সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
জাতীয়
বুথ দখল করে জাল ভোট দেওয়া সম্ভব : ইসি রফিকুল
কাগজ ডেস্ক :
Published : Friday, 17 January, 2020 at 7:51 PM
বুথ দখল করে জাল ভোট দেওয়া সম্ভব : ইসি রফিকুলইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) প্রোগামিং দিয়ে কাউকে হেল্প (সাহায্য) করা সম্ভব না মন্তব্য করে নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম বলেছেন, ‘বুথ দখল করে জাল ভোট দেওয়া সম্ভব। ভোটার এসে আঙ্গুলের ছাপ দিয়ে ব্যালট পেপার পেল; ইস্যু হল আরেকজন দৌড় দিয়ে ঢুকে তার ভোটটা দিয়ে দিল। এরকম যদি হয় তাহলে কিন্তু জাল ভোট দেওয়া সম্ভব।’
শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) রাজধানীর আজিমপুর গভঃ গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে দক্ষিণ সিটি করপোরেশন ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের (প্রিজাইডিং অফিসার ,সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার) প্রশিক্ষণ কর্মশালায় তিনি এসব কথা বলেন।
উপস্থিত ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের ‘রাজা’ হিসেবে উল্লেখ করে ইসি রফিকুল বলেন, একদিনের জন্য আপনি হচ্ছেন সেই কেন্দ্রের রাজা। আপনি যখন রাজা হয়েছেন তখন আপনার প্রথম দায়িত্বটা হচ্ছে আপনার রাজত্বটাকে চিহ্নিত করা। যেসব স্কুলে সীমানা প্রাচীর নেই সেখানে অন্তত একটা বাঁশ দিয়ে হলেও সীমানা প্রাচীর দেন।
সীমানা চিহ্নিত করার পরও দেশে কিছু জায়গায় বর্ডার গার্ড দেওয়া আছে উল্লেখ করে তিনি ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের বলেন, ‘আপানার সাথেও কিছু লোক থাকবে যারা হল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। আপনার দায়িত্ব হচ্ছে তাদেরকে (আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী) দায়িত্ব দেওয়া যাতে করে কোন অবস্থাতেই অনুমতিবিহীন কেউ আপনার সীমানায় বা রাজত্বে ঢুকতে না পারে।’
প্রিজাইডিং অফিসার ,সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারদের হুঁশিয়ারি দিয়ে রফিকুল ইসলাম বলেন,‘ প্রটেক্ট করতে যদি ব্যর্থ হন তাহলে, আপানাকে আমি দায়ি করবো। প্রিজাইডিং অফিসার হিসেবে আপনার দায়িত্ব হচ্ছে আপনার রাজত্বটাকে রক্ষা করা। ঠিক একইভাবে রুমটা হচ্ছে সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের তালুক কেন্দ্র। এই তালুকটাকে রক্ষা করা।’
বাঙালি জাতিকে ‘অসহিষ্ণু’ উল্লেখ করে রফিকুল ইসলাম বলেন, যখনই লাইন দেখবে তখনই ভাঙতে চাইবে। নিজের ব্যক্তি জীবনের গাড়ির উদাহরণ টেনে এই কমিশনার বলেন, আমরা কোন তাড়া নাই তারপরও উল্টো দিক দিয়ে গাড়ি দিবে টান। এই অভ্যাসের কারণেই লাইনটা ঠিক থাকে না। লাইন নিয়ে মারামারি হবে দায়টা পড়বে আপনার ঘাড়ে। ’
সরস্বতী পূজার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে কোনরকম আঘাত দেওয়ার জন্য সিটি ভোটের তারিখ নির্ধারণ করা হয় নি।’
নির্বাচন কমিশন বিপদের মধ্যে আছে মন্তব্য করে এই কমিশনার বলেন, আইনানুগ ও গ্রহণ যোগ্য নির্বাচন করতে চাই।
দক্ষিণ সিটি করপোরেশেনের রিটার্নিং কর্মকর্তা আব্দুল বাতেনের সভাপতিত্বে দক্ষিণ সিটি নির্বাচনে দায়িত্বরত প্রিজাইডিং কর্মকর্তাসহ সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft