শিরোনাম: ব্র্যাক ব্যাংকের সঙ্গে এসএমই ফাউন্ডেশনের চুক্তি       দেশকে বাঁচাতে হলে দুর্বার গণআন্দোলন গড়তে হবে : ফখরুল       নির্ভয়ার ৪ ধর্ষকের ফাঁসির জন্য জল্লাদ চাইল তিহার জেল       দায়িত্ব নিয়ে কাজ করুন : তাজুল ইসলাম       মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি ফেরাতে উঠেপড়ে লেগেছে পাকিস্তান        সুস্থ পাটমন্ত্রী, হাসপাতাল ছাড়তে পারেন কাল       চীনের ভাইরাস ছড়িয়ে পড়বে ভারতেও       ৩০ জানুয়ারি থেকে ৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় অস্ত্র বহন নিষিদ্ধ       ভারত হিন্দুদের, দেশের ১৩০ কোটি মানুষই হিন্দু : আরএসএস       পানি রপ্তানি করবে বাংলাদেশ      
‘আমার সন্তানের অধিকার আমি ছাড়বো না’
কাগজ ডেস্ক :
Published : Friday, 22 November, 2019 at 8:34 PM
‘আমার সন্তানের অধিকার আমি ছাড়বো না’জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সন্তান এরিক এরশাদের অধিকার ছাড়বেন না বলে জানিয়েছেন বিদিশা এরশাদ।
শুক্রবার (২২ নভেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।
সংবাদ সম্মেলনে বিদিশা এরশাদ বলেন, আমি ঠিকানা বদল করার জন্য এখানে আসিনি। গতকাল দেখলাম জাতীয় পার্টির অনেকে আমি কেন এরিকের বাসায় এ বিষয়ে ইনকোয়ারি করার দাবি জানিয়েছেন। তাদের দাবি, আমি সশস্ত্র অবস্থায় এখানে এসেছি। কিন্তু আমি এখানে আমার বাচ্চার জন্য এসেছি। আমি আসার পর বাচ্চাটাকে জঘন্য অবস্থায় পেয়েছি।
তিনি আরও বলেন, আমি আমার সন্তানকে চাই। মা হিসেবে শুধু আমি আমার সন্তানকেই চাই। যতদিন ওর বাবা বেঁচে ছিলেন তখন আমার চিন্তা করতে হয়নি। কিন্তু তিনি মারা যাওয়ার পর অন্যরা আমার সঙ্গে তাকে যোগাযোগ করতে দেয়নি। ওর চাচা স্পেশালি। জিএম কাদের সাহেব মানা করে দিয়েছেন এরকি যেন আমার সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পারে।
বিদিশা এরশাদ এরিকের অধিকার না ছাড়ার কথা উল্লেখ করে বলেন, আমার কথা হচ্ছে, তারা এখন ব্যস্ত প্রেসিডেন্ট পার্কের ঠিকানা নিয়ে। আমার জীবনই তো শেষ। তারা আমার বাচ্চার যত্ন নেয়নি। আমার সন্তানের অধিকার আমি ছাড়বো না।
এদিকে সংবাদ সম্মেলনে এরকি এরশাদ বলেন, আমার চাচার একটু লোভ আছে আমাদের সম্পত্তির প্রতি। তারা অভিযোগ করেছেন মা এখানে সশস্ত্র অবস্থায় এসেছেন। কিন্তু এটা কোনোভাবেই সম্ভব নয়।
বেশ কয়েকদিন আগে বারিধার প্রেসিডেন্ট পার্কে এরিক এরশাদের বাসায় আসেন বিদিশা এরশাদ। আর সোমবার (১৮ নভেম্বর) এরিক নিজে গুলশান থানায় উপস্থিত হয়ে এ বিষয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।
গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান বলেন, অনেকে অভিযোগ করেছেন বিদিশা জোর করে বারিধারার বাসায় এসেছেন। কিন্তু এরিক নিজে জিডিতে উল্লেখ করেছেন, তিনি অসুস্থ। এ অবস্থায় বাসায় তার মা বিদিশাকে নিয়ে থাকতে চান।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft