আজ মঙ্গলবার, ১২ বৈশাখ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৫ এপ্রিল ২০১৭ খ্রিস্টাব্দ
শিরোনাম: সুনামগঞ্জে হাওরে মাছ ধরার নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার       বাংলাদেশকে পানি দেব না বলিনি : মমতা       প্লাস্টিক বর্জ্য সরাবে শুঁয়োপোকা!       ১১ মামলায় খালেদার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন ফের পেছাল       পরমাণু অস্ত্রবাহী মার্কিন ডুবোজাহাজ কোরীয় জলসীমানায়       যশোরাঞ্চলে ধানে ব্লাস্ট রোগের পর এবার ঝড়-শিলাবৃষ্টি       বেনাপোলে ৮ সোনার বারসহ পাচারকারী আটক       ঝড়ে যশোরের বিআরবি স্কুল ও নতুনহাট পাবলিক কলেজের ঘরের ছাউনি উড়ে গেছে       যশোরে পৃথক ঘটনায় ৪ জনের মৃত্যু       খুনীদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে যশোরে বিক্ষোভ       
কোতোয়ালী মডেল থানা যশোর
জনহয়রানি ও বেশুমার অর্থ বাণিজ্যে লিপ্ত সিভিল টিমের এসআই নাজমুল
বিশেষ প্রতিনিধি :
Published : Thursday, 5 January, 2017 at 12:02 AM, Update: 05.01.2017 1:17:28 AM
জনহয়রানি ও বেশুমার অর্থ বাণিজ্যে লিপ্ত সিভিল টিমের এসআই নাজমুল যশোর কোতোয়ালী থানায় সিভিল টিমের (মোবাইল-১৮ দায়িত্বপ্রাপ্ত) এসআই নাজমুল হোসেন কারণে অকারণে লোকজন ধরে হয়রানি ও বেশুমার অর্থ বাণিজ্য করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। প্রতিদিন অভিযানের নামে নিরীহ লোকজনকে আটক করে মোটা অংকের উৎকোচ দাবি করছেন। চাহিদা মেটাতে ব্যর্থ হলে আটক ব্যক্তির বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা বা মাদক মামলা দিয়ে চালান দিচ্ছেন এমন অভিযোগ আসছে।
যশোরে বদলি হয়ে যশোর কোতোয়ালী থানায় আসেন এসআই নাজমুল হোসেন। যোগদান করার পর তিনি কিছুদিন ডিউটি অফিসারের দায়িত্ব পালন করেন। উধ্বর্তন এক কর্মকর্তার আত্মীয়ের সূত্রধরে খুলনা রেঞ্জ থেকে সীমান্তবর্তী যশোর জেলায় বদলি হয়ে আসেন। এরপর ওই আত্মীয়ের মাধ্যমেই সিভিল টিমের (মোবাইল-১৮ টিমের) দায়িত্ব গ্রহণ করেন। দায়িত্ব গ্রহণের পর তিনি যাকে তাকে আটক করে মোটা অংকের উৎকোচ দাবি করেন। যিনি টাকা দিতে কিংবা তার চাহিদা মেটাতে ব্যর্থ হন তাকে নিয়মিত মাদক মামলা না হয় পুরাতন মামলা দিয়ে আদালতে হাজির করা হয়। যিনি টাকা দিতে রাজি হন তাদেরকে অনেক সময় পুলিশ আইনের ৩৪ কার্যবিধি নয় ৫৪ কার্য্যবিধি একান্ত না হলে ১৫১ ধারা মোতাবেক আদালতে সোপর্দ করেন। কোতোয়ালী থানায় হাজত রেজিস্টারের তথ্যানুয়ায়ী তিনি অনেক লোককে আটক করেছেন। আসামি ধরে অনেক সময় থানা হাজতে রাখলেও হাজত রেজিস্টারে নাম ওঠেনি এমন ঘটনা ঘটেছে। তবে ডিউটি অফিসারের হাতে একটি কাগজে আসামিদের নামের তালিকা লিখে ধরিয়ে দেন। ওই এসআই সিভিল টিমের দায়িত্ব নেয়ার পর প্রতিদিন অর্ধ লাখ টাকা উপার্জনের মিশন নিয়ে মাঠে নামেন তিনি। শহরের আনাচে কানাচে ছুটে বেড়াচ্ছেন। সিভিল টিমের দায়িত্ব নেয়ার পর বড় মাপের কোন আসামি আটক কিংবা সফলতা দেখাতে পারেননি। তবে দু’হাত ভরে টাকা উপার্জন করেছেন এটা থানা সংশ্লিষ্ট অনেকের মন্তব্য। ২ জানুয়ারি রাতে তিনি শেখহাটি মিয়া বাড়ির মোড়ের তোফাজ্জেল হোসেনের ছেলে রাসেল হোসেন, খুলনা খালিশপুর উপজেলার দূর্বা সংঘ ক্লাবের পাশে শাহাজাহান আলীর ছেলে ইউসুফ আলী নিশাত, যশোর উপশহর এফ ব্লকের রোড নং ১০ এর মৃত, শফিকুল ইসলামের ছেলে আরিফুল ইসলাম সজিব ও নতুন উপশহর এফ ব্লক রোড নং ৯০ এর মৃত সৈয়দ নুরুল হকের ছেলে সৈয়দ মনোয়ারুল করিমকে আটক করেন। তাদেরকে মধ্যে থেকে সৈয়দ মনোয়ারুল করিমকে মোটা অংকের উৎকোচ নিয়ে মুক্তি দেন। এর আগে হাফ ডজন লোককে আটক করে রেজিস্টারে নাম না লিখে থানা হাজতে রেখে দেন। তাদের কয়েকজনের কাছ থেকে তিনি অর্থ বাণিজ্য করেন বলে অভিযোগে প্রকাশ। 




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft