শিরোনাম: সরকারি ব্যয়ের স্বচ্ছতা উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করে : স্পিকার       এক সপ্তাহের মধ্যে পেঁয়াজের দাম না কমলে হস্তক্ষেপ : হাইকোর্ট       বিএনপি-জামায়াত শিবির একই বৃন্তে গাঁথা : কাদের        প্রধানমন্ত্রী চাইলে সমাপনী পরীক্ষা অষ্টম শ্রেণিতে : প্রতিমন্ত্রী       এফআর টাওয়ারের মালিক ফারুকসহ তিনজন কারাগারে       আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে বাংলাদেশের উন্নয়ন হয় : এনামুল হক শামীম       ৬০ বছরই থাকছে মুক্তিযোদ্ধাদের অবসরের বয়স        আয়কর মেলায় বেড়েছে করদাতা নারীর সংখ্যা       পাবনায় দেশের প্রথম ভার্চুয়াল ফার্নিচার শোরুম হাতিলের উদ্যোগে ক্যাম্পিং অনুষ্ঠিত       রোগীদের পথ্যসরবরাহে অনিয়ম : রামেক হাসপাতালের নামে মামলা      
জঙ্গি হামলার শঙ্কা:
নজরদারিতে দিল্লির ৪ শতাধিক স্থাপনা
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Sunday, 20 October, 2019 at 8:19 PM
নজরদারিতে দিল্লির ৪ শতাধিক স্থাপনাপাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জয়েশ-ই-মুহাম্মদের সদস্যরা হামলা চালাতে পারে, এমন শঙ্কায় ভারতের রাজধানী দিল্লির চার শতাধিক গুরুত্বপূর্ণ ভবন, মার্কেট ও স্থাপনায় নিরাপত্তা জোরদারসহ ২৪ ঘণ্টার নজরদারি শুরু হয়েছে। দিওয়ালিকে সামনে রেখে এ হামলা হতে পারে বলে ধারণা করছে ভারতীয় পুলিশ।
পুলিশের বরাতে রোববার (২০ অক্টোবর) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, দিল্লির রোহিনি, উত্তর-পূর্ব, উত্তর-পশ্চিম, উত্তর, পূর্ব, সেন্ট্রাল, নয়া দিল্লি ও দ্বারকা- এই আট জেলা বেশি স্পর্শকাতর। ধারণা করা হচ্ছে, এসব জেলার অন্তত ৪২৫টি ভবনকে হামলার লক্ষ্যবস্তু করতে পারে জঙ্গিরা। এক নয়া দিল্লিতেই স্পর্শকাতর ভবন রয়েছে দুই শতাধিক। এসব ভবন বা স্থাপনায় অতিরিক্ত নিরাপত্তা জারি করা হয়েছে।
নয়া দিল্লিতে অবস্থিত প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, সেনা ভবন, পার্লামেন্ট হাউস, রাষ্ট্রপতি ভবনকে এমনিতেই স্পর্শকাতর জায়গা হিসেবে ধরা হয়। কিন্তু, এখন রাজ্যের বড় বড় সব মার্কেট, মসজিদ, পুলিশ সদর দপ্তর, রুজ অ্যাভিনিউ কোর্ট, লক্ষ্মী নগর, প্রীত বিহার, আনন্দ বিহারেরও মতো গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলোকেও হামলার সম্ভাব্য লক্ষ্যবস্তু বলে মনে করা হচ্ছে।
নয়া দিল্লির ডেপুটি পুলিশ কমিশনার ঈশ সিংহাল বলেন, আমাদের কাছে জঙ্গি হামলার বিষয়ে কোনো গোয়েন্দা তথ্য নেই। তারপরও দিওয়ালিকে সামনে রেখে শহরের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।
পুলিশের পক্ষ থেকে জঙ্গি হামলার হুমকির কথা সরাসরি স্বীকার না করলেও গত সপ্তাহ থেকেই শহরের সব থানার গেট বন্ধ রাখা হয়েছে। প্রতি মুহূর্তে গেটে থাকছেন অন্তত একজন নিরাপত্তারক্ষী। একমাত্র সরকারি গাড়িগুলোকেই ভেতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে। ডগ স্কোয়াড ও কুইক রেসপন্স টিমকেও ২৪ ঘণ্টা প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে।  





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft