শিরোনাম: নির্বাচন না হওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন শ’শ’ সদস্য        কুকীর্তির সংবাদ আড়াল করতে আল-আমিন পার্ক ও পূরবী সিনেমা হল মালিকের কাজ       পেট্রাপোলে প্রবেশের অপেক্ষায় থাকা ট্রাকের অর্ধেক পিঁয়াজ পঁচে গেছে       চারদিন ধরে নিখোঁজ ঝিনাইদহের কলেজছাত্র সুজন       কয়রায় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন বিষয়ক অনলাইন প্রশিক্ষন কর্মশালা       রামপালে বন ও পরিবেশ উপমন্ত্রীর মতবিনিময় সভা       পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে জিম্বাবুয়ে       ভারত সীমান্তে যেতে হচ্ছে, ‘প্রাণভয়ে’ হাউহাউ করে কাঁদছে চিনা সেনা!       রাণীনগরে পুলিশ পাহারায় বিএনপি’র বর্ধিত সভা        ‘পদ্মাসেতুর সংযুক্ত রেললাইন খুলে দেয়া হবে ২০২১ সালে ’      
এনআরসির বিরুদ্ধে জোট বাঁধার ডাক দিলেন মমতা
কাগজ ডেস্ক :
Published : Tuesday, 10 December, 2019 at 7:51 PM
এনআরসির বিরুদ্ধে জোট বাঁধার ডাক দিলেন মমতাভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ যখন লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পেশ করছেন, ঠিক সেই সময় এনআরসির বিরুদ্ধে আবারও সরব হলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
খড়্গপুরের সভা থেকে এনআরসির বিরুদ্ধে জোট বাঁধার আহ্বান জানালেন তিনি। রেলশহরে বিভিন্ন ভাষাভাষী মানুষকে ‘ভারতমাতার সন্তান’ বলে উল্লেখ করে আহ্বান জানালেন, ‘আসুন জোট বাঁধি। এক জনকেও দেশ থেকে তাড়ানো চলবে না। নো এনআরসি, নো ডিভাইড অ্যান্ড রুল। মনে রাখবেন, দেশের থেকে বড় কিছুই নয়।’
এ দিন মমতা খড়্গপুরে এসেছিলেন বিধানসভা উপনির্বাচনে জয়ের পরে শহরবাসীকে ধন্যবাদ জানাতে। রাবণপোড়া ময়দানে ছিল প্রশাসনিক পরিষেবা প্রদানের জনসভার আয়োজন। শহরবাসীকে ধন্যবাদ জানানোর পর আগাগোড়া মমতার বক্তব্য জুড়ে ছিল জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) ও নাগরিকত্ব বিল (সিএবি)-এর বিরোধিতা।
মমতা বলেন, ‘সিএবি আর এনআরসি কয়েনের এপিঠ-ওপিঠ। আমরা সবাই নাগরিক, ভোট দিই, সবার রেশন কার্ড রয়েছে। কারও স্কুল শংসাপত্র, কাজ করার শংসাপত্র, জমির পাট্টা কিছু না কিছু রয়েছে। এর পরে নাগরিকত্ব নিয়ে কী প্রশ্ন রয়েছে!’
নাগরিকত্ব বিলের প্রেক্ষিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেন, ‘ভয় পাবেন না। ফেট্টি পড়ে যারা এসে বলবে দেশকে ভাগ করতে, তাদের বলুন, বাংলার সংস্কৃতি ফেট্টিবাজদের জায়গা নয়। আমরা থাকাকালীন কারও ক্ষমতা নেই, আপনাদের ওপর জোর করে কিছু চাপিয়ে দেবে।’
কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে নিশানা করে মুখ্যমন্ত্রী আরও যোগ করেন, ‘আমরা ৭০ বছর, ১০০ বছর ধরে এখানে রয়েছি। দেশের স্বাধীনতার সময় থেকে রয়েছি। আজ আপনারা ঠিক করবেন কে নাগরিকত্ব পাবে, কে পাবে না!’
নাগরিকত্ব বিল ও জনগণনা যে এক নয়, তা-ও বুঝিয়ে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর আবেদন, ‘১০ বছর অন্তর যে সমীক্ষা হয়, তাতে নামটা লিখিয়ে নেবেন। আর রেশন কার্ডের একটি কপি দিয়ে দেবেন।’





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


আরও খবর
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft