শনিবার, ০৮ আগস্ট, ২০২০
আক্কেল চাচার চিঠি (আঞ্চলিক ভাষায় লেখা)
কি কল্লি রাস্তায় লোক মারা বন্দ হবে ?
Published : Monday, 6 July, 2020 at 12:47 AM
কি কল্লি রাস্তায় লোক মারা বন্দ হবে ?করোনা ভাইরাসের কারনে ম্যালাদিন গাড়িঘুড়া চলা বন্দ ছিলো। গ্যালো জুন মাসের পয়লা তারিকিত্তে রাস্তায় আবার গাড়ি চলা শুরু হইয়েচে। তাও সতর্ক কইরে দিয়ে নিদ্দেশ দিয়া হইলো সীমিত আকারে চালাতি হবে। এক সিট এক সিট ফাকা কইরে লোক বসতি হবে। বেশী ভিড়ভাট্টা করা যাবে না। তাই নেহায়ত বাটে না পড়লি এই সুমায় কেউ বাইরি যাচ্চেও না। কিন্তুক এই মহামারি মদ্দি এট্টা খবর শুইনে পিলে চমকে উইটলো। শুদু এই জুন মাসে দেশে একসিডেন ঘইটেচে ২৭৯ডে। যাতে মইরে গেচে ৩৬১ জন যার মদ্দি ২৭২ জন বিটা, ৫৭ জন বিটি আর ৩২ জন মাছুম বাচ্চা। এর মদ্দি সাইকেল মটর দুর্ঘটনায় বেশি লোক মইরে গেচে। ১০৩ ডে সাইকেল মটর একসিডেনে মইরে গেচে ৯৪ জন। একসিডেনে শিকার হইয়ে চলতি পতের লোক মইরে গেচে ৭৬ জন। গাড়িঘুড়ার ডিরাইভার আর হেলপার মইরে গেচে  ৪৯ জন । এই জুন মাসে পানি পতে ১১ডা নৌ-দুর্ঘটনায় ৫৬ জন মইরে গেচে আর  খোজ মিলিনি ২৩ জনের। নিখোঁজ হয়েছেন। জুন মাসে ৬টি রেল দুর্ঘটনায় মইরে গেচে ৭ জন। এই সব ঘটনায় আহত হইয়েচে ৩৪৮ জন। কালকে রোড ফাউন্ডিশন নামের এট্টা পোতিষ্টান এই খবর চাউর কইরেচে। তারা ৭টা  জাতীয় পেত্তেকদিনির পিপার, ৫টা অনলাইন পিপার আর টিভির খবর তলাশ কইরে এই চুতা বানায়েচে। আর যে সব একসিডেন খবরে আসিনি সে সব বাদেই এই তথ্য বিলে তারা জানায়েচে। গ্যালো মে মাসে লকডাউনির মদ্দি চুরি চামারি কইরে যারা পতে ঘাটে উটিলো তাগের মরার সংখ্যাও কিন্তুক কম ছিলো না। মে মাসে ২১৩ ডা একসিডেনে মইরে গিলো  ২৯২ জন মানুস। মানসির মদ্দিত্তে যে শৃংখলা উইটে গেচে তা রাস্তায় উললি কানায়ও টের পাবে। কিডা কার আগে যাবে সেই পাল্লা। পাল্লা দিতি যাইয়েই বাড়ে পত আগলায় রাইকে ভিড়ভাট্টা আর একসিডেন। এমনিতিই রাস্তায় বেশীর ভাগ পড়–টে গাড়ি চলে,করোনায় পইড়ে থাকে আরো আড়ায় গেচে। সেই সব অচল গাড়ি যকন আনকুরা ভিরাইভারের হাতে পড়ে রাস্তায় পাল্লা দেয় তকন প্যাসেনজারের মনে হয় আজ্রাইলির হাতে পড়িচি। আর এট্টু এট্টু ছিলেপিলে যে গতিতি রাস্তায় সাইকেল মটর দাবড়ায় বেড়ায় তা দেকলি জানে পানি থাকে না। কি সব্বরাশে কতা কও দিনি বাপু! আলাম কনে, মলাম যে!
ইতি
অভাগা আক্কেল চাচা
০১৭২৮ ৮৭১০০৩




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft