শিরোনাম: সিন্ডিকেট করে চালের দাম বাড়ানোর সুযোগ নেই : খাদ্যমন্ত্রী       ফেসবুকে গুজব ছড়ালে জরিমানা : তথ্যমন্ত্রী       এস-৪০০ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ত্যাগ করলেই আলোচনা       বাঁচতে চাইলে আন্দোলনের প্রস্তুতি নিতে হবে : সালাম       সরকার চেয়ার-টেবিল-কাগজ সব খেয়ে ফেলছে : ফখরুল       দাবানলের কারণে অস্ট্রেলিয়ার ৩ অঙ্গরাজ্যে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি       পেঁয়াজ-লবণের মূল্যের ঊর্ধ্বগতি আওয়ামী অর্থনীতির প্রতিফলন       পরকীয়ার জেরে স্বামীকে খুন করে মাটিতে পুঁতে সেখানেই রান্নাবান্না       অমিত শাহর বিরুদ্ধে বিক্ষোভে নেমেছেন কাশ্মীরের ব্যবসায়ীরা        যুবলীগের নেতৃত্ব নির্বাচনে বয়সসীমা ৫৫ বছরই থাকছে : কাদের      
‘শেখ হাসিনার আমলে সব ধর্মের মানুষ নিরাপদ’
কাগজ ডেস্ক :
Published : Friday, 18 October, 2019 at 8:53 PM
‘শেখ হাসিনার আমলে সব ধর্মের মানুষ নিরাপদ’গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, সব ধর্ম, বর্ণ, গোত্র ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর অনন্য নিরাপত্তার উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন একমাত্র শেখ হাসিনা সরকার। তার আমলেই সব ধর্ম-বর্ণের মানুষ নিরাপদ।
শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর বনানীতে গারো সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী ওয়ানগালা উৎসব উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, একটি জাতি বিভিন্ন ধর্ম, বর্ণ ও সম্প্রদায়ের সমন্বয়ে বৃহত্তর পরিচয় বহন করে। সবার মত ও পথ নিয়েই বাংলাদেশ। দেশে সব ধর্মের মানুষ রাষ্ট্রের সব সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছে। আর সেটা একমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দ্বারাই সম্ভব হয়েছে।
তিনি বলেন, ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে গারো সম্প্রদায়ের মানুষ অংশগ্রহণ করে অনেক বড় ত্যাগ স্বীকার করেছিলেন। গারো সম্প্রদায়ের মানুষ স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের ধারণায় একাত্ব থেকে বাংলাদেশের সব স্বাধীকার আন্দোলনে ভূমিকা রেখেছেন।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চান এদেশের প্রত্যেকটি মানুষের সাংবিধানিক অধিকার নিশ্চিত করা। বর্তমান সরকার সে লক্ষ্যে কাজ করছে। একজন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর অধিকারে কেউ হস্তক্ষেপ করুক এটা সরকার চায় না। যদি কেউ করে তার বিরুদ্ধে সরকার কঠোর অবস্থান নেবে।
শ ম রেজাউল করিম বলেন, গারোদের কৃষ্টি-সংস্কৃতি হারিয়ে গেলে বাঙালি সংস্কৃতির ক্ষতি হবে। এজন্য সরকার মনে করে গারোদের সংস্কৃতি ও কৃষ্টিকে ধরে রাখতে হবে। এজন্য ভিন্ন একাডেমি হতে হবে। গবেষণা হতে হবে। গারোদের সন্তানরা আধুনিক লেখাপড়া শেখার পাশাপাশি তার অস্তিত্বের শেকড় যেনো ভুলে না যায়। শেখ হাসিনার উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় গারো সম্প্রদায়ের মানুষের সামনে এগিয়ে আসতে হবে। আমাদের প্রথম পরিচয় আমরা মানুষ। দ্বিতীয় পরিচয় আমরা বাঙালি। তারপরের পরিচয় আমরা কে কী ধর্মের। বাঙালিত্বকে সবাই মিলে ধারণ করতে হবে।
গারো ঐতিহ্যবাহী ওয়ানগালা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মুকুল চিছামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর  সদস্য অ্যাডভোকেট আব্দুল বাসেত মজুমদার, কারিতাস ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটের পরিচালক থিওফিল নওরেক, গারো ওয়ানগালার নকমা (সমাজ প্রধান) সাগর রিছিল প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাগরণী মাল্টিমিডিয়া লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক শুভ খান, ঢাকা ইউটিলিটি রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি  মশিউর রহমান খান প্রমুখ।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft