মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
যশোরে এক মাসে দুশো আটক
মাদক কারবারিরা দাপিয়ে বেড়াচ্ছে
দেওয়ান মোর্শেদ আলম
Published : Wednesday, 5 August, 2020 at 1:30 AM
মাদক কারবারিরা দাপিয়ে বেড়াচ্ছে 
যশোরে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মাদকের কারবার। পুলিশের অভিযানে কিছুটা ভাটা পড়ায় মাদক কারবারিরা এখন বেপরোয়া। গত এক মাসে যশোর কোতোয়ালি পুলিশ, র‌্যাব, ডিবি ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর আটক করেছে দুশো জনকে। তারপরও শ’ শ’ মাদক কারবারি দাপিয়ে বেড়াচ্ছে।
করোনা নিয়ে মানুষ যখন দুশ্চিন্তায়, আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা করোনাকালে ব্যস্ত ঠিক সে সুযোগটাই কাজে লাগিয়ে মাদক কারবারিরা মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। গত এক মাসে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো শুধু যশোর সদর উপজেলার বিভিন্ন স্পট ধেকে দুশো মাদক কারবারিকে আটক করেছে। থানায় মামল হয়েছে অর্ধশত।
একটি চক্র করোনা ভাইরাসকে পুঁজি করে হোমিওপ্যাথিক দোকানের আড়ালে রেকটিফাইড স্পিরিট ও ডিনোচার্ড এমনকি চোলাই মদের ব্যবসাও চালিয়ে যাচ্ছে।
২২ জুলাই মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সদস্যরা শহরের চাঁচড়া রায়পাড়া মাদ্রাসা রোড কয়লাপট্টির সাহেদা বেগমকে দেড় হাজার পিস ইয়াবাসহ আটক করে। ওই  চক্রে আরো ডজনখানেক কারবারি  আছে। ২০ জুলাই সকালে সদর উপজেলার কিসমত নওয়াপাড়ার রায়হান ইসলামের ঘরে অভিযান চালিয়ে ২০পিস ইয়াবা দেড়শ’ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার হয়। এ সময় ৩ মাদক বিক্রেতাকে আটক করা হয়। এরা হচ্ছে, যশোর সদর উপজেলার বোলপুর মধ্যপাড়ার আব্দুল জলিল, সদর উপজেলার খোলাডাঙ্গা গাজী পাড়ার গাজী আক্তারুজ্জামান তোতা ও ঢাকা ধামরাই উপজেলার শিমুলিয়া গ্রামের বর্তমানে সদর উপজেলার কিসমত নওয়াপাড়ার   রায়হান ইসলাম। এই সিন্ডিকেটে শেখহাটির ডজন খানেক কারবারি রয়েছে। ১৫ জুলাই রাতে  মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর খুলনা ও যশোর পুলিশের পৃথক অভিযানে ২শ’ পিস ইয়াবা ও আধা কেজি গাঁজা উদ্ধার হয়। এ সময় ৪ জনকে আটক করা হয়। এরা হচ্ছে, যশোর শহরের বেজপাড়া আনছার ক্যাম্প পানির ট্যাংকের পাশে হাফিজুর রহমান ওরফে হাফিজ, চাঁচড়া চেকপোস্ট (ডাক্তার আনিচের বাড়ির ভাড়াটিয়া) সাইফুল ইসলাম রুস্তম, সদর উপজেলার খোলাডাঙ্গা গ্রামের আবুজার ও সদর উপজেলার ভাতুড়িয়া বেড়বাড়ি গ্রামের বাবু। এই এলাকাগুলোতে চিহ্নিত আরো দু ডজন কারবারি রয়েছে। ১ জুলাই মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ১শ ৯৫ পিস ইয়াবাসহ দু’জনকে আটক করে। এরা হচ্ছে যশোর শহরের খড়কী বামনপাড়ার ফিরোজ আহমেদ ও শহরের কাজীপাড়া বর্তমানে নতুন খয়েরতলার হাসান আহমেদ ওরফে শাওন। খড়কি এলাকায় রাজনৈতিক আশ্রয়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ৭/৮ জন। ২১ জুলাই বোলপুর মধ্যপাড়া থেকে দেড়শ’ গ্রাম গাঁজাসহ ওবাইদুল আটক হয়। এরপর বাহাদুরপুরের জনি মোল্লাকে ১শ’ ৩০ গ্রাম গাঁজাসহ আটক করে। এভাবে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর গত এক মাসে ৫০ জনকে আটক করেছে। ২৯ জুলাই চাঁচড়া চেকপোস্ট থেকে আড়াই কেজি গাঁজাসহ ইব্রাহিম নামে এক গাঁজা ব্যবসায়ীকে আটক করে পুলিশ। তার বাড়ি শার্শা উপজেলার হন্নেপোতা দক্ষিণপাড়ায়।
এভাবে থানা পুলিশ ও ডিবি গত এক মাসে ১শ জনকে আটক করেছে। এছাড়া  র‌্যাব সিআইডি আরো ৫০ জনকে আটক করেছে গত এক মাসে।
যশোর শহরের রেলগেট, খোলাডাঙ্গা, খড়কী, আরবপুর, পালবাড়ি, পুরাতন কসবা, ষষ্টিতলা, বেজপাড়া, ঘোপ, কারবালা, পোস্ট অফিস পাড়া, শংকরপুর, বড় বাজার, মুড়োলি, রাজারহাটসহ শতাধিক স্পটে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে সংঘবদ্ধ মাদক ব্যবসায়ীরা।
যশোর শহর ও শহরতলী এলাকায় গড়ে ওঠা হার্ডওয়ার দোকানগুলিতে অবৈধবাবে ডিনোচার্ড স্পিরিট বিক্রি হচ্ছে। সূত্রগুলো দাবি করেছে, হোমিও ফার্মেসীর আড়ালে কতিপয় ব্যবসায়ী রেকটিফাইড স্পিরিট (আরএস) বিক্রি করে  জীবনের হুমকির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।
এব্যাপারে যশোর কোতোয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান জানিয়েছেন করোনা সংকটের সময়েও যশোর পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে।  পুলিশের অনেকে আক্রান্ত হলেও থেমে নেই অভিযান।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft