মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
৩০ হাজার টাকা নিয়েছে পুলিশ
দুর্বল চালান প্রতিবেদনের কারণে বহু বিতর্কিত লিপির জামিন
অভিজিৎ ব্যানার্জী :
Published : Wednesday, 23 October, 2019 at 6:07 AM
দুর্বল চালান প্রতিবেদনের কারণে বহু বিতর্কিত লিপির জামিনকখনও সাংবাদিক, কখনও সিআইডি, কখনোবা ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে ওয়াকিটকি নিয়ে যশোর শহর দাপিয়ে বেড়ানো বহু বিতর্কিত রুমানা আফরোজ লিপি আটক হলেও তার জামিন হয়ে গেছে। পুলিশের দুর্বল চালান প্রতিবেদনের কারনেই তিনি একদিনের মাথায় জামিন নিয়ে বাইরে। ঘুরছেন ফুরফুরে মেজাজে।
আটকের পর পুলিশি অ্যাচিপমেন্ট নিয়ে বিশাল হাক ডাক শুরু হলেও জামিন পাওয়ায় সব ম্লান হতে বসেছে। জামিন পেয়েই গ্রামের কাগজের এক রিপোর্টারকে ফোন করে জানিয়েছেন, সেকেন্ড অফিসার আমিরুজ্জমানকে ৩০ হাজার টাকা দিতে হয়েছে তাকে।
থানা সূত্র জানিয়েছে, নানা অভিযোগ, পুলিশ ও সাংবাদিক সেজে প্রতারণামূলক কর্মকান্ডের ঘটনায় ‘সখী তুমি কার’ খ্যাত চৌগাছার যাত্রাপুরের লিপিকে খুঁজছিলো কোতোয়ালি পুলিশ। কাক ডাকা ভোরে কিংবা রাত বারোটার পরেও ট্রাফিক পুলিশ সাংবাদিকসহ যশোরের নানা শ্রেণি-পেশার মানুষকে বোকা বানিয়ে বিকট আওয়াজে মটরসাইকেল চালিয়ে চলা লিপি মোস্ট ওয়ান্টেড হয়ে যায় আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে। শেষমেশ গত ১৬ অক্টোবর আটক হন তিনি। সাথে আটক হয় যশোরের শংকরপুরের মুরগি খামার এলাকার সোহেল রানা, রেল স্টেশন বিসমিল্লাহ সেলুনের পেছনের বাবু গাজী, আশ্রম রোডের তৌহিদুল ও রায়পাড়ার মনি আক্তার প্রিয়া। এ চক্রের কাছ থেকে দুটি ওয়াকিটকি, নকল কয়েকটি পরিচয়পত্র ও নানা প্রতারণা সামগ্রি উদ্ধার হওয়া এবং সরকারি কর্মচারী, থানা পুলিশ, রেল পুলিশ পরিচয় দিয়ে প্রতারণার ঘটনায় মামলা দেয়া হয়। কিন্তু আদালতে দেয়া চালান প্রতিবেদনে শুভংকরেরর ফাঁকি দেয় পুলিশ। চক্রের প্রধান লিপি ও তার একান্ত সহযোগী মনি আক্তার প্রিয়ার ব্যাপারে দূর্বল চালান প্রতিবেদন দাখিল করে। যে কারণে ১৭ অক্টোবর তাদের আদালতে চালান দেয়ার এক দিনের মাথায় জামিন হয়ে যায়। ১৮ অক্টোবর থেকে লিপিকে মটরসাইকেলসহ দাপিয়ে বেড়াতে দেখেছেন অনেকে। তার দ্বারা প্রতারিত হওয়া অনেকে গ্রামের কাগজ দপ্তরে ফোন করে জানিয়েছেন, পালবাড়ি হয়ে তাকে যেতে দেখা গেছে।
আদালত সূত্রও নিশ্চিত করেছে, বহু বিতর্কিত লিপির জামিন হয়ে গেছে। মূলত পুলিশের অতি দুর্বল চালান প্রতিবেদনের কারণেই এই জামিন হয়েছে।
এদিকে, জামিন পাওয়ার কদিন পর ওই রুমানা আফরেজ লিপি দৈনিক গ্রামের কাগজের এক রিপোর্টারকে ফোন করে বলেছেন তাকে নিয়ে বেশি বেশি লেখা হচ্ছে। যশোরসহ দেশের কয়েক ডজন পত্রিকায় তার নামে আজেবাজে কথা লিখে চলেছে, যা সত্য নয়। সত্য হলে তার জামিন হতো না। থানা পুলিশ আটক করলেও শেষ পর্যন্ত তার পক্ষে কাজ করেছে। অভিযানিক অফিসার আমিরুজ্জমান আটকের রাতেই তার সাথে দেন দরবার করেছিলেন। শেষ পর্যন্ত ৩০ হাজার টাকা দেয়া হয় আমিরুজ্জামানকে। আর ওই টাকা নেয়ার পর তাকে আদালতে চালান দেয়া হয়। আদালতে পাঠানোর পরই তার জামিন হয়ে যায়।
্এদিকে, চৌগাছা উপজেলার নারায়নপুর গ্রামের হেলাল মিয়ার ছেলে কোটচাঁদপুর পৌরসভার সচিব আবুল ফজল এনামুল হক মিঠু গ্রামের কাগজকে জানিয়েছেন, ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারি তিনি ভুল করে লিপিকে বিয়ে করেন। পরে তার চলাফেরা জঘন্য হওয়ায় এবং তার একাধিক বিয়ের ব্যাপারে জানতে পেরে চলতি বছরের ২৮ এপ্রিল কাজীর মাধ্যমে তালাক প্রদান করেন।   
এ ব্যাপারে থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত সমীর কুমার সরকার গ্রামের কাগজকে জানিয়েছেন, ভয়ানক প্রতারণার সাথে জড়িত এমন অভিযোগ থাকলেও নির্দিষ্ট তথ্য তাদের হাতে ছিলো না।  ওয়াকিটকিসহ আটক হওয়া, নিজেদের রেল পুলিশ পরিচয় দিয়ে ভুয়া পরিচয় পত্র দেখানো, বিটিসিএল এর অনুমোদন ছাড়া ওয়াকিটকি ব্যবহারের ব্যাপারে মামলা দিয়ে চালান দেয়া হয়েছে। জামিন দেয়া না দেয়া আদালতের ব্যাপার। পুুলিশ টাকা নিয়েছে লিপির এমন বক্তব্য মনগড়া ও কাল্পনিক ছাড়া কিছুই নয়। লিপি বা ও তার চক্রের লোকজনের বিরুদ্ধে নতুন করে অভিযোগ আসলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। 



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft