শিরোনাম: দলের ভেতরে বর্ণচোরাদের ছাড় দেয়া হবে না : ওবায়দুল কাদের       চলতি মাসেই অনলাইন নিউজপোর্টাল নিবন্ধন : তথ্যমন্ত্রী       ভার্চুয়াল বিচার ব্যবস্থা এগিয়ে নিতে হবে : প্রধান বিচারপতি       সাহেদ-সাবরিনার পেছনে কারা, প্রশ্ন রিজভীর       স্বাস্থ্যমন্ত্রীর লজ্জা হওয়া উচিত : সাইফুল হক       রাজশাহীর পুঠিয়ায় সরকারি পুকুরের রাজাকারের নাতি মাছচাষ করার অভিযোগ       চিতলমারীতে নির্মান কাজের বিল পেতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন       মণিরামপুরে এক দম্পতিসহ ৭ জনের করোনা শনাক্ত       মহেশপুরে মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তাসহ ২জন করোনায় আক্রান্ত       বেনাপোল বন্দরে শুল্ক ফাঁকি, কাস্টমসের তিন কর্মকর্তা বরখাস্ত      
লাদাখে বাড়ছে উত্তেজনা, মুখোমুখি ভারত-চীনের সেনারা
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Tuesday, 26 May, 2020 at 12:33 PM
লাদাখে বাড়ছে উত্তেজনা, মুখোমুখি ভারত-চীনের সেনারা লাদাখে ক্রমশই বাড়ছে উত্তেজনা। পূর্ব লাদাখে ভারত-চীন প্রকৃত সীমান্তরেখার বেশ কিছু অঞ্চলে ভারত ও চীনের সেনাবাহিন‌ী এখন মুখোমুখি অবস্থানে।২০১৭ সালে ডোকলামের পর সীমান্তে দু'দেশের সবচেয়ে বড় সেনা সমাবেশের ইঙ্গিত মিলেছে।
ভারতের শীর্ষস্থানীয় সেনাসূত্রে জানা যাচ্ছে, ভারত প্যানগং সো ও গালওয়ান উপত্যকায় শক্তি বাড়িয়েছে ভারতীয় সেনা। ওই দুই অঞ্চলে ২ হাজার থেকে ২ হাজার ৫০০ চীনের সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক শীর্ষ সেনা কর্মকর্তা জানাচ্ছেন, ভারতীয় সেনার শক্তি এই অঞ্চলে যথেষ্ট বেশি রয়েছে।
ভারত-চীন সীমান্তের বহু উল্লেখযোগ্য স্থানে সীমান্ত পেরনোর অভিযোগ রয়েছেন চীনা সেনার বিরুদ্ধে। যা উদ্বেগ বাড়িয়েছে ভারতীয় সেনার। এই পরিস্থিতিতে অবসরপ্রাপ্ত নর্দান আর্মি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল ডিএস হুডা জানাচ্ছেন, ‘‘বিষয়টা গুরুতর। এটা কোনও সাধারণ সীমা উল্লঙ্ঘন নয়। তাঁর মতে গালওয়ানের মতো এলাকায় সীমান্ত অতিক্রম উদ্বেগের বিষয়। কেননা ওই সীমান্তরেখায় কোনও সমস্যা নেই।
কৌশলগত বিষয়ের বিশেষজ্ঞ রাষ্ট্রদূত অশোক কে কান্ঠা লেফটেন্যান্ট জেনারেল ডিএস হুডার বক্তব্রে সঙ্গে সহমত পোষণ করে জানিয়েছেন, পরিস্থিতি যথেষ্ট অস্বস্তির। বেশ কিছু জায়গায় চীনা সেনা সীমান্তরেখা উল্লঙ্ঘন করেছে। যা উদ্বেগ বাড়াচ্ছে। তাঁর দাবি, এটা রুটিনমাফিক সীমান্ত লঙ্ঘন নয়।
গত দু'সপ্তাহে গালওয়ান উপত্যকায় শক্তি বাড়িয়েছে চীনা সেনা। ১০০টি শিবির তৈরি করেছে তারা। বাঙ্কার নির্মাণের ভারি উপকরণও মজুত করা হয়েছে সেখানে।
এদিকে ভারতীয় সেনা ‘আক্রমণাত্মক টহলদারি' শুরু করেছে ডেমচক ও দৌলত বাগ ওল্ডি সহ বহু স্থানে।
৫ মে ২৫০ চীনা সেনা ও ভারতীয় সেনার মধ্যে সংঘর্ষের পর থেকেই পূর্ব লাদাখের পরিস্থিতি ক্রমেই খারাপ হয়েছে। ওইদিন ভারতীয় ও চীনা সেনা সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছিল লোহার রড, লাঠি নিয়ে। এমনকি পাথর ছোড়াও হয়েছিল। জখম হয়েছিলেন উভয়পক্ষের সেনারাই। ২০১৭ সালে ডোকলামে দু'দেশের সেনার মধ্যে উত্তেজনা তৈরি হয়েছিল। সূত্র: এনডিটিভি।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft