শনিবার, ০৬ জুন, ২০২০
জাতীয়
বাকস্বাধীনতা ছাড়া দেশের স্বাধীনতা থাকবে না : শাহদীন
কাগজ ডেস্ক :
Published : Saturday, 2 November, 2019 at 9:06 PM
বাকস্বাধীনতা ছাড়া দেশের স্বাধীনতা থাকবে না : শাহদীনবাকস্বাধীনতা না থাকলে দেশের স্বাধীনতাই থাকবে না বলে মনে করেন  সংবিধান বিশেষজ্ঞ ড. শাহদীন মালিক। দেশে গণতন্ত্র বলতে কিছু নেই এমন অভিযোগ করে বলেছেন ‘স্বাধীনতার ৫০ বছর পরেও আমরা গণতন্ত্রে যেতে পারিনি। আমরা রাজা-বাদশাহদের যুগে ফিরে গেছি।’
শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ‘হুমকির মুখে বাকস্বাধীনতা’ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করে মৌলিক অধিকার সুরক্ষা কমিটি।
শাহদীন মালিক বলেন, ‘আমরা রাজা-বাদশার যুগে চলে গেছি। গণতন্ত্র বলতে কিছু নেই। বাকস্বাধীনতা যত সঙ্কুচিত হবে তত দেশের স্বাধীনতা বলতে কিছু থাকবে না। আমার জীবন হয়ে যাচ্ছে পশুর জীবন। স্বাধীন দেশে পশুর মতো বাঁচা যায় না। এখন যতগুলো আইন তৈরি হচ্ছে, প্রত্যেকটি আইনেই বাকস্বাধীনতা খর্ব হয় এমন শর্ত জুড়ে দেওয়া হচ্ছে।’
‘আমেরিকার ১৭৯১ সালের সংবিধানে বলা হয়েছে, বাকস্বাধীনতা খর্ব হয় এমন কোনো আইন সংসদে পাস করা যাবে না। অথচ স্বাধীনতার ৫০ বছর পরেও আমরা সেই গণতন্ত্রে যেতে পারিনি। আমরা রাজা-বাদশাহদের যুগে ফিরে গেছি।’
অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল বলেন, ‘ভারতের বিরুদ্ধে কথা বলায় মৃত্যুবরণ করতে হবে এগুলো মানা যায় না। এমন দেশে আজ আমরা বসবাস করছি। বর্তমানে স্বাধীন দেশে পরাধীন হিসেবে বসবাস করছি। আমাদের বাকস্বাধীনতা না থাকলেও ক্ষমতাসীনদের বাকস্বাধীনতা রয়েছে। তারা যখন-তখন দেশের গণমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে যা ইচ্ছা তা বলে যাচ্ছেন। খালেদা জিয়া, ড. ইউনূস ও সংবিধান বিশেষজ্ঞ ড. কামালের বিরুদ্ধে তারা যা ইচ্ছা তা বলছেন। এখানে তাদের বাকস্বাধীনতা রয়েছে।’
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস বলেন, ‘চিন্তাকে প্রকাশ করতে দিতে হয়, পৃথিবীজুড়েই এর চর্চা চলছে। খাবার কম দিয়েও যদি মানুষকে কথা বলতে দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়, তাহলে মানুষ কথা বলাটাই বেছে নেবে।’
এসময় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী জোর্তিময় বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft