শনিবার, ১১ জুলাই, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় জুতার ভিতর মিলল ১৮টি স্বর্ণের বার
রাজবাড়ী প্রতিনিধি :
Published : Sunday, 27 October, 2019 at 3:12 PM
রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় জুতার ভিতর মিলল ১৮টি স্বর্ণের বাররাজবাড়ী গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়ায় দূর্ঘটনার শিকার মোটরসাইকেল আরোহীর জুতার ভিতরে পাওয়া গেল ১৮টি স্বের্ণের বার। ২৭ অক্টোবর রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের দৌলতদিয়া সাইন বোর্ড এলাকায় দ্রুত গতির দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে গুরুতর আহত হয় দণন মোটরসাইকেল আরোহী। এসময় বিপ্লব হোসেন (৩০) নামে একজনের জুতার ভেতর থেকে বেরিয়ে পড়ে ১৮টি স্বর্ণের বার। বিপ্লব হোসেন মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার গোবিন্দল গ্রামের ফরহাদ হোসেনের ছেলে। তবে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিপ্লব স্বর্ণের বারগুলো বৈধ দাবি করে জানান, ১৮টি নয় ২০টি স্বর্ণের বার তার কাছে ছিল। দূর্ঘটনায় শান্ত (৩৩) নামের অপর মোটরসাইকেল আরোহী গুরুতর আহত হয়েছেন। তিনি গোয়ালন্দ পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের কুমড়াকান্দি গ্রামের জনাব আলীর ছেলে।
এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৬জনকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। এরা হলেন, বিপ্লবের মোটরসাইকেলের যাত্রী মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার গোবিন্দল গ্রামের দেওয়ান মো. জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে দেওয়ান মো. ইসমাইল হোসেন (২৬), আব্দুর রাজ্জাক (৪৫), মো. বাদশা মিয়া (৪৫), আব্দুল করিম শেখ, দৌলতদিয়ার আঞ্জু বেগম (৪০)। স্থানীয় আঞ্জু বেগম জানান, দৌলতদিয়ার সাইন বোর্ড এলাকায় দুইটি দ্রুত গাতির পালসার মোটর সাইকেলের সংর্ঘষ হয়। এতে মোটর সাইকেল দুটি দুমরে মুচরে যায়। স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আহতদের উদ্ধার করে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এসময় রাস্তার উপর পড়ে থাকা চামড়ার জুতার ভেতর থেকে ১৮ পিস স্বর্ণের বার উদ্ধার করে পুলিশকে দেন। বিপ্লবের মোটরসাইকেলের যাত্রী দেওয়ান ইসমাইল হোসেন জানান, তিনি কুষ্টিয়াতে বিএডিসি’র চাকুরীতে যোগদানের জন্য যাচ্ছিল। বিপ্লবও একই দিকে আসছিল বলে তিনি তার মোটরসাইকেলে ওঠেন এবং গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় নেমে তিনি কুষ্টিয়ায় যাবেন। স্বর্ণের বার সম্পর্কে তিনি কিছু জানেন না বলে দাবি করেন।
গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি রবিউল ইসলাম জানান, দূর্ঘটনার শিকার মোটরসাইকেল আরোহীর জুতার ভেতর থেকে ১৮ পিস স্বর্ণের বার উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। স্বর্ণের বারের বিষয়ে কোন বৈধ কাগজপত্র এখনো পাননি তারা। ওসি আরো বলেন, আহত বিপ্লব হোসেনের কাছে স্বর্ণের বার গুলো পাওয়া যায়নি। স্বর্ণের বার গুলো উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা আবার স্থানীয়রাই তাকে হাসপাতালে পাঠিয়েছে সে বর্তমানে চিচিকিৎসাধীন আছেন। তবে তিনি দাবি করেছেন যে ১৮টি নয় ২০টি স্বর্ণের বার ছিল এবং তার কাগজ পত্র আছে বলে দাবি আহত বিপ্লবের। দুইটি স্বর্ণের বার হারিয়ে যাওয়ায় স্থানীয় কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। প্রতিটি বারের ওজন ১০০ গ্রাম করে হবে বলে ধারনা পুলিশের। ওসি বলেন বিপ্লব হোসেন পুলিশ পাহারায় আছেন। উদ্ধারকৃত স্বর্ণের বৈধ কাগজ পত্র না পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft