বুধবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২০
জাতীয়
আ’লীগের অপরাজনীতির খপ্পরে পড়বে না বিএনপি
কাগজ ডেস্ক :
Published : Friday, 4 October, 2019 at 8:00 PM
আ’লীগের অপরাজনীতির খপ্পরে পড়বে না বিএনপিকারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তার সুচিকিৎসা নিয়ে আওয়ামী লীগের অপরাজনীতির খপ্পরে বিএনপি পড়বে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন দলটির যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।
শুক্রবার (৪ অক্টোবর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম নামক একটি সংগঠনের আয়োজনে প্রতিহিংসার বিচারে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অনতিবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে প্রতীকী অবস্থান কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন।
সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, আমরা কর্মসূচির মাধ্যমে সবজায়গায় সমান্তরাল অবস্থান করতে পারলেই বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে পারব। কারণ তিনি হচ্ছেন গণতন্ত্রের প্রতীক। তাকে মুক্ত করতে পারলেই গোটা বাংলাদেশ কারাগার থেকে মুক্তি পাবে।
তিনি বলেন, আজকে অনেক কিছু বাদানুবাদ হচ্ছে, সাংবাদিকরা ওবায়দুল কাদেরের কাছ গেলে একই রকম, এইচটি ইমামের কাছে গেলে এক রকম আর হাছান মাহমুদের কাছে গেলে আরেক রকম কথা। তাহলে বিএনপির মধ্যে দুই তিন রকম হলে অসুবিধা কোথায়। কৌশলকে পরাস্ত করতে হলে আগে ওই কৌশলকে আয়ত্ত করতে হবে। তারপরে নতুন কৌশল ঠিক করতে হবে, এটাই হচ্ছে নিয়ম। বিএনপি সেই দিকে আছে কিনা সেটাই হচ্ছে দেখার বিষয়।
যুবদলের সাবেক এই সভাপতি বলেন, এখানে সব কিছুই চাইতে হয়, চাওয়ার কাজও চলবে আইনি লড়াইও চলবে। যেই দেশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ না পেলে একটা চোরও ধরে না, যেই দেশে সিটি করপোরেশন মশার ওষুধ ছিটাবে কিনা সেটা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের অপেক্ষায় থাকতে হয়। যেই দেশে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা দেশে হবে না বিদেশে হবে সেটা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের দরকার হয়, সেই দেশে চাইতেও হবে আইনি লড়াইও করতে হবে।
আলাল বলেন, বিভ্রান্ত হওয়ার কোন সুযোগ নেই, আমাদের মনে আবেগ যতো কিছুই থাকুক, বাস্তবতা হচ্ছে এই একজনের কাছে সকল নির্দেশনা গিয়ে আটকা পড়েছে। ক্যাসিনো নিয়ে আজকে পুলিশ সংস্থার লোকেরা বলছে আমরা তথ্য দিয়েছি, গোয়েন্দা সংস্থার লোকেরা বলছে আমরা তথ্য দিয়েছি। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে আমরা পুলিশকে জানিয়েছি। গোয়েন্দা সংস্থা বলে আমরা ২০১৭ সালে রিপোর্ট দিয়েছি, তারপরও ক্যাসিনো সরঞ্জাম ধরা পরে নাই। যেদিন প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিলেন তার পর ধরা পরেছে।
এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা সৈয়দ মেহেদি আহমেদ রুমি, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ প্রমুখ বক্তব্য দেন।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft