শিরোনাম: যশোরে একদিনে ৭০ আক্রান্ত       সরকারি সহযোগিতা চান স্বেচ্ছাসেবী মেডিকেল টেকনোলজিস্টরা        যশোরে জেলা তথ্য অফিসের সড়ক প্রচার       দু’দশকেও বিচার হয়নি সাংবাদিক শামছুর রহমান হত্যাকাণ্ডের       যশোর কারাগারে করোনা আতঙ্ক       যশোরে অনলাইন পশুরহাটের উদ্বোধন       শাহীন চাকলাদারকে যশোর সংবাদপত্র পরিষদের শুভেচ্ছা       বেতন জায়েজ করতে অনলাইন ক্লাস !       যশোরে ডক্টর মুহম্মদ শহীদুল্লাহ্ এবং        বোরকা পরে ভারতে পালাচ্ছিল সাহেদ      
খুলনা বিভাগের শীর্ষে
করোনায় যশোরে সেঞ্চুরি
ফয়সল ইসলাম :
Published : Friday, 29 May, 2020 at 1:10 AM, Update: 29.05.2020 1:29:35 AM
করোনায় যশোরে সেঞ্চুরিঈদের ছুটির মধ্যেই যশোরে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১শ’তে ঠেঁকেছে। গত ২৭ মে জেলায় নতুন তিনজন আক্রান্ত হওয়ায় সেঞ্চুরি পূর্ণ হয়েছে। একই সাথে খুলনা বিভাগের দশ জেলার মধ্যে শীর্ষে অবস্থান করছে যশোর। আক্রান্তের সংখ্যা সর্বাধিক হলেও এ জেলায় করোনায় সংক্রমিত কোনো রোগীর মৃত্যু হয়নি। পক্ষান্তরে আক্রান্তদের মধ্যে ৬৬জন সুস্থ হয়েছেন। বাকি ৩৪জন আশংকামুক্ত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
যশোরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় গত ১২ এপ্রিল। এরপর ২২ এপ্রিল ৪জন, ২৩এপ্রিল একজন, ২৫ এপ্রিল ৮জন, ২৬ এপ্রিল ১৫জন, ২৭ এপ্রিল ৪জন, ২৮ এপ্রিল ১১জন, ২৯ এপ্রিল ১২জন, ৩০ এপ্রিল ১জন, ৫ মে ১২জন,  ৬ মে একজন, ৮ মে তিনজন, ১২ মে তিনজন, ১৩ মে একজন, ১৪ মে দু’জন, ১৬ মে ১১জন, ১৭ ও ১৮ মে একজন করে, ২০ মে তিনজন ২৩ মে একজন, ২৫ মে পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন একজন ও ২৭ মে ৩জন মোট ১০০জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি সার্ভেলেন্স মেডিকেল অফিসারসহ ১৭জন ডাক্তার, ৯জন নার্সসহ ৪৬জন স্বাস্থ্যসেবী রয়েছেন। এদের মধ্যে ১০জন ডাক্তার, ৪জন নার্স ও অন্যান্য ১৭জন স্বাস্থ্যসেবী  মোট ৩১জন করোনাকে জয় করে অর্থাৎ সুস্থ হয়ে আবারো রোগী সেবার কাজে নিয়োজিত হয়েছেন। এছাড়াও করোনায় আক্রান্ত ৩৫জন সাধারণ মানুষ পরিপূর্ণ সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবন যাপন করছেন। জেলায় ১০০ আক্রান্তের মধ্যে ৬৬জন সুস্থ হয়েছেন। করোনায় আক্রান্তদের জন্যে নির্ধারিত বক্ষ্মব্যাধি হাসপাতালে চারজন, মণিরাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দু’জন ও অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একজন রোগী প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বাকি ২৭জন হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন থেকে করোনা জয়ের লড়াই করছেন। কারো অবস্থায় গুরুতর বা আশংকাজনক নয় বলে নিশ্চিত করেছেন সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীন।
সিভিল সার্জন জানিয়েছেন, গত ১০ মার্চ থেকে ২৮ মে পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত সন্দেহে এক হাজার ৯শ’ ১৪জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্যে পাঠানো হয়েছে। নমুনা গুলো ঢাকার আইইডিসিআর, খুলনা মেডিকেল কলেজ এবং যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। এরমধ্যে এক হাজার ৫শ’ ৭১টির ফলাফলের মধ্যে একশ’জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে বলে নিশ্চিত করা হয়েছে।
এদিকে, বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার রুহুল কুদ্দুস লিখিত  তথ্য দিয়েছেন ২ মে পর্যন্ত খুলনা বিভাগে ৪শ’ ৫৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ২৭ মে সকাল ৮টা থেকে ২৮ মে সকাল আট পর্যন্ত বিভাগে আক্রান্ত হয়েছেন ১৫জন। আক্রান্তদের মধ্যে খুলনায় পাঁচজন, সাতক্ষীরায় চারজন, মাগুরায় একজন, কুষ্টিয়ায় চারজন ও মেহেরপুরের একজন রয়েছেন। তবে নতুন কেউ আক্রান্ত না হলে বিভাগের মধ্যে শীর্ষে রয়েছে যশোর জেলায় ১০০জন। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে চুয়াডাঙ্গায় ৮৫জন। এরপর যথাক্রমে খুলনার ৬৪, ঝিনাইদহের ৪৭ , সাতক্ষীরার ৪০, কুষ্টিয়ার ৩৯,  বাগেরহাটের ২৫, নড়াইলের ২২, মাগুরার ২১, ও মেহেরপুরে সর্বনিম্ন ১২জন।
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মধ্যে ইতিমধ্যে খুলনা বিভাগে সুস্থ হয়েছেন ১শ’ ৮৫জন। এদিক থেকেও এগিয়ে যশোর। সুস্থ হয়ে ওঠাদের মধ্যে যশোরের রয়েছেন ৬৬, ঝিনাইদহের ২৩, চুয়াডাঙ্গার ২৪, কুষ্টিয়ার ১৪, মাগুরার ১৮, খুলনার ১৭, বাগেরহাট ও মেহেরপুরের পাঁচজন করে, নড়াইলের দুই, এবং সাতক্ষীরার একজন রয়েছেন।
সহকারী কমিশনার রুহুল কুদ্দুস আরও জানিয়েছেন, দশ জেলায় করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে আটজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে সর্বাধিক খুলনায় তিনজন। এছাড়াও বাগেরহাটের দু’জন এবং নড়াইল, চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরের একজন করে মারা গেছেন।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft