মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
নতুন শনাক্ত দু’জন
সোমবার যশোরে করোনা জয় করেছেন ডাক্তারসহ চারজন
ফয়সল ইসলাম :
Published : Tuesday, 2 June, 2020 at 12:39 AM
সোমবার যশোরে করোনা জয় করেছেন ডাক্তারসহ চারজনসোমবার যশোরে আরও দু’যুবকের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে।  তারা আপন চাচাতো ভাই। শার্শা উপজেলার কাজীরবেড় গ্রামের বাসিন্দা আক্রান্ত ওই দু’যুবককে তাদের বাড়িতে আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। নতুন দু’জনসহ জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১শ’ ৯জনে।
আগে আক্রান্তদের মধ্যে সোমবারও একজন ডাক্তারসহ করোনা থেকে মুক্তি পেয়েছেন চারজন। এনিয়ে ১২জন ডাক্তার, ছয়জন নার্স ও অন্যান্য স্বাস্থ্যসেবী ৩৩জনসহ জেলায় করোনা জয়ীর সংখ্যা ৭৭ জন। সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
সিভিল সার্জন জানিয়েছেন, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) জিনোম সেন্টারের ল্যাবে ৩১ মে রোববার ১৮টি নমুনা পাঠানো হয়েছিল। পরীক্ষা সম্পন্ন করে দু’টি নমুনায় পজেটিভ রেজাল্ট এসেছে মর্মে রিপোর্ট দিয়েছেন কর্তৃপক্ষ। আক্রান্ত দু’যুবকের বাড়ি শার্শা উপজেলায়। তাদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ব্যবস্থা ও বসবাসের বাড়ি লকডাউনের করার জন্যে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে নিদের্শনা দেয়া হয়েছে।  
শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার ইউসুফ হোসেন বলেন, আক্রান্ত ওই দু’যুবক আপন চাচাতো ভাই এবং যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে কর্মরত সহকারী অধ্যাপক এক ডাক্তারের ভাইপো। তারা কাজীরবেড় গ্রামের বসবাস করেন। একজনের বয়স ২৭ ও অন্যজনের বয়স ২১ বছর। জ্বর ও ঠান্ডাজনিত সমস্যা থাকায় ৩১ মে তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্যে পাঠানো হয়। তারা করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার বিষয়টি সিভিল সার্জনের মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়ার পর তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। হোম আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে ওই যুবক দ্বয়কে। শার্শা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেনের উপস্থিতিতে তাদের বসবাসের বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। দু’যুবকের পরিবারের ৭জনকে কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।  
এদিকে, সোমবার করোনা জয়ীর স্বীকৃতি পেয়েছেন ঝিকরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তার অন্তরা কুন্ডু। তিনি আক্রান্ত হয়েছিলেন গত ২৬ এপ্রিল। উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামে শ্বশুরালয়ে তিনি হোম আইসোলেশনে ছিলেন। সেখানে নির্দিষ্ট বিধি মেনে জীবন যাপন করে ও পুষ্টিকর, ভিটামিন সম্মৃদ্ধ খাবার গ্রহণ করে তিনি করোনার সাথে লড়াই করে জয়ী হয়েছেন।
ডাক্তার অন্তরা বলেন, করোনায় সংক্রমিত হওয়ার কোনো উপসর্গ তার ছিল না। কিন্তু স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার, নার্স, টেকনোলজিস্টসহ একাধিক স্বাস্থ্যসেবী আক্রান্ত হওয়ায় রুটিন টেস্টের আওতায় তিনি নমুনা দিয়েছিলেন। নমুনা টেস্টের রেজাল্ট পজেটিভ আসার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার সাথে সাথে তিনি হোম আইসোলেশনে থাকা শুরু করেন। নিজের মনোবল ও পরিবারের লোকজনের দেয়া সাহস করোনার সাথে লড়াই করতে অনেক বেশি উৎসাহ জুগিয়েছে। দীর্ঘদিন বন্দী জীবন কাটাতো হয়েছে। গত ২৩ মে দেয়া নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। এরপর ২৮ মে আবারও নমুনা দেয়া হয়। সেটির রেজাল্টও নেগেটিভ এসেছে। পহেলা জুন সোমবার সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে আমি করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করে জয়ী হয়েছি। বন্দী জীবন থেকে মুক্তি পেয়ে অর্থাৎ করোনাকে জয় করার পর মনোবল আরও বেড়ে গেছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে কর্মস্থলে যোগদান করে রোগীদের সেবা করব।  
সোমবার করোনা জয়ীদের মধ্যে রয়েছেন, যশোর সদর উপজেলার লেবুতলা ইউনিয়নে আন্দোলপোতা গ্রামের বাসিন্দা ও গোপালগঞ্জ ফেরত রাফিয়া বেগম (৫০), মণিরামপুর উপজেলাস্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার শিউলী আরা (৩৫) ও দুর্গাপুর গ্রামের বাসিন্দা ঢাকা ফেরত সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা  আবুল কাশেম (৫৯)। স্বাস্থ্য বিভাগ ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে করোনা জয়ীদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানানোসহ মেডিকেল সার্টিফিকেট হস্তান্তর করা হয়েছে।
সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীন জানিয়েছেন, সোমবার যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ জেলার আটটি উপজেলা থেকে সংগৃহিত ৭৯টি নমুনার মধ্যে ২৫টি যবিপ্রবি’তে ও  ৫৪টি খুলনা মেডিকেল কলেজের ল্যাবে পরীক্ষার জন্যে পাঠানো হয়েছে। গত ১০ মার্চ থেকে পহেলা জুন পর্যন্ত ২ হাজার ১শ’ ১৪টি নমুনা পরীক্ষার জন্যে পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে রিপোর্ট এসেছে ১ হাজার ৭শ’ ৭৪টি।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft