয়ে একটি ভিজিটিং কার্ড দেয়। ওই ভিজিটিং কার্ডে সবকিছু অস্পষ্টভাবে লেখা ছিল। যা চোখের সামনে নিয়ে পড়েন ইব্রাহীম। এরপর তিনি কী করেন তা আর তার আর কিছুই তার মনে নেই।
ইব্রাহিমের ভাই শামীম হোসেন বলেন, তাকে বেজপাড়ায় অচেতন হয়ে পড়ে থাকতে দেখেন আরেক ইজিবাইক চালক। পরবর্তিতে তাকে বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। ২৪ ঘন্টা তিনি অচেতন ছিলেন। পরে তার জ্ঞান ফিরলেও কিছুই তার আর কিছু মনে ছিল না। পরে  কোতোয়ালি থানায় লিখিত অভিযোগ দেন তারা। থানার এসআই জাকির হোসেন বিষয়টি তদন্ত শুরু করেছেন। বৃহস্পতিবার বেজপাড়ায় গিয়ে ঘটনাস্থলসহ আশপাশের সিসি ফুটেজ সংগ্রহ করলে বিষয়টি সামনে আসে।
এ বিষয়ে তদন্ত কর্মকর্তা এসআই জাকির হোসেন বলেন, তিনি ভিকটিমকে নিয়ে ঘটনাস্থল বেজপাড়া পাওয়ার হাউজের সামনে যান। সেখানকার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সিসি ফুটেজ সংগ্রহ করে দেখা যায় ইব্রাহিম নিজের ইজিবাইক ফেলে দৌড় দিচ্ছেন।
এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জুয়েল ইমরান বলেন, ইতিমধ্যে তারা কথিত ‘শয়তানের নিঃশ্বাস’ প্রতারক চক্রের পাঁচ সদস্যকে আটক করেছেন। পুলিশ অভিযান অব্যাহত  রেখেছে।
এর আগে গত ৮ এপ্রিল অভয়নগরের বর্ণী হরিশপুর বাজারে শরিফুল ইসলামের মরিয়ম স্টোরের সামনে প্রাইভেটকার থামিয়ে অজ্ঞাত তিনজন-চারজন লোক নামে। তাদের দু’জন দোকানে প্রবেশ করে। তারা আরবি ভাষায় কথা বলে নারিকেল তেল চান। এসময় শরিফুলের বাবার সাথে হ্যান্ডশেক করে এবং মানিব্যাগ থেকে টাকা বের করে বাদীর বাবার মুখের কাছে নেয়। এরমধ্যে শরিফুলের বাবা জ্ঞানশূন্য হয়ে পড়ে ওই ব্যক্তির নিয়ন্ত্রণে চলে যান তিনি। এরপর যা বলে তাই শুনতে থাকেন শরিফুলের বাবা। এক পর্যায়ে দোকানে থাকা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের নগদ প্রায় ছয় লাখ টাকা নিয়ে চম্পট দেয় প্রতারকরা। এসব বিষয়ে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সবাইকে সজাগ থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে।

আরও খবর

🔝