শিরোনাম: কলেজে অতিরিক্ত ভর্তি ফি আদায়        যশোরে সেবিকা, স্বাস্থ্যকর্মীসহ আরও ২০ জন করোনায় আক্রান্ত        ফড়িয়া থেকে রক্ষা পাবে কৃষক       অ্যাম্বুলেন্স দিচ্ছেন মেয়র, ৪৫ লাখ টাকা দেনা যমেক হাসপাতাল        সাংবাদিকদের নিয়ে এমআরডিআইয়ের প্রশিক্ষণ       আমরা মানুষের জন্য রাজনীতি করি : রেলপথমন্ত্রী       একাদশে অনলাইনে ক্লাস অক্টোবরে       এবারের আইপিএলে কমবে চার-ছক্কার প্রদর্শনী!       করোনা পরিস্থিতিতে এবছর ‘শহরের ঠাকুর দেখুন হেঁটে নয় নেটে’       যুক্তরাষ্ট্রে পার্টিতে গোলাগুলি, নিহত ২      
আমরা যাত্রীদের পরিপূর্ণ সেবা দিতে পারছি না : রেলমন্ত্রী
কাগজ ডেস্ক :
Published : Thursday, 5 December, 2019 at 8:05 PM
আমরা যাত্রীদের পরিপূর্ণ সেবা দিতে পারছি না : রেলমন্ত্রীরেলের সেবায় ঘাটতির কথা স্বীকার করে রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, এটা সত্য, আমরা যাত্রীদের পরিপূর্ণ সেবা দিতে পারছি না। শিডিউল বিপর্যয় ও টিকিট কালোবাজারি পুরোপুরি বন্ধ করা সম্ভব হয়নি। ট্রেন দুর্ঘটনারও সম্মুখীন হচ্ছে। এসব কারণে পরিপূর্ণ সেবা কিছুটা ব্যাহত হচ্ছে।
বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টায় রেলওয়ে সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে কমলাপুর রেলস্টেশন পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।
রেলমন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষের চাহিদা অনুযায়ী রেলের সেবা যেন উত্তরোত্তর বাড়াতে পারি, সেজন্য রেলসেবা সপ্তাহ ঘোষণা করা হয়েছে। এই সেবা সপ্তাহের অন্যতম উদ্দেশ্য, যাত্রীদের সচেতন করা।
নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, বিভিন্ন দেশের রেলসেবার মানকে যখন আমাদের দেশের রেলসেবার মানের সঙ্গে তুলনা করি, তখন বুঝতে পারি আমরা কতটা দুর্বল অবস্থায় আছি। এ অবস্থা কাটিয়ে রেলকে একটি ভারসাম্যপূর্ণ যোগাযোগ ব্যবস্থা হিসেবে গড়ে তোলা হবে।
তিনি বলেন, অধিকাংশ রুটেই সিঙ্গেল লাইনে ট্রেন চলাচল করছে। শুধু চট্রগ্রাম রুটের অধিকাংশই ডাবল লাইন হয়ে গেছে। ডাবল লাইনের আওতায় আসলে শিডিউল বিপর্যয়সহ সব ধরনের সমস্যা ঠিক হয়ে যাবে।
মন্ত্রী বলেন, এই সমস্যা সমাধানে আমরা বেশ কিছু প্রকল্প নিয়েছি। তাছাড়া উত্তরবঙ্গে যেখানে ২৩টি ট্রেন যাওয়ার কথা সিঙ্গেল লাইনে, সেখানে ৪২টি যাচ্ছে। ফলে ট্রাফিক সিগন্যালে পড়তে হচ্ছে।
যমুনা নদীর ওপর বঙ্গবন্ধু রেলসেতু প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যমুনা নদীর ওপর আলাদা ডুয়েলগেজ ডাবল লাইনে বঙ্গবন্ধু রেলসেতু করা হবে। মার্চ মাসে এই কাজের উদ্বোধন হতে পারে।
নতুন লোকোমোটিভের চালান কবে আসবে- এমন প্রশ্নের জবাবে রেলমন্ত্রী বলেন, কোরিয়া থেকে ২০২০ সালের জুলাই মাস নাগাদ ১০টি লোকোমোটিভ আসবে। এছাড়া ইউএসএ (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে আসবে ৪০টি। লোকোমোটিভের অর্ডার দিলে সেটা ডেলিভারি দিতে তিন থেকে চার বছর সময় লাগে। এজন্য এগুলো আসতে দেরি হচ্ছে।
এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোফাজ্জল হোসেন, রেলের মহাপরিচালক মো. শামসুজ্জামান প্রমুখ।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft