শিরোনাম: মণিরামপুরে গাছ মারতে নতুন কৌশল       ঘুর্নিঝড়ে অভয়নগরের তিন গ্রাম লণ্ডভণ্ড       কুষ্টিয়ায় এনএসআই’র ভুয়া ২ সদস্য আটক       খুলনা থেকে দর্শনা পর্যন্ত ডাবল লাইন রেলপথ হচ্ছে       খালেদাকে ফের কারাগারে পাঠানোর দাবি উঠতে পারে : তথ্যমন্ত্রী       পেঁয়াজের সংকট নেই, প্রয়োজনের বেশি কিনবেন না : বাণিজ্যমন্ত্রী       বেলারুশে ভোটচুরি: টানা বিক্ষোভ অব্যাহত, আটক ৩০০ নারী       পশ্চিমবঙ্গে বিনোদন পার্কগুলো ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে খুলছে       আফগান বাহিনীর বিমান হামলায় বহু তালেবান নিহত       আদালতে রবিউলের স্বীকারোক্তি প্রদান      
চামড়া কিনে বিপাকে মৌসুমী ব্যবসায়ীরা
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি :
Published : Sunday, 2 August, 2020 at 11:40 AM
চামড়া কিনে বিপাকে মৌসুমী ব্যবসায়ীরা কোরবানির পর সংগৃহীত শত শত পশুর চামড়া পড়ে আছে চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায়। আড়তদাররা চামড়া কিনছেন না। পক্ষান্তরে নগরী ও জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে ২০০ থেকে ৩০০ টাকা দরে চামড়া কিনে এনে গাড়ি ভাড়াও তুলতে পারছেন না মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীরা। বিপাকে পড়েছেন তারা।
চট্টগ্রাম মহানগরীর মুরাদপুর, আতুরার ডিপুসহ নগরীর বিভিন্ন এলাকায় চামড়া বিক্রেতাদের শনিবার (১ আগস্ট) রাত থেকে রোববার (২ আগস্ট) সকাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে দেখা গেছে।
চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া থেকে গরুর চামড়া সংগ্রহকারী মৌসুমী ব্যবসায়ী সাব্বির আহাম্মদ জানান, তিনি বিভিন্ন গ্রাম থেকে শনিবার ২০০ চামড়া কিনেছেন। সন্ধ্যার পর এসব চামড়া নিয়ে নগরীর মুরাদপুর আতুরার ডিপুরে আড়তে আসলে কেউ তা কিনেনি। গভীর রাত পর্যন্ত অপেক্ষার পর ২০০ থেকে ৩০০ টাকা করে কেনা চামড়া ৫০ টাকা করে বিক্রি করতে চাইলেও কেউ নেইনি।
চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলা থেকে একটি মাদ্রাসার পক্ষ থেকে সংগ্রহ করা চামড়া বিক্রি করতে আসেন আবদুর রহমান। তিনি জানান, তারা বিনামুল্যে গ্রাম থেকে চামড়া সংগ্রহ করেছেন মাদ্রাসার জন্য। এসব চামড়া গাড়ি ভাড়া করে শহরে নিয়ে আসার পর আড়তদাররা কিনছেন না। শেষ পর্যন্ত চামড়াগুলো রাস্তার পাশে ফেলে দিয়েই ফিরে যেতে হবে।
আজ সকালে নগরীর আতুরার ডিপু এলাকার একাধিক চামড়া সংগ্রহকারী মৌসুমী ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, গত বছরের মতোই এবারও একই অবস্থা। সিন্ডিকেটের নিয়ন্ত্রণে এই ব্যবসা। কোরবানির চামড়া সংগ্রহকারীরা ৫০ থেকে ১০০ টাকা দামেও বিক্রি করতে পারছেন না।
এদিকে চট্টগ্রামের চামড়া আড়তদার সমিতির সূত্র জানিয়েছে, সন্ধ্যার পর পর তারা কিছু চামড়া কিনেছে। পরে অনেক মৌসূমী চামড়া বিক্রেতা বেশি দাম চাওয়ায় তারা চামড়া সংগ্রহ করেনি। রোববার সবাই কমদামে চামড়া দিতে চাইলেও দীর্ঘ সময় লবণ ছাড়া থাকায় এসব চামড়ার মান নষ্ট হয়ে গেছে। ফলে এসব চামড়া তারা আর কিনছেন না।
চট্টগ্রাম কাঁচা চামড়া আড়তদার সমিতির সভাপতি আবদুল কাদের জানান, এই বছর প্রায় ৪ লাখ চামড়া সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা ছিল। কিন্তু সেই লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী চামড়া সংগ্রহ করা যাচ্ছে না। সমিতিভুক্ত ১১২ জন ও এর বাইরে ১৫০ জন আড়তদার এবার চট্টগ্রাম অঞ্চলে কাঁচা চামড়া সংগ্রহ করছেন। কিন্তু মৌসুমী চামড়া বিক্রেতাদের চাহিদা মতো তারা চামড়া সংগ্রহ করতে পারছেন না। চট্টগ্রামে ট্যানারি না থাকায় ঢাকা ট্যানারি মালিকদের মন মর্জির ওপর তারা চামড়া সংগ্রহ করতে বাধ্য হচ্ছেন।
এই আড়তদার জানান, প্রথম দিকে মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীরা বেশি দাম চাওয়ায় কিনতে পারেননি তারা। নির্দিষ্ট সময় অতিবাহিত হওয়ার পর নামমাত্র মুল্যে দিতে চাইলেও চামড়ার মান নষ্ট হয়ে যাওয়ায় তারা আর কিনছেন না।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft