আজ মঙ্গলবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৩০ মে ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ
শিরোনাম: ‘দেশের ২৩টি বড় নদী খনন হবে’       শিশুর দাঁতের যত্নে যা করবেন       ইফতারে খাওয়া উচিত যে খাবার       এবার শুধু দর্শক-ভক্তদের জন্য ঢাকায় জিৎ       ‘উত্তর কোরিয়ার ছোঁড়া ক্ষেপণাস্ত্র যে কোনো সময় ধ্বংস’       মিরসরাইয়ে ছেলের হাতে বাবা খুন       পার্বতীপুরে দীর্ঘ ১০ বছর যাবৎ শিকলেবন্দী আজাদ আলী       বেনাপোল বন্দরে রাজস্ব আয় বেড়েছে       ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের প্রস্তুতি সম্পন্ন        হোটেল প্রবাল থেকে নিজস্ব ক্যাম্পাসে গেল সাউথ ওয়েস্ট মডেল ইনস্টিটিউট      
‘ছুটির ঘন্টা’
কালিগঞ্জে রাত ১১টা পর্যন্ত টয়লেটে অবরুদ্ধ শিক্ষার্থী!
কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা) থেকে আহাদুজ্জামান আহাদ :
Published : Saturday, 18 February, 2017 at 12:26 AM
কালিগঞ্জে রাত ১১টা পর্যন্ত টয়লেটে অবরুদ্ধ শিক্ষার্থী!কালিগঞ্জের দক্ষিণ শ্রীপুৃর ইউনিয়নের ফতেপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও দপ্তরীর গাফিলতিতে এক শিক্ষার্থী স্কুলের টয়লেটে অবরুদ্ধ ছিল বলে জানা গেছে। এ ঘটনাকে আলোচিত ‘ছুটির ঘন্টা’ নামক সিনেমার সাথে সাদৃশ্য হিসেবে আখ্যায়িত করেছে এলাকার অভিভাবকসহ এলাকাবাসী। বৃহস্পতিবার বিকেলে সরেজমিনে জানা যায়, উপজেলার ফতেপুর গ্রামের অরবিন্দু দাশের ছেলে ৫ম শ্রেণির ছাত্র নিলয় দাশ প্রতিদিনের মত বুধবার দুপুর ১২ টায় স্কুলে যায়। বিকেল ৪ টায় স্কুল ছুটি হয়ে গেলেও সে বাড়িতে ফিরে না যাওয়ায় তার বাবা-মা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন। বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুুজির এক পর্যায়ে স্কুল ছাত্র নিলয়ের মা-বাবা ফতেপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম রব্বানী এবং নৈশ প্রহরী আব্দুল হাইয়ের কাছে নিলয়ের বিষয়ে জানতে চান। এসময় তাদের ছেলে স্কুলের টয়লেটে আটকা পড়েছে কিনা সন্দেহ পোষণ করে বিষয়টি যাচাই করার জন্য প্রধান শিক্ষকের নিকট অনুরোধ জানান। এরপরও প্রধান শিক্ষক গোলাম রব্বানী নিলয়ের মা-বাবাকে ধমক দিয়ে বলেন, অতবড় ছেলে টয়লেটে আটকা পড়বে কী করে?  অন্য কোথাও খুঁজে দেখেন। এরপর  ফিরে এসে সম্ভাব্য সব স্থানে খোঁজাখুজি করে না পেয়ে রাত ১১ টার সময় স্কুলের টয়লেটের পাশে যেয়ে চিৎকার করে নিলয়ের নাম ধরে ডাকাডাকি করতে থাকে নিলয়ের মা-বাবা ও স্বজনরা। তখন টয়লেটের ভিতর থেকে সাড়া দেয় নিলয়। সাথে সাথে স্কুলের নৈশ প্রহরী আব্দুল হাইয়ের সহায়তায় তালা খুলে স্কুলের টয়লেট থেকে অসুস্থ অবস্থায় নিলয়কে উদ্ধার করা হয়। নিলয় জানায়, স্কুলে ছুটির অল্প সময় আগে আমি টয়লেটে যাই। বের হয়ে দেখি টয়লেটের বাইরের গেটে তাল েেদওয়া। আমি তালা দেওয়া দেখে চিৎকার করতে থাকি। কিন্তু কেউ আমাকে উদ্ধার করতে আসেনি। এরপর আমি ভয়ে অজ্ঞান হয়ে যাই। পরে মা-বাবার ডাকাডাকি শুনে আমার জ্ঞান ফেরে।
এদিকে স্কুল কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় একটি  কোমলমতি শিশুর জীবন নিয়ে শংকা সৃষ্টি হওয়ায় এলাকার অভিভাবকসহ সর্বস্তরের মানুষের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। দীর্ঘদিন একই স্কুলে দায়িত্ব পালনকারী ওই প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আরও অনেক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে বলে তারা জানান এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে এর প্রতিকার দাবি করেছেন। এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষকের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের  চেষ্টা করা হলেও বন্ধ থাকায় বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি। কালিগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) শেখ ফারুখ হোসেন জানান, বিষয়টি আমি ওই ক্লাস্টারের দায়িতপ্রাপ্ত সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার আসাদুজ্জামান এর মাধ্যমে জানতে পেরেছি। আগামী রোববার আমি কর্মস্থলে যেয়ে বিষয়টি দেখবো।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft