মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৯
জাতীয়
খালেদার জামিনের ব‌্যবস্থা করতে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান
কাগজ ডেস্ক :
Published : Wednesday, 2 October, 2019 at 7:49 PM
খালেদার জামিনের ব‌্যবস্থা করতে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহ্বানবিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিনের ব‌্যবস্থা করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি দলীয় সংসদ সদস‌্য গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ।
তিনি বলেছেন, আমি সংসদনেতার কাছে আহ্বান জানাব, আপনি একবার এসে দেখে যান, তিন বারের প্রধানমন্ত্রী কী অবস্থায় আছেন। আমি নিশ্চিত যে, আপনার ভেতরে মানবতাবোধ জাগ্রত হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আমলাতান্ত্রিকভাবে না দেখে আপনি জামিনের ব্যবস্থা করেন।
বুধবার বিকেলে রাজধান‌ীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে কারা হেফাজতে চিকিৎসাধীন খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে এসব কথা বলেন গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ।
বিএনপি দলীয় সংসদ সদস‌্য বলেন, তিনি (খালেদা জিয়া) কারো সাহায্য ছাড়া খেতে পারছেন না, হাঁটতে পারছেন না। এখানে তার কোনো চিকিৎসা হচ্ছে না। অবিলম্বে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দিয়ে বিশেষায়িত হাসপাতালে তার চিকিৎসা দেয়া প্রয়োজন। রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত ছাড়া ম্যাডামের মুক্তি হবে না।
প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে তিনি বলেন, আমি আবার বলছি, সংসদের নেতা হিসেবে আপনার কাছে আমার সবিনয় অনুরোধ, আপনি ম্যাডামের জামিনের ব্যবস্থা করুন।
জামিনের বিষয়টা তো আদালতের, আপনারা মানবিক বিষয় হিসেবে কেন দেখছেন? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ বলেন, এটা রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত ছাড়া কি হবে? আজকে হাইকোর্ট-সুপ্রিম কোর্ট বিব্রত বোধ করেন।
মুক্তির বিষয়ে খালেদা জিয়া কী বলেছেন, এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ম্যাডাম অবশ্যই মুক্তি চান। তিনি অপরাধ করেননি। তবু বন্দি আছেন। অবশ্যই মুক্তি চান। চিকিৎসার ব্যাপারে তার বক্তব্য, তিনি বাংলাদেশের বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের চিকিৎসা পাচ্ছেন না। তিনি মুক্তির পরে সিদ্ধান্ত নেবেন, দেশে নাকি বিদেশে চিকিৎসা নেবেন। আগে তো মুক্তি দরকার। তিনি তো সহসা বিদেশে চিকিৎসা নিতে চান না। এর আগেও বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের নাম বলা হয়েছে। সেই নিজস্ব ডাক্তারের চিকিৎসা নিতেও দেয়া হয়নি। বিদেশে যদি যাওয়া লাগে, যাবেন। সেটা ওনার নিজের সিদ্ধান্ত, পরিবারের সিদ্ধান্ত। সেটা তো আমরা বলতে পারি না।
এ সময় রুমিন ফারহানা এমপি বলেন, ম্যাডাম বলেছেন, জামিন আমার হক। দেশের আইন অনুযায়ী আমি জামিন লাভের যোগ্য। আমি তো কোনো অপরাধ করিনি। সুতরাং এখানে প্যারোলের প্রশ্ন কেন আসবে? প্যারোলের কোনা কথাই হয়নি। উনি কোনো অপরাধ করেননি। যে টাকার কথা বলা হয়েছে সে টাকা বেড়ে ৬ কোটি হয়েছে।
রুমিন ফারহানা বলেন, আমি দীর্ঘ সময় আদালতে কাজ করছি। এ ধরনের মামলায় একটি আবেদনে জামিন হয়ে যায়। সেখানে আজকে ১৮ মাসের ওপরে এরকম শারীরিক অবস্থায় উনি কারাগারে আছেন। ওনাকে পরিকল্পিতভাবে আটকে রাখা হয়েছে। আজকে তার এই শারীরিক অবস্থার জন্যে সরকার দায়ী। তাকে কোনো রকমের সুচিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না। তার অবস্থা যেটা হয়েছে, তিনি কোনো কাজ করতে পারেন না। সেজন্য সম্পূর্ণরূপে সরকারই দায়ী।
এ সময় তাদের সঙ্গে ছিলেন মোশাররফ হোসেন এমপি ও জাহিদুর রহমান এমপি।
বেলা ৩টার দিকে বিএনপি দলীয় চার সংসদ সদস‌্য খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে হাসপাতালে যান। তারা ৪টার কিছু আগে হাসপাতাল থেকে বের হয়ে আসেন।
হাসপাতালের বাইরে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার ও ছাত্রদলের নবনির্বাচিত সভাপতি ফজলুল রহমান খোকন।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft