শনিবার, ১১ জুলাই, ২০২০
জাতীয়
নতুন প্রকল্পে টাকা দিতে অস্থির বিশ্বব্যাংক : কাদের
কাগজ ডেস্ক :
Published : Tuesday, 5 November, 2019 at 8:18 PM
নতুন প্রকল্পে টাকা দিতে অস্থির বিশ্বব্যাংক : কাদের বিশ্বব্যাংক ঢাকায় নতুন বিআরটি (বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট) প্রকল্প করার প্রস্তাব দিয়েছে। তবে মেট্রোরেল ও বিআরটি প্রকল্পের চলমান কাজের মধ্যে নতুন করে আরেকটি প্রকল্প নিয়ে ঢাকা অচল করতে চায় না সরকার।  
মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) দুপুর আড়াইটায় রাজধানীর বনানীতে সেতু ভবনের সম্মেলন কক্ষে সেতু বিভাগ ও বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এ কথা জানান।
ওবায়দুল কাদের বলেন, বিশ্বব্যাংক ঢাকা শহরে নতুন বিআরটি (বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট) প্রকল্প করার জন্য প্রস্তাব দিয়েছে। কিন্তু এ মুহূর্তে যেহেতু মেট্রোরেল ও বিআরটি প্রকল্পের কাজ চলছে, তাই নতুন করে আরেকটি বিআরটি প্রকল্প নিয়ে ঢাকা শহরকে অচল করতে চাই না।
পদ্মাসেতু থেকে সরে যাওয়ার পর নতুন প্রকল্পে টাকা দেওয়ার জন্য বিশ্বব্যাংক অস্থির হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করে সেতুমন্ত্রী বলেন, সরকারের অগ্রাধিকার প্রকল্প পদ্মাসেতু। প্রধানমন্ত্রীর সাহসিকতার ফল আজকের পদ্মাসেতু। প্রধানমন্ত্রীর পরিবারকে অপবাদ দিয়ে বিশ্বব্যাংক যখন সরে যায়, তখন আকাশে ছিল ঘনকুয়াশা ও মেঘ। তখন সবাই বলল, এ সেতু কী আর হবে? বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা তখন সাহসের সঙ্গে বললেন, বিশ্বব্যাংক সরে গেছে, তাতে কী হবে, আমরা নিজস্ব অর্থে এ সেতু নির্মাণ করব। তখন অনেকে ব্যাঙ্গ করেছিল। কিন্তু আজ বাস্তব স্বপ্ন পদ্মাসেতু।
তিনি বলেন, বিশ্বব্যাংক সরে যাওয়ার পর দুনিয়ার নামিদামি বিশেষজ্ঞরা বললেন, পদ্মাসেতু নির্মাণ বাংলাদেশের পক্ষে কীভাবে সম্ভব। এখানের মাটি সরে যায়। পদ্মা নদীর যে মাটির অবস্থা, তীব্র স্রোত। আবার বালু, কাদা। এখন পর্যন্ত ১৫টি পিলার বসেছে। আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত আরও ৬টি টার্গেট। আশা করি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সেতু নির্মাণ করা হবে।
মন্ত্রী জানান, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সেতু হবে বরিশাল ও ভোলার সংযোগকারী সেতু। ভায়াডাক্টের পরে প্রায় ৮ কিলোমিটার এ সেতুর ফিজিবিলিটি শেষ হয়েছে। সম্ভ্যাবতা যাচাই করা হবে।
তিনি জানান, পদ্মাসেতুর সার্বিক অগ্রগতি ৭৫ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে। অনেক চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করে পদ্মাসেতু আজ দৃশ্যমান। ২০২১ সালের জুনের মধ্যে পদ্মাসেতু খুলে দেওয়া হবে। এছাড়াও কর্ণফুলী টানেলের কাজ ৪৯ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft