শিরোনাম: খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সবচেয়ে বড় বিষয় : মিঠু       মশ্মিমনগরে প্রবাসীর সহযোগিতায় বৃক্ষরোপণ        যশোরে আরও ৫৬ জন করোনায় আক্রান্ত, সদরে ২৫       কচুয়া থেকে গাঁজাগাছসহ একজন আটক        পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবির মিথ্যা মামলা       রাজাকারের তালিকা দেবে সংসদীয় কমিটি       কাশিমপুরে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের বাড়ি পেলেন বিএনপির ধনাঢ্য রাশেদ        যুবলীগকর্মী সোহাগ খুনে টিপুকে নির্দোষ দাবি করে আবেদন        মানুস চিনলাম কিন্তুক মানসির মাইটে চিনলাম না       রফতানি বাড়াতে রাষ্ট্রদূতদের কাজ করতে হবে : বাণিজ্যমন্ত্রী      
রাজনীতির মহাকবির অমর কবিতা পড়ার দিন ছিলো সেদিন
Published : Monday, 13 July, 2020 at 10:10 PM
রাজনীতির মহাকবির অমর কবিতা পড়ার দিন ছিলো সেদিনপেত্তেক বছর ৭ মার্চরে ‘জাতীয় ঐতিহাসিক দিবস’ হিসেবে পালন করবে সরকার। শুনতি পালাম কাল সিদ্দান্তডা চুড়ান্ত হইয়েচে। ৭১ সালের মার্চের পেত্তম দিনিত্তেই টালমাটাল ছিলো ঢাকার রাজপত। এর মদ্দিই উটোনো হইল স্বাদীন বাংলাদেশের মানচিত্তরয়ালা পতাকা। পাঠ করা হইলো স্বাদীনেতার ইশতিহার আর ঠিক করা হইলো আমাগের জাতীয় সঙ্গীত। দলের নিতাকর্মীরা জানতেন বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চে স্বাদীনেতার নিদ্দেশনা দিয়ে ভাষন দেবেন। পাকিস্তানীগের চাপের কারনে আগেত্তে চাউর হোক সিডা অনেকেই চাননি। ভাষন দিতি যাওয়ার সুমায় বঙ্গবন্ধু যকন বাড়িত্তে বেরোচ্চিলেন তকন বেগম মুজিব তারে কইলেন, তুমি যা বিশ্বাস করো সিডাই তুমি বক্তিমায় কবা। ৭ মার্চের ভাষনডা বঙ্গবন্ধু নিজির মনের চিন্তাত্তেই দিলেন। ইডা কেউ তারে লিকে দিলো না। দুপোর দুডোর দিকি আব্দুর রাজ্জাক চাচা আর তুফায়েল আহমেদ চাচাসহ জুয়ান নিতাগের সাতে নিয়ে বঙ্গবন্ধু বাড়িত্তে জনসুভায় রওনা দিলেন। রেসকোস মাঠে আগেত্তে লাখ লাখ মানুস ভক্তি ভরে তাগায় ছিলো ককন বঙ্গবন্ধু আসপেন সেই অপেক্কায়। মঞ্চোয় সকালেত্তেই গণসঙ্গীত চলতিলো। বঙ্গবন্ধু সেই মঞ্চে একাই ভাষণ দিলেন। দুপার ২ ডো ৪৫ মিনিটি তিনি বক্তিমা শুরু করিলেন। টানা ১৮ মিনিটির এই বক্তিমা শেষ হইলো দুপার ৩ ডে ৩ মিনিটি। পাকিস্তান সরকার জ্বালাময়ী এই ভাষনডা ভয়তে রেডুয়া আর টিবিতে পোচার করিল না। সরকারের বারন সত্তে¡ও তকনকার পাকিস্তান আন্তরজাতিক চল”িত্তর কর্পোরেশনের চিয়ারমেন এ এইচ এম সালাহউদ্দিন চাচা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক একইসঙ্গে তকনকার ফরিদপুর জিলার পাঁচ আসনে সংসদ সদস্য এম আবুল খায়ের চাচা ভাষনডা রিকাড করার সিদ্দান্ত নিলেন। তাগের এ কাজে সাহায্য করিলেন তকনকার পাকিস্তান সরকারের চল”িত্তর বিভাগের চল”িত্তর পরিচালক ও অভিনিতা আবুল খায়ের চাচা যিনি ভাষনডা ভিডিও করিলেন। তাগের সাতে তকনকার তত্য মুন্ত্রনালয়ের  পোযুক্তিবিদ এইচ এন খুনকার চাচা ভাষনের অডিও রিকাড করেন। স্যানতে ভাষনডা সব জাগায় ছড়ায় দিয়া হয়। ২০১৭ সালের অক্টোবরের শেষে ইউনেস্কো ৭ই মার্চের ভাষনডারে বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। যে ভাষনডা যতবার শুনি ততবারই গার লোম দাড়ায় যায়। যতদিন বাংলাদেশ থাকপে ততদিন থাকপেন বঙ্গবন্ধু আর তার এই ঐতিহাসিক ভাষন।
ইতি
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮৮৭১০০৩





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft