শিরোনাম: কুষ্টিয়ায় আরও ৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত       ব্রাজিলে ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ২৯ হাজার করোনা শনাক্ত       যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে ১০৮১ মৃত্যু       রাজশাহী জেলা রেজিস্ট্রার করোনায় পজিটিভ       ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ মোকাবেলায় বাংলাদেশ কতটা প্রস্তুত?       ঝড়ে সুন্দরবনের চরে আটকে গেল পাথর বোঝাই জাহাজ       দেশের ১১ অঞ্চলে ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা       সাধারণ ছুটি পুনরায় বাড়ছে !       ঝিনাইদহে বিক্রয় নিষিদ্ধ ঔষধ জব্দ, ব্যবসায়ীকে জরিমানা       বনমেরু রোগে আক্রান্ত রোজিনা বাচতে চায়      
করোনা : আমরা করবো জয় একদিন
মামুন শাহরিয়ার
Published : Monday, 30 March, 2020 at 6:06 PM
করোনা : আমরা করবো জয় একদিনপ্রতিনিয়ত বদলে যাচ্ছে করোনা বিষয়ক ধারণা। এর গতি প্রকৃতি সুনির্ষ্টকরণে বিশেষজ্ঞরা্ও হিমশিম খাচ্ছেন । এই ভাইরাস তার বৈশিষ্ট্য বার বার পরিবর্তনে সক্ষম । প্রথমে জানা গেল হাচি কাশির সাথে এটি তিন ফুট বা এক মিটার দূরত্ব পর্যন্ত বাতাসে ভেসে যেতে পারে। পরে জানা গেলো ছয় ফুট পর্যন্ত, কখনও পনের ফুট; এরপর এখন শুনছি বাতাসে অনেক দূর পর্যন্ত যেতে পারে। চিনে নাকি দ্বিতীয় বারও কেউ কেউ আক্রান্ত হয়েছেন বলে শুনা যাচ্ছে। ইটালিতে শুধু বৃদ্ধ নয়, কম বয়সীরাও আক্রান্ত হচ্ছেন।  মাটিতে, ধাতব পদার্থে বা কাগজে কতক্ষণ জীবাণুটি জীবিত থাকতে পারে তা নিয়ে তথ্যে পরিবর্তন হচ্ছে বার বার । ব্রিটিশ রাজপরিবারের প্রিন্স চার্লস ( যিনি আক্রান্ত হয়েছেন ) থেকে শুরু করে বাংলাদেশের দরিদ্রতম ব্যক্তিটি পর্যন্ত কেউেই করোনা ঝুঁকির আওতামুক্ত নয় । তবে সকলেই একটি কথা বলছেন, তা হলো যাদের শরীরে Strong immunity রয়েছে, তারা সহজেই জীবাণুকে প্রতিহত করে সুস্থ থাকতে পারবেন। এখন করোনা ভাইরাস যেভাবে ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে, সেক্ষেত্রে আমাদের শরীরের immunity কিভাবে আরও বাড়িয়ে নেয়া যায় অর্থাৎ শরীরের রোগ জীবাণুকে প্রতিহত করার ক্ষমতা বৃদ্ধি করা যায় সে বিষয়টিও গুরুত্ব দেয়া প্রয়োজন । অনেক গবেষক বলছেন করোনা ভাইরাস শরীরে থাকলেও অনেকের মাঝে সেই লক্ষণ প্রকাশ পাওয়ার আগেই শক্তিশালী প্রতিরোধ ক্ষমতার কারণে জীবাণুকে প্রতিহত করতে পারেন । ফলে তিনি জানতেই পারবেন না তার শরীরে করোনা ছিল। কিন্তু তার সংস্পর্শে আসা মানুষটির দূর্বল প্রতিরোধ ক্ষমতার কারণে সহজেই আক্রান্ত হতে পারেন । আমাদের শরীরে immunity develop করার জন্য সাধারণ কিছু খাদ্যাভ্যাস ও আচরণবিধি রপ্ত করা যেতে পারে ।
১. খাদ্যদ্রব্যে হলুদ ও আদার ব্যবহার বাড়িয়ে দেয়া । যেমন আটার সাথে কিছুটা হলুদের গুড়া মিশিয়ে রুটি বানানো বা শরবত ও পানীয় জাতীয় খাবারে সামান্য হলুদ মিশিয়ে খাওয়ার অভ্যাস করুন। হলুদ ও আদা প্রাকৃতিক ভেষজ, যা এন্টিবায়োটিক গুণাবলীসম্পন্ন। কাঁচা আদার রস অন্ত্রের সুরক্ষায় অর্থাৎ অন্ত্রের অণুজীব নাশে কার্যকর একইসাথে অম্লত্বও দূর করে।
২. প্রতিদিন নিয়মিত পানির সাথে মধু খাওয়ার অভ্যাস করুন।
৩। নিম পাতার রস নিংড়ে পানিতে মিশিয়ে বাচ্চাদের শরীর মুছে দেয়া যেতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে নিমে Antiviral, Anti fungal ও Anti bacterial গুণাবলী রয়েছে।
৪। আমলকি, মাল্টা, লেবুর শরবত প্রতিনিয়ত খাবেন: Vitamin C সমৃদ্ধ এসব ফলমূলে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান রয়েছে, যা শরীর সতেজ রাখতে খুবই প্রয়োজন।
৫।ফ্যাট পরিহার করে উচ্চ প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার (মাছ,মাংস, ডিম,কয়েক প্রকারের ডাল মিশিয়ে রান্না ) ভালোভাবে সিদ্ধ করে খাবেন,যা শরীরে শক্তি যোগাবে।
৬। হ্যান্ড স্যানিটাইজারের থেকেও সাধারণ সাবান বেশি কার্যকর। অতি মাত্রায় সেনিটাইজারে হাতের ত্বকে ফোস্কাসহ শিশুদের জন্য ক্ষতির কারন রয়েছে। উচ্চ মাত্রার অ্যালকোহল ত্বকের উপকারি  অপকারি সব অণুজিব মেরে ফেলে। তাই সীমিত আকারে এগুলো ব্যবহার করা যেতে পারে। সাবান সহজপ্রাপ্য হলে সেটাই ব্যবহার করা উত্তম।
৭। ব্লিচিং সলুশন বাড়িতে তৈরি করে ঘর, বারান্দা ও প্রবেশ দ্বারের উপযুক্ত স্থানে মাঝে মাঝে স্প্রে করা ভালো। তবে স্প্রে করার পর হাত মুখ সাবান দিয়ে ভালো ভাবে ধৌত করবেন।
৮। নিয়মিত শরীরচর্চা করুন এবং শ্বাস ব্যায়াম করুন। এতে আপনার ফুসফুসের গ্রন্থিগুলো  পরিচ্ছন্ন থাকবে এবং সংক্রমণ প্রবণতা হ্রাস পাবে।
৯। কাজের লোককে পারলে দশ দিনের জন্য ছুটি দিয়ে দিন।
১০। বাহির থেকে এসে পরিহিত কাপড় প্রথমে রৌদ্রে নেড়ে দিবেন কয়েক ঘন্টা। এতে জীবাণু মরে যাবে।
১১। বার বার উষ্ণ গরম পানি পান করুন। মাঝে মাঝে স্যালাইনও পান করুন।
১২। মাত্র দশটি দিন নিজেকে যথাসম্ভব গৃহবন্দী করে রাখুন।
এই দশদিনের নিয়ন্ত্রিত জীবন-যাপনই করোনাকে প্রতিহত করার একমাত্র ও কার্যকর পথ বলে মনে করুন। উন্নত বিশ্ব যা পারেনি, আমরা কি পারিনা দশদিনের জন্য ঐক্যবদ্ধভাবে এই সংগ্রামে অংশ নিয়ে বিশ্বকে দেখিয়ে দিতে, আমরাও পারি, যেমন আগেও পেরেছি। ২০২০ এর ২৬ শে মার্চ শুরু হওয়া এই যুদ্ধে আমরা জযী হবই ইনশাল্লাহ।
 লেখক - সহকারী অধ্যাপক, রসায়ন, বিসিএস ( সাধারণ শিক্ষা)




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft