মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
করোনো ক্রান্তিকালেও যশোরের বিভিন্ন স্পটে অসহিষ্ণু পরিবেশ
চুরি ছিনতাই ছুরিকাঘাত ঘটনা চলছেই
দেওয়ান মোর্শেদ আলম
Published : Monday, 13 July, 2020 at 2:11 AM
চুরি ছিনতাই ছুরিকাঘাত ঘটনা চলছেইমহামারি করোনোর সময়েও যশোরের বিভিন্ন স্পটে অসহিষ্ণু পরিবেশ বিরাজ করছে। এলাকা ভিত্তিক সংঘবব্ধ অসাধু চক্র চুরি ছিনতাই ও ছুরিকাঘাত ঘটনা ঘটিয়ে চলেছে হরহামেশা। গত এক মাসে অনাকাঙ্খিত এমন কয়েক ডজন ঘটনা ঘটেছে। করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে পুলিশ প্রশাসন কিছুটা ব্যস্ত হয়ে পড়ার সুযোগ নিচ্ছে অপরাধী চক্র।
৫ জুলাই যশোর শহরের কারবালা রোড পানি উন্নয়ন বোর্ড অফিসের সামনের একটি চতুর্থ তলা ভবনের দ্বিতীয় তলার একটি ফ্ল্যাটে চুরি সংঘটিত হয়। সংঘবদ্ধ চোরেরা ওই ফ্ল্যাটের মৃত রবিউল হাসানের স্ত্রী তাসলিমা হাসানের গেটের ও গ্রিলের তালা ভেঙে নগদ ৯০ হাজার টাকা, ২ ভরি ৪ আনা ওজনের স্বর্ণের চেইন, দু’ভরি ওজনের রুপার চুড়ি, সাড়ে ৮ হাজার টাকা মূল্যের স্যামসাং মোবাইল ফোন, সাড়ে ৬ হাজার টাকা মূল্যের ক্যাপ্টেন বাইসাইকেলসহ ২ লাখ ৩৫ হাজার টাকার মালামাল নিয়ে যায়। ২ জুলাই বিকেল সাড়ে ৫ টা থেকে ৫ জুলাই সকাল ৯ টার মধ্যে শহরের পুরাতন কসবা আবু তালেব সড়ক জাহানারা মঞ্জিলে বড় ধরণের চুরি হয়। ভাড়াটিয়া জেলা জজ আদালত কেশবপুর সরকারী জজ আদালতের বেঞ্চ সহকারী টিপু সুলতানের পরিবারের অনুপস্থিতির সুযোগে সংঘবদ্ধরা জানালার গ্রিল কেটে নগদ ৩২ হাজার ৫শ’ টাকা ও স্বর্ণের চেইন, ডায়মন্ডের নাকফুলসহ ৯১ হাজার টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়। ৫ জুন রাতে যশোরের রামনগর বিহারী ক্যাম্প পিকনিক কর্ণার এলাকায় সরোয়ার উদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলামের মুদি দোকানে ও গোডাউন থেকে টিন চুরি হয়। একই দিন রাতে বকচর হুঁশতলার শহিদুল ইসলামের ছেলে শাহেদ আলীর নির্মাণাধীন গোডাউনের মধ্যে থেকে চুরি হয়। ৩ জুন সকালে যশোর সদর উজেলার বাউলিয়া পূর্ব পাড়ার খায়রুল ইসলামের ছোট ছেলে বাহারুল ইসলামকে নীলগঞ্জ থেকে অপহরণ করে এলোপাতাড়িভাবে মারপিট করে টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় একটি চক্র।
এর কয়েকদিন আগে হাশিমপুরের তোতামিয়ার রড সিমেন্টের দোকানে চুরি হয়। নগদ ৫ লাখ টাকা ও মালামাল চুির হয়। এর আগে যশোর শহরের একটি গোডাউনে, একটি মুদি দোকানে ও একটি বাসা বাড়িতে চুরি হয়।  
এছাড়া ৭ জুলাই যশোর সদর উপজেলার সাজিয়ালী গ্রামের মৃত বিলায়েত আলী বিশ^াসের ছেলে তোতা মিয়ার পরিবারের উপর হামলা চালায় সংঘবদ্ধ চক্র। ওই এলাকার রাকিব হোসেন গং লোহার রড দিয়ে মাথায় আঘাত করে। এতে তোতা মিয়া বিশ^াস, ছেলে তুষার, স্ত্রী নুর জাহান ও প্রতিবেশী রুস্তম আলীর স্ত্রী ছবেদা  বেগম জখম হন।
১০ জুলাই যশোরের শংকরপুর ছোটনের মোড় এলাকায় রাকিবুল হাসান অনিক ওরফে অনিকে (১৯) ছুরিকাঘাত করে ১২ হাজার ৯৯০ টাকা মূল্যের মোবাইল ছিনিয়ে নেয় চিহ্নিতরা। ঘটনায় পরিবারের পক্ষে  যশোর শহরের শংকরপুর জমাদ্দার পাড়ার হালিম ওরফে ঠিলে মুন্সীর ছেলে টুনি শাওন, হাফিজুর রহমানের ছেলে মুসা, আশরাফ হোসেনের ছেলে ঝন্টু, কুট্টির ছেলে আপন, কাজলের ছেলে বুলেট ও মোমরেজের ছেলে রাহিমের নামে মামলা হলেও এজাহার নামীয় কেউ আটক হয়নি।  
কোতোয়ালি থানা সূত্র জানিয়েছে, এ ধরনের আরো ডজন দুয়েক অভিযোগ থানায় জমা পড়েছে এই করোনা ক্রান্তির সময়ে। পথে  লোকজন চলাচল কম করা, এমনকি আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার টহল কম থাকার সুযোগ নিচ্ছে সংঘবদ্ধ চক্রগুলো। এরা করোনার সময়ে নিজেদের না গুটিয়ে বরং উল্টো এটাকে পুঁজি করে অপরাধ করে চলেছে।
এদিকে অব্যাহত ঘটে যাওয়া এসব আনাকাঙ্খিত ঘটনা বন্ধ ও ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত করে আটকের দাবি জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট এলাকার ভুক্তভোগী পরিবার ও শান্তি প্রিয় মানুষ।
এ ব্যাপারে যশোর কেতোয়ালি থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান জানিয়েছেন, যশোরে করোনা ভয়ঙ্কর আকার ধারন করেছে। অনেক পুলিশ সদস্যও আক্রান্ত হয়েছেন। এরপরও পুলিশ কিন্তু ঝুঁকি নিয়েই মাঠে রয়েছে। ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে জন সচেতনতা বাড়াতে কাজ করছে। তেমনি আইনশৃংখলা সমুন্নত রাখার কাজটিও করে যাচ্ছে। আর করোনার সুযোগ নিয়ে এলাকা ভিত্তিক সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্র যথেচ্ছা করছে। চুরি ছিনতাই ছুরিকাঘাত করছে। আরো ঘটনা ঘটছে এটাও সত্য। পুলিশ প্রতিরোধ করার চেষ্টা করে যাচ্ছে। ওইসব চক্রের অনেকে আটকও হয়েছে। তাদের  মুলোৎপাটনে পুলিশের পাশপাশি স্থানীয় মানুষকেও কাজ করতে হবে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft