শিরোনাম: নিষিদ্ধ পোল্ট্রি লিটার সরবরাহের দায়ে ২০ হাজার টাকা জরিমানা       মণিরামপুরে বাল্যবিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও       স্বপ্ন দেখোর মাদকবিরোধী প্রীতি ফুটবল ম্যাচ        ডুমুরিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় সাবেক স্কুলশিক্ষক নিহত       মহেশপুরে ভারতীয় মদ ও ফেনসিডিলসহ ব্যবসায়ী আটক       পর্বতারোহী রেশমার দাফন নড়াইলে সম্পন্ন       মা-বাবাসহ মাশরাফির পরিবারের চার সদস্য করোনায় আক্রান্ত       বাঁকড়ায় ভারতীয় নাগরিকের আত্মহত্যা       করোনায় যশোরে আরও একজনের মৃত্যু       যশোরে বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিন উদযাপন       
ডাক্তারসহ তিনজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট
কাগজ সংবাদ
Published : Tuesday, 7 July, 2020 at 10:43 PM
ডাক্তারসহ তিনজনের বিরুদ্ধে চার্জশিটযশোর শহরের জেল রোডের বন্ধন হাসপাতালে সিজারিয়ান রোগী মৃত্যুর ঘটনায় দায়ের করা মামলায় এক চিকিৎসকসহ তিনজনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ।
অভিযুক্তরা হলেন ওই হাসপাতালের চিকিৎসক পরিতোষ কুমার কুন্ডু, ম্যানেজার আকরামুজ্জামান ও কুইন্স হাসপাতালের নার্স সুরাইরা খাতুন। মামলার তদন্ত শেষে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা হায়াৎ মাহমুদ খান।
মামলার অভিযোগে জানা যায়, ২০১৯ সালের ১৪ নভেম্বর সন্ধ্যায় শহরের পালবাড়ি গাজীরঘাট থেকে ইসমাইল হোসেন তার সন্তানসম্ভবা স্ত্রী ময়না খাতুনকে কুইন্স হাসপাতালে নিয়ে আসেন। এসময় কুইন্স হাসপাতালের নার্স সুরাইয়া খাতুন তাদের ভালো চিকিৎসার কথা বলে সামনের বন্ধন হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন।
বন্ধন হাসপাতালে ময়না বেগমকে দু’টি পরীক্ষা করানো হয়। রিপোর্ট দেখে চিকিৎসক পরিতোষ জানান, বাচ্চা ভালো আছে। ম্যানেজার এসে জানান রাতে সিজার না করালে বাচ্চা মারা যাবে। ইসমাইল হোসেন সিজার করাতে রাজি না হলেও রাতে ম্যানেজার-চিকিৎসক জোর করে ময়না বেগমকে ওটিতে নিয়ে যান। রাত সাড়ে ১০টার দিকে সিজারের মাধ্যমে একটি কন্যা সন্তান জন্ম দেন তিনি। এসময় ওটি থেকে শিশুটিকে ইসমাইল হোসেনের হাতে দিয়ে চিকিৎসক বাইরে চলে যান।
পরে ময়না বেগমকে ওয়ার্ডে এনে রাখা হয়। এর কিছু সময় পর তার খিচুনি শুরু হয়। কিন্তু, হাসপাতাল থেকে অক্সিজেন দেয়া হয় ৪০ মিনিট পর। বন্ধনের নার্স দ্রæত এক ব্যাগ রক্ত এনে দিতে বলেন স্বজনদের। রক্ত নিয়ে তারা এসে দেখেন ময়না বেগম মারা গেছেন। তারপরও রক্ত দেয়া হয় তার শরীরে। এরমধ্যে চিকিৎসক এসে একটি অ্যাম্বুলেন্সে তুলে রোগীকে দ্রæত খুলনায় নিয়ে যেতে বলেন। এরমধ্যে স্বজনেরা উত্তেজিত হয়ে উঠলে চিকিৎসক ও ম্যানেজার স্বীকার করেন ময়না বেগম মারা গেছেন।
উপরিউক্ত ঘটনায় চিকিৎসকের অবহেলায় মৃত্যুর অভিযোগে কোতয়ালী থানায় মামলাটি দায়ের করেন ময়না বেগমের স্বামী ইসমাইল হোসেন।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft