শনিবার, ০৬ জুন, ২০২০
শিক্ষা বার্তা
কর্তৃপক্ষের ভুলে শাহমখদুম মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ অনিশ্চত
ডাঃ মোঃ হাফিজুুর রহমান (পান্না), রাজশাহী ব্যুরো :
Published : Sunday, 16 February, 2020 at 4:38 PM
কর্তৃপক্ষের ভুলে শাহমখদুম মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ অনিশ্চতবাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি) অনুমোদনসহ ১৪ দফা দাবিতে মানববন্ধন করেছেন রাজশাহীর বেসরকারি শাহমুখদুম মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা। রোববার বেলা সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে মানববন্ধন করে তারা।
একই দাবিতে শিক্ষার্থীদের লাগাতার আন্দোলনের মুখে শনিবার অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয় কলেজটি। সেই সঙ্গে শনিবার রাত ৮টার মধ্যে ছাত্রদের এবং রোববার সকাল ১০টার মধ্যে ছাত্রীদের হোস্টেল ছাড়ার নির্দেশ দেয়া হয়। রোববার শিক্ষার্থীরা হল থেকে রের হয়ে সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে গিয়ে মানববন্ধনে অংশ নেয়।
মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা জানান, বিএমডিসির অনুমোদন ছাড়াই গত সাত বছর ধরে অবৈধভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি করিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। বিষয়টি এতদিন ধামাচাপা দিয়ে রাখলেও সস্প্রতি পাস করা কয়েকজন শিক্ষার্থীরা এমবিবিএস পাস করে। কিন্তু বিএমডিসির অনুমোদন না থাকায় তারা ইন্টার্নশিপ করার সুযোগ পাননি। এর পর বিষয়টি জানা জানি হয়। এর পর দ্রুত বিএমডিসির অনুমোদনসহ ১৪ দফা দাবিতে গত ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ক্লাস বর্জন করে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।
এ কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করা শিক্ষার্থী মামুনুর রশিদ বলেন, ‘নানা সংকটের মধ্যেও আমি গত বছর ১২ মার্চ এমবিবিএস পাস করেছি। কিন্তু ইন্টার্নশীপ করতে পারছি না। সেটি জানতে বার বার মেডিকেল কলেজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের কাছে গেছি। কিন্তু তারা আমাকে কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। উল্টো আমাকেই নানাভাবে হুমকি দেওয়া হয়েছে, যেন আমি বিষয়টি নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি না করি। পরে খবর নিয়ে যানতে পারি বিএমডিসির রেজিস্টেশন এখনো হয়নি। এ কারণে ইন্টর্নশিপ করতে পারছি না। চারজন এমবিবিএস পাস শিক্ষার্থীর একই অবস্থা বলে জানান তিনি।’
প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মনিরুল ইসলাম স্বাধীন বলেন, ‘বিএমডিসির অনুমোদনের জন্য আবেদন করা হয়েছে। তারা পরিদর্শন করেছে। কিছু শর্ত দিয়েছে। সেগুলো পূরণের চেষ্টা চলছে। হয়তো দ্রুত আমরা অনুমতি পেয়ে যাবো।
তিনি বলেন, কিছু শিক্ষার্থী হয়তো কারো প্ররোচণায় আন্দোলনে গেছে। তারপরেও তারা তাদের ন্যায্য দাবি উত্থাপন করতেই পারে। আমার শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে বোঝানোর চেষ্টা করছি। তারা শুনেনি। ক্লাস বর্জন করে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছিল। সে কারণে কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে বলে জানান তিনি।
প্রসঙ্গত, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগ কলেজে পরিদর্শন শেষে ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে ২৫ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করার অনুমোদন দেয়। কিন্তু সেখানে ৫০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করে কলেজ কর্তৃপক্ষ। পরে এ অনিয়ম রাবি কলেজ পরিদর্শকের নজরে আসার পর ২০১৬ খ্রিষ্টাব্দে সেই সেশনের কার্যক্রম স্থগিত করে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়। পরে সদুত্তর না পেয়ে ওই সেশনের কার্যক্রম স্থগিত রাখার নির্দেশ দেয় রাবি কর্তৃপক্ষ।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft