শিরোনাম: ডিএনসিসির ফুটপাত দখলমুক্ত অভিযান শুরু ২২ সেপ্টেম্বর       নতুন আইন আসছে খেলাপি ঋণ সমাধানে : অর্থমন্ত্রী       'আরো ভাগাভাগি হচ্ছে, গণমাধ্যমে আসছে না'       গণমানুষের সমর্থন নিয়ে উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়বে জাপা       ছাত্রলীগে ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব কোন আইনে, প্রশ্ন রিজভীর       দেশে অঘোষিত বাকশাল অলমোস্ট হয়ে গেছে : রব       এবার বাস চালাবেন সৌদি নারীরা       ছাত্রদলের কমিটির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন তারেক        সৌদির গোপন পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে উদ্বিগ্ন ইরান       স্বেচ্ছায় পদত্যাগ না করলে রাব্বানীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা শিগগিরই : ভিপি নুর      
এবার ঝাড়খন্ড থেকে ‘বাংলাদেশিদের’ তাড়ানোর ঘোষণা
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Wednesday, 11 September, 2019 at 9:47 PM
এবার ঝাড়খন্ড থেকে ‘বাংলাদেশিদের’ তাড়ানোর ঘোষণাএবার ভারতের ঝাড়খন্ড রাজ্য থেকে বাংলাদেশিদের তাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী রাঘুবর দাস। মঙ্গলবার এই রাজ্যের রাজধানী রাঁচিতে একটি মিডিয়া হাউজ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
রাঘুবর দাস বলেন, রাজ্যের বৈধ মুসলিম অধিবাসীদের কাছ থেকে সুযোগ সুবিধা কেড়ে নিচ্ছে বাংলাদেশের অবৈধ অভিবাসীরা। তাই তার রাজ্যেও নাগরিকপঞ্জি বা এনআরসি করার দাবি উত্থাপন করেছেন।
তিনি বলেন, ঝাড়খন্ডে এনআরসি বাস্তবায়ন করার জন্য আমিও আবেদন করেছি। পশ্চিমবঙ্গ সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশ ঘটছে বাংলাদেশের অবৈধ নাগরিকদের। তারা পশ্চিমবঙ্গ হয়ে ঝাড়খন্ডের সাঁওতাল অঞ্চলে গিয়ে আশ্রয় নিচ্ছে। আর এখন তারা পুরো রাজ্যে ছড়িয়ে পড়ছে। ঝাড়খন্ডের বৈধ মুসলিম নাগরিকদের অধিকারকে খেয়ে দিচ্ছে তারা।
তিনি আরো বলেন, এসব বাংলাদেশি অবৈধ অভিবাসীদের সনাক্ত করা হবে এবং বিজেপি সরকার তাদেরকে তাদের দেশে ফেরত পাঠাবে।
উল্লেখ্য, এই রাজ্যে বসবাস প্রায় ৩ কোটি ২০ লাখ মানুষের। এর মধ্যে প্রায় ৭০ লাখ তফসিলি উপজাতি। এই রাজ্যটি বিহার থেকে আলাদা করে আনা হয়েছে। এর পূর্বে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গের সীমান্ত। ঝাড়খন্ড রাজ্যে বসবাসকারীদের মধ্যে শতকরা প্রায় ১৫ ভাগ মুসলিম। শতকরা প্রায় ৬৮ ভাগ হিন্দু। এখন পর্যন্ত আসামই একমাত্র রাজ্য, যেখানে এনআরসি সম্পন্ন হয়েছে। এরপর অন্য কিছু রাজ্যে এই এনআরসি করার দাবি উঠেছে।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft