সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আন্তর্জাতিক সংবাদ
সীমান্তে ভারতীয় সেনার গোলাবর্ষণে পাক সেনা নিহত
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Thursday, 12 September, 2019 at 8:15 PM
সীমান্তে ভারতীয় সেনার গোলাবর্ষণে পাক সেনা নিহতঅস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করে নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্যদের গোলাবর্ষণে পাকিস্তানি এক সেনাসদস্য নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার পাক অধিকৃত কাশ্মীর সীমান্তের হাজিপীর সেক্টরের কাছে ভারতীয় বাহিনীর গুলিতে পাক ওই সেনা নিহত হন।
পাক আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ অধিদফতরের (আইএসপিআর) এক বিবৃতির বরাত দিয়ে দেশটির সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউন এ তথ্য জানিয়েছে।
পাকিস্তান সেনাবাহিনীর এই গণমাধ্যম শাখা বলছে, জম্মু-কাশ্মীরের হাজিপীর সেক্টরের কাছে লাগাতর গোলাবর্ষণ করেছে ভারতীয় সামরিক বাহিনী। এতে বাহাওয়ালনগরের বাসিন্দা ও পাক সেনাবাহিনীর সিপাহি গোলাম রসুলের প্রাণহানি ঘটে।
গত ৫ আগস্ট মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ ভূস্বর্গ খ্যাত কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন-সংক্রান্ত সংবিধানের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে দেশটির ক্ষমতাসীন হিন্দুত্ববাদী সরকার। ১৯৮৯ সাল থেকে ভারত শাসনের বিরুদ্ধে কাশ্মীরিরা আন্দোলন করে আসছে। আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সংঘর্ষে হাজার হাজার কাশ্মীরির প্রাণহানি ঘটেছে; যাদের অধিকাংশই বেসামরিক।
বিশেষ মর্যাদা বাতিলের আগেই কাশ্মীরে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করে বিজেপি সরকার। কাশ্মীরকে শান্ত রাখতে সেখানে অতিরিক্ত পাঁচ লাখ সেনা মোতায়েন, ফোন ও ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন এবং জনসাধারণের চলাচলের ওপর কড়াকড়ি আরোপ করা হয়। এছাড়া গ্রেফতার করা হয় হাজার হাজার কাশ্মীরিকে।
রাস্তায় রাস্তায় তল্লাশি, সেনা টহল, ব্যারিকেড নির্মাণ করা হলেও কাশ্মীরিদের বিক্ষোভ দমাতে পারেনি এসবের কিছুই। সেখানে প্রায় প্রতিদিনই নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়াচ্ছেন ক্ষুব্ধ কাশ্মীরিরা।
কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের জেরে পারমাণবিক অস্ত্রধারী দুই চিরবৈরী প্রতিবেশীর মাঝে তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে। সীমান্তে অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করে গোলাবর্ষণের ঘটনায় ইতোমধ্যে ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে বেশ কয়েকবার তলব করে প্রতিবাদ জানিয়েছে পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
জম্মু-কাশ্মীরের চলমান পরিস্থিতির কারণে যেকোনো মুহূর্তে ‘আকস্মিক যুদ্ধ’ শুরু হতে পারে বলে বুধবার সতর্ক করে দিয়েছেন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি। অস্থিতিশীল এই অঞ্চল সফর করার জন্য জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান মিশেল বাচেলেতের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।
বুধবার জাতিসংঘের মানবাধিকার পরিষদের অধিবেশনের ফাঁকে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন পাক এই মন্ত্রী। এ সময় কুরেশি বলেন, তিনি বিশ্বাস করেন যে, ভারত এবং পাকিস্তান উভয় দেশই সংঘাতের পরিণতি সম্পর্কে জানে। যুদ্ধের শঙ্কা উড়িয়ে দেয়া যায় না উল্লেখ করে শাহ মেহমুদ কুরেশি বলেন, ‘আপনি আকস্মিক একটি যুদ্ধের শঙ্কা বাতিল করতে পারেন না। বর্তমানে যে পরিস্থিতি চলছে, সেটি যদি অব্যাহত থাকে... তাহলে যেকোনো কিছুই হতে পারে।’ সূত্র : এক্সপ্রেস ট্রিবিউন, ডন।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft