শিরোনাম: দেশের জন্য বুদ্ধিজীবীরা জীবন দিয়ে গেছেন : শেখ হাসিনা       প্রথম দিনে কত আয় করলো ‘মার্দানি-২’?       বিরামপুরে পতিত জমিতে চাষীরা কলা চাষ করছেন        খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে টাঙ্গাইলে যুবদলের বিক্ষোভ       বাগেরহাটে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত        খুলনায় ফ্যাক্টরি সুপারভাইজারের ওপর হামলা, টাকা ছিনতাই       ক্ষুদ্র গাম্বিয়ার নজিরবিহীন ও সাহসী পদক্ষেপ       নওগাঁয় ফ্রি মোবাইল প্রতিবন্ধী মেডিকেল থেরাপি ক্যাম্প অনুষ্ঠিত       কলাপাড়ায় বাস কাউন্টার দখল নিয়ে সংঘর্ষে আহত ২       মাইনরিটি কমিশন গঠন করা হবে : গওহর রিজভী      
‘ট্রাক শ্রমিকরা রাস্তায় পিকেটিং, বাস চলতে দিচ্ছে না’
কাগজ ডেস্ক :
Published : Wednesday, 20 November, 2019 at 4:19 PM
‘ট্রাক শ্রমিকরা রাস্তায় পিকেটিং, বাস চলতে দিচ্ছে না’‘সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮’ এর প্রতিবাদে এবং আইনের কিছু বিধান সংশোধনের দাবিতে সারাদেশে অঘোষিত পরিবহন ধর্মঘট চলছে। যদিও পরিবহন মালিক সমিতি বলছে, তারা কোনো ধর্মঘট ডাকেনি।
বুধবার (২০ নভেম্বর) সকালে পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্যাহ গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা কোনো ধর্মঘট ডাকিনি। ট্রাক শ্রমিকরা রাস্তায় রাস্তায় পিকেটিং করছে, তারা বাস চলতে দিচ্ছে না।
এদিকে সারাদেশে চলমান পরিবহন ধর্মঘটের প্রভাব পড়েছে রাজধানীতেও। বুধবার সকাল থেকে রাজধানীর সড়কগুলোতে গণপরিবহনের তীব্র সংকট দেখা গেছে। বাস না পেয়ে দীর্ঘক্ষণ রাস্তায় অপেক্ষা করতে হচ্ছে যাত্রীদের। অনেকে পায়ে হেঁটেই গেছেন অফিসে। গণপরিবহনের সবচেয়ে বেশি ভোগান্তিতে পড়েছে স্কুলগামী শিক্ষার্থী ও নারীরা।
সরেজমিনে দেখা যায়, রাজধানীর সড়কগুলোতে গণপরিবহনের অপেক্ষায় যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়। অনেকে গাড়ি না পেয়ে মোটরসাইকেল ও প্রাইভেট কার দিয়ে রাইড শেয়ার করছেন।
রাজধানীতে ধর্মঘটের প্রভাব দেখা গেলেও ঢাকা মহানগর বাস মালিক সমিতি বলছে, তারা কোনো ধর্মঘট ডাকেনি।
সমিতির দফতর সম্পাদক গোলাম সামদানী গণমাধ্যমকে বলছেন, আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই আইন মেনে রাজপথে গাড়ি চালানোর চেষ্টা করছি। কিন্তু আমাদের এই চলাচলকে বাধা দিচ্ছে আন্দোলনকারী ট্রাক শ্রমিকরা। তারা ঢাকা থেকে গাজীপুর উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া বাসগুলোকে সাতরাস্তা, মহাখালী এবং নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া বাসগুলোকে শনির আখড়া এলাকাসহ বিভিন্ন পয়েন্টে বাধা দিচ্ছে।
ট্রাক শ্রমিকরা বাস থেকে যাত্রীদের নামিয়ে দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করে তিনি বলেন, আমরা ৯৯৯-এ কল দিয়ে পুলিশি সহায়তায় গাড়ি চালানোর চেষ্টা করছি। অনেক জায়গায় পুলিশ আমাদের সহায়তা করছে। কিন্তু কোথাও কোথাও বিপুল সংখ্যক শ্রমিকদের মাঝে গুটিকয়েক পুলিশ তেমন কিছু করতে পারছে না।
তিনি আরও বলেন, দেশে অরাজকতা সৃষ্টির জন্য ট্রাকচালকরা বিশৃঙ্খলা করছে। আমরা তাদেরকে সমর্থন করছি না বলে তারা আমাদের ওপর ক্ষিপ্ত হচ্ছে। কিন্তু বারবার বলেছি, আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। রাষ্ট্রের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। যদি আইন প্রণয়ন করে সেটি জনগণের স্বার্থে, আমাদের স্বার্থে। তাহলে তা আমরা মানব না কেন?
তবে বাস মালিক সমিতির অভিযোগ অস্বীকার করেছে বাংলাদেশ ট্রাক কাভার্ড ভ্যান মালিক সমিতি। তাদের মুখপাত্র স্বপন হোসাইন বলেন, বাস মালিক সমিতির অভিযোগ সত্য নয়। কোথাও বাধা দেওয়ার মত ঘটনা ঘটেনি।
তিনি বলেন, যাদের ইচ্ছা গাড়ি চালাবে, যাদের ইচ্ছা গাড়ি চালাবে না। এখানে আমাদের হস্তক্ষেপ করার কোনো সুযোগ নেই। আমি এরই মধ্যে শনির আখড়া ও যাত্রাবাড়ী এলাকায় ঘুরেছি। কোথাও এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটে নাই।
এ বিষয়ে মহাখালী ট্রাফিক পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি) সুবীর রঞ্জন দাস বলেন, মহাখালী এলাকায় বাস চলাচলে বাধা দেওয়ার মতো কোনো ঘটনা ঘটেনি। ঘটলেও ভোরের দিকে হয়তো। আমরা তো সকাল ছয়টা থেকে ডিউটি শুরু করেছিলাম। এরপর থেকে এ ধরনের কোনো ঘটনা আমরা এখনও শুনিনি।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft