শিরোনাম: মৃত্যুর মিছিল বাড়ছেই       স্বাস্থ্যবিধি মানায় শৈথিল্য যশোরের অধিকাংশ ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে       যশোরাঞ্চলে নামছে অর্ধেক গাড়ি       যশোরে স্বাস্থ্যসেবীসহ নতুন শনাক্ত চারজন       লিবিয়ায় পাচারকারীদের গুলিতে নিহত রাকিবুলের পরিবারে শোকের মাতম       সন্ত্রাসী হামলায় কালিয়া এখন আতঙ্কিত জনপদ       করোনা সঙ্কটে যশোরে শিক্ষার্থীদের মেসভাড়া কমানোর সিদ্ধান্ত পরিবর্তন       স্বাস্থ্যবিধি মানায় শৈথিল্য যশোরের অধিকাংশ ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে       চাল ছাড়া প্রায় সব পণ্যের দাম কমছে        যশোরে যুবক অপহরণের অভিযোগে বিক্ষোভ      
করোনা আতঙ্কে মণিরামপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেই রোগীর চাপ
তাজাম্মূল হুসাইন, মণিরামপুর (যশোর) পৌর প্রতিনিধি :
Published : Wednesday, 1 April, 2020 at 1:00 AM
করোনা আতঙ্কে  মণিরামপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেই রোগীর চাপ করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীর চাপ কমেছে। দিনদিন রোগী বিমুখ হয়ে যাচ্ছে ৫০ শয্যা এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি বিমুখ রয়েছেন রোগীরা। জটিল কোন সমস্যা ছাড়া এখানে চিকিৎসা নিতে আসছেন না কেউই। অথচ কয়েকদিন আগেও হাসপাতালের মেঝেতে রোগী পড়ে থাকতো , অথচ আজ শয্যাগুলো খালি পড়ে আছে। একই ভাবে বহিঃবিভাগেও আগের মত নেই রোগীর লম্বা লাইন। ফাঁকা রয়েছে জরুরি বিভাগও। সেখানে প্রতিদিন নিরাপদ দুরত্ব বজায় রেখে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছে কর্তৃপক্ষ।
মঙ্গলবার সরেজমিন হাসপাতালে গিয়ে দেখা গেছে, বহিঃবিভাগ রোগীশূণ্য । আর নারী ও শিশু ওয়ার্ডে একপাশের বেডগুলো খালি পড়ে আছে। চিকিৎসকদের কক্ষে ঝুলছে তালা। বহিঃবিভাগে মাত্র ১শ’৩৭ জন রোগী চিকিৎসা সেবা নিয়েছেন। যা কয়েকদিন আগেও ছয়শ’তে ছুই ছুই থাকতো। এছাড়া নারী, শিশু ও পুরুষ ওয়ার্ডে ভর্তি রোগী পাওয়া গেছে মাত্র ১৪ জন। আর জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিয়েছেন মাত্র আট জন রোগী।
হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স আসমা বিশ্বাস বলেন, একসময় তাদের ভর্তি রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খেতে হত। অথচ এখন  রোগী নেই বললেই চলে। গত এক সপ্তাহের চিত্র ঠিক একই রকম। মারামারি ও বিষ খাওয়া রোগী ছাড়া হাসপাতালে তেমন কেউ ভর্তি হচ্ছেন না।
মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. শুভ্রা রানী দেবনাথ বলেন, করোনার কারণে ওপরের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সকাল নয়টা থেকে ১২টা পর্যন্ত বহিঃবিভাগ খোলা থাকছে। চিকিৎসকদের সুরক্ষার জন্য পাঁচজন করে ডাক্তার আউটডোরে রোগী দেখছেন। কয়েকদিন আগেও হাসপাতালের প্রতিটি বিভাগ রোগীতে পরিপূর্ণ থাকত। কিন্তু এখন করোনার ভীতিতে মানুষ বাইরে বের হচ্ছেন না। খুব জটিল সমস্যা না হলে কেউ হাসপাতালে আসছেন না





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft