রবিবার, ৩১ মে, ২০২০
সারাদেশ
মুক্তিযোদ্ধার কন্যা হাসিনা
হাঁস-মুরগী-ছাগল-গাভী পালন করে সাবলম্বী
মো.আককাস আলী, নওগাঁ :
Published : Saturday, 21 September, 2019 at 9:00 PM
হাঁস-মুরগী-ছাগল-গাভী পালন করে সাবলম্বীবীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজের ইংরেজীতে অনার্স পড়–য়া কন্যা হাসিনা খাতুন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন সোনার বাংলাকে ব্যস্তবায়ন করার লক্ষ্যে হাঁস-মুরগী-ছাগল-গাভী ও মৎস্য চাষ করে নিজেকে সাবলম্বী করে গড়ে তুলেছেন। হাসিনা খাতুন মহাদেবপুর উপজেলা সদরের কুঞ্জবন নিজ বাসাতে বসবাস করেন এবং মহাদেবপুর উপজেলার খাজুর ইউনিয়নের কর্নতৈড় গ্রামের মূরহুম বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজের একমাত্র কন্যা। ২০০৫ ইং সালে যুব উন্নয়ন প্রশিক্ষন কেন্দ্র থেকে প্রশিক্ষন নিয়ে, ওই বছরই মাত্র ২৫০টাকা পূঁজি নিয়ে খামার ব্যাবসা শুরু করেন। পাঁচ টাকা করে ৫০ টি কোয়েল পাখির বাচ্চা ক্রয় করে ২৫০ টাকায়। পরবতীতে ২০০, ৫০০,১০০০এবং সর্বপরি ৫০০০ পাখির খামার গড়ে তোলে। ২০০৯ সালে তিনি কোয়েল পাখির ডিম ফোটানো শুরু করেন। অনেক লাভ লোকশানের কঠিন পথ পাড়ি দিয়ে সফল নারী উদ্যােক্তা হিসেবে তার  এখন ৫০০০ হাজার মুরগীর খামার। আরো ৪০০০ হাজারের একটি খামার তৈরীর কাজ ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে। এছাড়া রাম ছাগলের খামার,মাছ চাষ,গরু পালন করে এই হাসিনা খাতুন এখন কোটি টাকার সফল ব্যবসায়ী।
হাসিনার স্কুল জীবনে বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবাকে ২১ আগষ্ট ১৯৯৬ এ সন্ত্রাসীদের হাতে নিহত হন। তার অসহায় পরিবারের কাছে সান্তনা দেয়ার মত আসেনি কোন  আতœীয়-স্বজন । শুধুই  এসেছেছিলেন উত্তর বঙ্গের মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক, সাবেক সফল ব্যাণিজ্য মন্ত্রী মুরহুম আব্দুল জলিল তিনি হাসিনার মাথায় হাত বলেছেন ভয় নেই বেটি আমরা আছি তোর পাশে। বাবার মৃত্যুর পর থেকে হাসিনার জীবনে নেমে আসে অসহনীয় অত্যাচার, অবিচার আর মিথ্যে অপবাদ। বারা রেখে যাওয়া ১৩ বিঘা ফসলী জমি, ৩ বিঘা আমের আগান, বনজ ১বিঘা, বাশঝাড় প্রায় ৩ বিঘা এবং কয়েকটি পুকুর। সেগুলো বেহাত হওয়ার অতিক্রম, কিন্ত বাবার প্রতিবাদী রক্তের ঝাজালো রসে হাসিনার জন্ম হওয়ায় তার হুংকারে কেউ গ্রাস করতে পারেনি সম্পদগুলো। ভাইবোন না থাকায় পাশে দাড়ানোর কেউ নেই প্রতিবাদ করারও কেউ নেই। হাসিনা নিজেকেই প্রতিবাদী ও সাবল্মবী করে গড়ে তোলেন। মুক্তিযোদ্ধার কন্যা হাসিনা যখন মুরগী, মাছ, কবুতর, ছাগল পালন ও চাষাবাদ নিয়ে দিনরাত পরিশ্রম করে সুখের সোপান মেলতে বসেছে, ঠিক তখনই কিছু দুঃস্কৃতিকারি তার পেছনে লেগে নানা রকম অপপ্রচার চালাচ্ছে। তারপরও হাসিনা থেমে নেই সব কিছু ঊপেক্ষা করে এখন তিনি কোটি টাকার সফল ব্যবসায়ী। হাসিনা খাতুন এই প্রতিবেদককে জানান, পরিকল্পনাকে সঠিক ভাবে নিয়ন্ত্রণ করলে এবং সৎভাবে ব্যবসা করলে বঙ্গবন্ধু স্বপ্নের সোনার বাংলায় কেউ অনাহারে থাকতে পারে না। তিনিও সোনার বাংলা ব্যবস্তবায়নের স্বপ্ন দেখেন।#




আরও খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft