রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
অর্থকড়ি
ন্যানো টেকনলোজির বিষয়ে সহায়তা চাইলেন এফবিসিসিআই সভাপতি
অর্থকড়ি ডেস্ক :
Published : Friday, 25 October, 2019 at 7:58 PM
ন্যানো টেকনলোজির বিষয়ে সহায়তা চাইলেন এফবিসিসিআই সভাপতিএফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম ন্যানো টেকনলোজির বিষয়ে সফররত নিউ ইয়র্ক সিনেটরদের কাছে সহায়তার আহ্বান জানিয়েছেন।
শুক্রবার (২৫ অক্টোবর) এফবিসিসিআই কার্যালয়ে নিউ ইয়র্ক সিনেট প্রতিনিধিদল ও এফবিসিসিআই নেতৃবৃন্দের মধ্যকার এক আলোচনা সভায় এই আহ্বান জানান তিনি।
এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম-এর সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন, নিউ ইয়র্ক সিনেট প্রততিনিধি দলের নেতা সিনেটর লুইস আর সেপুলভেদা, সিনেটর জন লিউ, সিনেটর জেমস স্কউফিস, সিনেটর কেভিন এস পারকার এবং লেরয় কমরি।                                          
প্রতিনিধিদল মার্কিন অর্থনীতিতে নিউ ইয়র্কের অবদান উল্লেখ করে বলে, নিউ ইয়র্ক যুক্তরাষ্ট্রের আর্থিক এপিক সেন্টার এবং কৃষি সমৃদ্ধ একটি রাজ্য। তাই তারা চেম্বার অব কমার্স এবং বিজনেস কাউন্সিলের সহযোগিতায় বাংলাদেশের সাথে স্টেট লেভেল পার্টনারশিপ করতে আগ্রহী।
তারা জানান, নিউ ইয়র্কের অর্থনৈতিক উন্নয়নে আমেরিকান বাংলাদেশি এবং প্রবাসী বাংলাদেশিরাও বেশ গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। গত কয়েক বছরে এ দেশের শিক্ষা, আইসিটি, পর্যটন, শিল্প এবং অবকাঠামোসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে যে লক্ষণীয় অর্থনৈতিক উন্নতি হয়েছে তার প্রশংসা করেন সিনেট প্রতিনিধিদল।
এফবিসিসিআই সভাপতি দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক পরিস্থিতি, দ্রুত অগ্রসরমান উন্নয়ন প্রকল্পসমূহ, বেসরকারি খাতের শীর্ষ সংগঠন হিসেবে বিভিন্ন নীতি প্রণয়নে সরকারের সাথে এফবিসিসিআইয়ের অংশীদারত্ব এবং দেশের উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় সরকারি-বেসরকারি খাতের যৌথ উদ্যোগের বিষয়ে অবহিত করেন।
এছাড়াও এফবিসিসিআই  সিডব্লিউইআইসি, ইউএন, ডব্লিউটিও, আইটিসি, আইসিসি, এসআরসিআইসি (সিল্ক রুট), এসসিসিআইসহ ৯৭ টিরও বেশি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক অংশীদারদের সাথে নীতি নির্ধারক হিসেবে কাজ করছে। শেখ ফাহিম তাঁর বক্তব্যে গত কয়েক দশকে বাংলাদেশের উন্নয়ন এবং স্থিতিশীল ম্যাক্রো-ইকনোমিক প্রবৃদ্ধির বিষয়টিরও ওপরও গুরুত্ব দেন।
শেখ ফাহিম জানান, বর্তমান সময়ের চাহিদা অনুযায়ী বিশেষ করে সরকারের চতুর্থ শিল্প বিপ্লব বাস্তবায়নে দেশে দক্ষ জনশক্তির প্রয়োজন মেটাতে এফবিসিসিআই ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। আর এরই ধারাবাহিকতায় এফবিসিসিআই কানাডার ইউনিভার্সিটি অব টরেন্টো এবং টরেন্টোর সেনেকা কলেজর সাথে শিক্ষা ও কারিগরি সহায়তা নিয়ে কাজ করছে।
এফবিসিসিআই সভাপতি আরও জানান, ২০১৯ অর্থবছরে বন্ধুপ্রতিম দেশ দুটির মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ৮.৬৫ বিলিয়ন ডলারে এসে দাড়িয়েছে যেখানে রফতানির পরিমাণ ৬.৮৭ এবং আমদানির পরিমাণ ১.৭৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। যা দেশ দুটির মধ্যে নলেজ ট্রান্সফার, ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিক এক্সচেঞ্জ এবং বাণিজ্য বাড়ানোর বিষয়ে আরও গুরুতপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।
আলোচনা সভায় আরও অংশ নেন, এফবিসিসিআই সিনিয়র সহ-সভাপতি  মো: মুনতাকিম আশরাফ, এফবিসিসিআই সহ-সভাপতিবৃন্দ মিসেস হাসিনা নেওয়াজ,  মোঃ রেজাউল করিম রেজনু,  মো: সিদ্দিকুর রহমান,  দিলীপ কুমার আগারওয়ালা, মীর নিজাম উদ্দিন আহমেদ,  নিজামউদ্দিন রাজেশ এবং এফবিসিসিআই পরিচালক  মো: মুনির হোসেন, মি. সুজিব রঞ্জন দাস ও  আমজাদ হোসেন।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft