রবিবার, ০৭ জুন, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
আজ থেকে যশোরে মাঠে নামছে সেনাবাহিনী
বাজারমূল্য, হোমকোয়ারেন্টাইন ও জনসমাগম নিয়ন্ত্রণে কাজ করবে
এম. আইউব :
Published : Wednesday, 25 March, 2020 at 6:17 AM

বাজারমূল্য, হোমকোয়ারেন্টাইন ও জনসমাগম নিয়ন্ত্রণে কাজ করবে আজ বুধবার থেকে যশোরে মাঠে নামছে সেনাবাহিনী। বাজার মনিটরিং, হোমকোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত ও জনসমাগমরোধে সিভিল প্রশাসনকে সহযোগিতা করবেন তারা। সেনাবাহিনী মাঠে নামার ফলে অতিমুনাফাখোরদের খবর আছে! এমনটি মনে করছেন সাধারণ মানুষ। যারা এতদিন হোমকোয়ারেন্টাইন মানতে গড়িমসি করছিল তারাও লাগাম টানতে বাধ্য হবে। একইসাথে বাইরে অহেতুক জনসমাগম কমবে বলে মনে করছে অনেকেই।
করোনাভাইরাস যাতে সারাদেশে ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্যে উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। তারই অংশ হিসেবে যশোরে প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে জেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার সেনাবাহিনীর দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা জেলা প্রশাসনের সাথে মতবিনিময় করেছেন। তারা জেলা প্রশাসনের কাছ থেকে নিজেদের কর্মকা- সম্পর্কে ধারণা নিয়েছেন। সেই অনুযায়ী আজ থেকে কার্যক্রম শুরু করবেন সেনা সদস্যরা।
জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গ্রামের কাগজকে জানান, সেনা বাহিনীর দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের তথ্য উপাত্ত বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। তারা মূলত বাজার মনিটরিং, হোমকোয়ারেন্টাইন নিশ্চিতকরণ ও জনসমাগম রোধে কাজ করবে। পুলিশ প্রশাসনের পাশাপাশি সেনাবাহিনী মাঠে নামলে অনেক কিছু নিয়ন্ত্রণে আসবে বলে মনে করছেন সাধারণ মানুষ।
করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে বিদেশফেরত ও তাদের স্বজনদের হোমকোয়ারেন্টাইনে থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে স্বাস্থ্যবিভাগের পক্ষ থেকে। কিন্তু অনেক জায়গায় এই  হোমকোয়ারেন্টাইন মানছেন না বিদেশফেরত ও তাদের সংস্পর্শে আসা লোকজন। এ কারণে দিন দিন ঝুঁকির মধ্যে পড়ছে সুস্থ সবল মানুষ। সুস্থ মানুষ যাতে বিদেশফেরত ও তাদের সংস্পর্শে থাকা লোকজনের কারণে সংক্রমিত না হয় সেটি নিশ্চিত করতে কাজ করবে সেনাবাহিনী।
যশোরের দায়িত্বপ্রাপ্ত সেনাকর্মকর্তা লে. কর্নেল নেয়ামুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, মঙ্গলবার থেকে তারা কাজ শুরু করেছেন। হোমকোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে কাজ করবেন তারা। কেবল তাই না,  হোমকোয়ারেন্টাইনে যারা আছেন তাদের দ্বারা সাধারণ মানুষ যাতে আক্রান্ত না হয় সেজন্যে উদ্যোগ গ্রহণ করবে সেনাবাহিনী। এ পদক্ষেপ নিতে জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের সাথে কথা বলেছেন বলে জানান তিনি। শিগগিরই সেনাবাহিনীর কাজের প্রভাব সাধারণ মানুষ দেখতে পাবেন বলে জানিয়েছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত এ কর্মকর্তা।
সেনাবাহিনী মাঠে নামার খবরে যশোরে সাধারণ মানুষের মধ্যে ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। আব্দুর রহমান নামে একব্যক্তি বলেন, ‘এতদিন যারা হোমকোয়ারেন্টাইন মানতে গড়িমসি করছিল তারা এবার কিছুটা হলেও নিয়ন্ত্রণ হবে। আর তারা নিয়ন্ত্রণ হলে রক্ষা পাবে তার আশপাশের লোকজন।’
সাজ্জাদ হোসেন নামে বড়বাজারে আসা এক ক্রেতা বলেন, ‘করোনার দোহাই দিয়ে ইতোমধ্যে অনেক জিনিসের দাম রাতারাতি বেড়ে গেছে। এখনও পর্যন্ত বেশি দামে জিনিসপত্র কিনতে হচ্ছে ক্রেতাদের। যদিও ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের কারণে সাময়িকভাবে ব্যবসায়ীদের মধ্যে কিছুটা হলেও ভয় সৃষ্টি হয়েছিল। কিন্তু অভিযান বন্ধ হলে সেই ভয় কেটে যাচ্ছে। সেনাবাহিনীকে সাধারণ মানুষের কথা বিবেচনা করে বাজার পরিস্থিতির দিকে নজর দেয়া উচিত। যাতে করে এই দুর্যোগের মধ্যে কেউ কাউকে জিম্মি করতে না পারে।’
হামিদুর রহমান নামে একজন চাকরিজীবী বলেন, ‘এখনও পর্যন্ত বিভিন্ন জায়গায় অহেতুক জনসমাগম হচ্ছে। এগুলো নিয়ন্ত্রণ হওয়া জরুরি। সেনাবাহিনী মাঠে নামার ফলে জনসমাগমের কারণে বিপদজনক পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা কমে যাবে।’
বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কোয়ারেন্টাইন নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রে যোগাযোগের আগের সব নম্বর পরিবর্তন করা হয়েছে। যোগাযোগের নতুন নম্বর ০১৭৬৯-০৪৫৭৩৯। নতুন নম্বরে যোগাযোগের জন্যে অনুরোধ করা হয়েছে। মঙ্গলবার আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) সহকারী পরিচালক রাশেদুল আলম খান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
কর্মকা- সম্পর্কে জানতে যশোর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) এসএম তৌহিদুল ইসলামের কাছে ফোন করলে তিনি ঢাকায় আছেন জানিয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাহউদ্দিন সিকদারের সাথে কথা বলতে বলেন।
এ বিষয়ে যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাহউদ্দিন সিকদার বলেন, সেনাবাহিনীর সাথে সমন্বয় করে কাজ করবে পুলিশ। সাধারণ মানুষকে স্বস্তি দিতে প্রয়োজনীয় সবকিছু করা হবে। 



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft