শিরোনাম: ‘নির্বাচন কমিশন জাতির মাথা হেট করে দিচ্ছে’       শিক্ষায় দুর্নীতি সহ্য করা হবে না : দুদক চেয়ারম্যান       জাপানি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠায় অবকাঠামোগত কাজ পেলো 'টোয়া'       দেশ কি স্বাধীন হয়েছে? প্রশ্ন জাফরুল্লাহ’র       থার্টি ফার্স্ট : বন্ধ থাকবে বার, উন্মুক্ত স্থানে অনুষ্ঠানে ‘না’       অযোধ্যা মামলার রায়ের রিভিউ আবেদন খারিজ       দেশের অষ্টম শক্তিশালী ব্র্যান্ড স্বপ্ন       কারফিউ ভেঙে বিক্ষোভ, পুলিশের গুলিতে নিহত ৩       এনআরসি নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছুই নেই : মোদী       দেশব্যাপী যুবদলের বিক্ষোভ শনিবার      
হেলমেট-নম্বরপ্লেট নেই, তারপরও চালককে কেক খাওয়াল পুলিশ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Friday, 22 November, 2019 at 7:59 PM
হেলমেট-নম্বরপ্লেট নেই, তারপরও চালককে কেক খাওয়াল পুলিশবাংলাদেশের নতুন সড়ক আইন অনুযায়ী সড়কে বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালালে বা প্রতিযোগিতা করার ফলে দুর্ঘটনা ঘটলে চালককে তিন বছরের কারাদণ্ড অথবা তিন লাখ টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করা হবে। সড়কে গাড়ি চালিয়ে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে কাউকে হত্যা করলে মৃত্যুদণ্ডও হতে পারে। বাংলাদেশে যখন সড়ক আইন নিয়ে এত কড়াকড়ি তখন থাইল্যান্ডে ঘটেছে এক অবাক করার ঘটনা। হেলমেট নেই, নম্বর প্লেট নেই। এমনকি গাড়িও চালাচ্ছিলেন নির্ধারিত গতির চেয়েও বেশি। অথচ পুলিশ তাকে শাস্তি না দিয়ে কি না কেক খাওয়াল!
হ্যাঁ, অবাক করার মতো হলেও থাইল্যান্ডে এমনটিই ঘটেছে। তবে এখানে পুলিশের এমন আচরণের অবশ্য ভিন্ন কারণও আছে।
একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, গতির ঊধ্র্বসীমার থেকেও বেশি জোরে বাইক চালানোর জন্য এক কিশোরকে ধরে থাইল্যান্ডের ট্রাফিক পুলিশ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পুলিশ তাকে শাস্তি না দিয়ে কেক খাইয়ে বিদায় জানায়। পরে তার সঙ্গে এমন আচরণের রহস্য জানিয়ে ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন আরেক পুলিশ কর্মকর্তা।
ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, ‘হেলমেট, নম্বরপ্লেট ছাড়াই ওই কিশোর বাইক চালাচ্ছিল। তার গতিও ছিল যথেষ্ট বেশি। পুলিশ তাকে আটকায়। পুলিশ ধরতেই হঠাৎ সে কান্নায় ভেঙে পড়ে। ওই পুলিশকর্মী প্রথমে ভেবেছিলেন, জরিমানার ভয়ে সে কান্নাকাটি শুরু করেছে। কিন্তু কিশোরের এমন কান্না দেখে সন্দেহ হয় তাদের। জিজ্ঞেস করায় সে এবার সব খুলে বলে। সে জানায়, সেদিন তার জন্মদিন, কিন্তু বাড়ির সবাই সেটা ভুলে গিয়েছে। সেই দুঃখে, রাগে সে জোরে বাইক চালাচ্ছিল।’
এরপর পুলিশ আর তাকে জরিমানা করেনি। উল্টে সামনের দোকান থেকে কেক-মোমবাতি কিনে এনে জন্মদিন পালন করেন পুলিশকর্মী। এসময় ফের কান্নায় ভেঙে পড়ে ওই কিশোর। কিন্তু এবার আর দুঃখে কান্না নয়, আনন্দে।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft