শিরোনাম: অনিয়ম-দুর্নীতি সহ্য করা হবে না : মেয়র আতিকুল       ষড়যন্ত্রকারীদের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে বললেন ইনু       'আমরা বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ করি কিন্তু এখান থেকে কোনো শিক্ষা নেই না'       ফের পাক-ভারত সীমান্তে গোলাগুলি, নিহত ৪       দেড় বছরে দেড় মিনিটের আন্দোলন করতে পারেনি বিএনপি : ওবায়দুল কাদের       মালয়েশিয়ার ৭ প্রদেশে জাকির নায়েকের বক্তৃতা নিষিদ্ধ       মৃত ভেবে চিতাবাঘের ছবি তুলতে গিয়ে...       শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ দেখাল হংকংয়ের আন্দোলনকারীরা       ড্রিমলাইনার গাঙচিল ২২ আগস্ট আকাশে উড়বে       বাংলাদেশের রাজনীতিতে বিশাল শূন্যতা বিরাজ করছে : জিএম কাদের      
মূর্তি ভেঙে বর্ণপরিচয় মোছা যায় না : মমতা
কাগজ ডেস্ক :
Published : Wednesday, 12 June, 2019 at 3:17 PM
মূর্তি ভেঙে বর্ণপরিচয় মোছা যায় না : মমতামূর্তি ভেঙে তারা কি আমাদের হৃদয়ের চেতনা ভাঙতে চাইছে? সংস্কৃতি ভুলিয়ে দিতে চায়? ভাষা রুদ্ধ করে দিতে চায়? কিন্তু মূর্তি ভেঙে বর্ণপরিচয় মোছা যায় না। মূর্তি ভাঙার জন্য ফের বিজেপিকে দায়ী করে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এসব কথা বলেন।
মমতা বলেন, পশ্চিমবঙ্গকে গুজরাট বানানোর ষড়যন্ত্র চলছে। দাঙ্গাবাজদের রুখে দিতে হবে। বাংলার অপমান দেখলে তা জীবন দিয়ে রুখব। মমতা ঘোষণা দেন, মেদিনীপুরের বীরসিংহ গ্রামে বিদ্যাসাগরের বসতবাড়ি এবং সেখানকার ভগবতী বিদ্যালয়টিকে হেরিটেজের স্বীকৃতি দেওয়া হবে।
উল্লেখ্য, নির্বাচনী প্রচারকালে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহর রোড শো চলাকালীন গোলমালের সময় বিদ্যাসাগরের মূর্তিটি ভাঙা পড়ে। তৃণমূলের অভিযোগ, বিজেপির কর্মীরাই এটি করেছে।
এদিকে উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ায় দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ ও বোমাবাজিতে দুই তৃণমূল কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার রাতে বোমার আঘাতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় মহম্মদ হালিমের। জখম হন আরো ৩ জন। পরে মারা যান মুক্তার নামের আরো একজন। নিহতদের পরিবারের অভিযোগ, বিজেপি লোকেরাই বোমা মেরে তাদেরকে খুন করেছে। অন্যদিকে সোমবার রাতে পূর্ব বর্ধমানের গলসিতে খুন হন জয়দেব রায় নামে আরো এক তৃণমূল কর্মী। তাকে বাঁচাতে আহত হন আরো ৩ তৃণমূল কর্মী। তৃণমূলের অভিযোগ বিজেপি দুষ্কৃতরাই জয়দেবকে খুন করেছে। যদিও বিজেপির দাবি, পারিবারিক বিবাদে তিনি খুন হয়েছেন।
এদিকে চিকিৎসার গাফিলতিতে এক রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে সোমবার রাতে রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে কলকাতার এনআরএস হাসপাতাল। রোগীর আত্মীয়দের মারধরে গুরুতর জখম হন এক জুনিয়র চিকিৎসক। প্রতিবাদে রাজ্যের সব সরকারি হাসপাতালে কর্মবিরতি পালন করা হয়।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft