বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই, ২০২০
আন্তর্জাতিক সংবাদ
করোনায় মৃত ২৮২৪০, আক্রান্ত ৬১৪২৩১
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Saturday, 28 March, 2020 at 5:03 PM
করোনায় মৃত ২৮২৪০, আক্রান্ত ৬১৪২৩১বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লাখ ছাড়িয়েছে। শনিবার মাত্র কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে বিশ্বের ১৯৯টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া এই ভাইরাসে আক্রান্তের মোট সংখ্যা বেড়ে ৬ লাখ ১৪ হাজার ২৩১ জনে এসে দাঁড়িয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে ১ লাখ ৩৪ হাজার ৭৪ জন সুস্থ হয়েছে বাড়ি ফিরেছেন।
অথচ শনিবার সকালেই এই সংখ্যা ছিল ৫ লাখ ৯৭ হাজার ২৬২ জন। অর্থাৎ গত কয়েক ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮ হাজারের বেশি মানুষ। এছাড়া গত কয়েক ঘণ্টায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই রোগে মারা গেছেন আরও ২৬৯ জন। ফলে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৭ হাজার ৬১০ জন।
এই প্রতিবেদনে বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুতে শীর্ষে থাকা ১০টি দেশের অবস্থান তুলে ধরা হলো:
সবেচেয়ে বেশি আক্রান্ত যুক্তরাষ্ট্রে
দেশটিতে শুক্রবার গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ১৫ হাজার ৫শ ৩৭ জন আক্রান্ত হয়েছে। ফলে আক্রান্ত দেশগুলোর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রই প্রথম দেশ যেখানে লাখ ছাড়িয়েছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা।
ওয়ার্ল্ডোমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে শনিবার সকালে করোনায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৩০ জন এবং মারা গেছেন আরও ৮ জন। ফলে দেশটিতে করনায় মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৪ হাজার ২৫৬ জন। দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৭০৪ জনে।
যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত ২ হাজার ৪৯৪ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অন্তত ১ লাখ ২৭ জন। এদের মধ্যে ২ হাজার ৪৯৪ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।
সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ইতালিতে
দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৯১৯ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে মরণঘাতি এ ভাইরাস। এটি এ পর্যন্ত একদিনে কোনও দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।
ইতালিতে এ নিয়ে মোট ৯ হাজার ১শ ৩৪ জনের মৃত্যু হল। করোনায় বিশ্বের কোনও দেশে এটিই সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর ঘটনা। এছাড়া সবশেষ নতুন করে প্রায় ৬ হাজার জনের আক্রান্তের ঘটনায় দেশটিতে এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৮৬ হাজার ৪ শ ৯৮ জন।
এছাড়া চিকিৎসায় সুস্থ হয়েছেন ১০ হাজার ৯৫০ এবং গুরুতর অসুস্থ রোগীর সংখ্যা ৩ হাজার ৭৩২ জন। এ নিয়ে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ৬৬ হাজার ৪১৪ জনে দাঁড়িয়েছে।
চীন
দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৫৪ জন। ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৮১৩৯৪য়ে।
চীনে আরও তিনজনের মৃত্যুর ফলে মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৩২৯৫ হয়েছে। দেশটিতে করোনা থেকে সেরে উঠেছেন ৭৪৯৭১ জন এবং এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৩১২৭ জন। এদের মধ্যে ৮৮৬ জনের অবস্থা গুরুতর।
স্পেন যেন মৃত্যুপুরী
করোনায় আক্রান্ত স্পেনের অবস্থা বুধবার থেকেই ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে। দেশটিতে শুক্রবার ৭৭৩ জন মারা যাওয়ার পর করোনায় মোট ৫১৩৮ জন মারা গেলেন। আর মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৬৫ হাজার ৭১৯ জন।
জার্মানি
ইউরোপের এ দেশটিতে শুক্রবার ৮৪ জন মারা গেছেন এবং নতুন করে ৬৯৩৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। শনিবার সকালেও সেখানে মারা গেছেন মোট ৪৪ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন আরও ২৪৬৯ জন। ফলে দেশটিতে সবমিলিয়ে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৩ হাজার ৩৪০ জন এবং মোট মৃত্যু ৩৯৫ জন।
ইরানে কয়েক ঘণ্টায় ১৩৯ জনের মৃত্যু
মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর মধ্যে করোনায় সবচেয়ে বেশি নাজুক অবস্থা ইরানের। দেশটিতে শনিবার সকালেও আরও ১৩৯ জন মারা গেছেন। ফলে মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৫১৭তে।
দেশটিতে মাত্র কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৩০৭৬ জন। ফলে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হলো ৩৫ হাজার ৪০৮ জন। এই মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় এটি ফ্রান্সকে হটিয়ে তালিকার ছয়ে উঠে এলো।
এর আগে শুক্রবার দেশটিতে নতুন করে ১৪৪ জন মারা যান। আর নতুন আক্রান্ত হয়েছিলেন আরও ২৯২৬ জন।
ইরানের মোট ১১৬৭৯ জন সেরে উঠেছেন। তবে এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও ২১ হাজার ২১২ জন। এদের মধ্যে ৩২০৬ জনের অবস্থা গুরুতর।
যুক্তরাজ্য
দেশে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৪ হাজার ৫৪৩ জন। এদের মধ্যে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনও রয়েছেন। যুক্তরাজ্যে করোনায় মারা গেছে মোট ৭৫৯ জন।
সুইজারল্যান্ড
শনিবার সকালে দেশটিতে আরও ২৫৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন নয়জন। ফলে এখানে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ১৮৭ জনে এবং মোট মৃত্যু হয়েছে ২৪০ জনের।
ফ্রান্স
ইউরোপের এই দেশটিতে মোট ৩২ হাজার ৯৬৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আর মারা গেছেন ১৯৯৫ জন। তবে সেরে উঠেছেন ৫৭০০ জন এবং এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও ২৫২৬৯ জন। এদের মধ্যে ৩৭৮৭ জনের অবস্থঅ আশঙ্কাজনক।
দক্ষিণ কোরিয়া
করোনায় শীর্ষ দশে থাকা এশিয়ার এই দেশটিতে শনিবার নতুন করে করোনায় আরও পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে মোট মৃত্যু বেড়ে ১৪৪য়ে গিয়ে দাঁড়ালো। দেশটিতে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে আরও ১৪৪ জন। ফলে মোট আক্রান্ত হলেন ৯৪৭৮ জন।
তবে দেশটিতে সুস্থ হয়ে ঘরে ফেরার লোকজনের সংখ্যাও কিন্তু কম না। শনিবার সকাল পর্যন্ত দেশটির মোট ৪৮১১ জন সুস্থ হয়েছেন। এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছেন প্রায় সমপরিমাণ মানুষ অর্থাৎ ৪৫২৩ জন। এদের মধ্যে ৬৯ জনের অবস্থা গুরুতর।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft