বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
শার্শায় গৃহবধু ধর্ষণ: মামলায় নাম নেই এসআই খাইরুলের
কাগজ ডেস্ক :
Published : Wednesday, 4 September, 2019 at 3:06 PM
শার্শায় গৃহবধু ধর্ষণ: মামলায় নাম নেই এসআই খাইরুলেরযশোরের শার্শায় গৃহবধু ধর্ষণের ঘটনায় ৪ জনের বিরুদ্ধে শার্শা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় অভিযুক্ত পুলিশের এসআই খাইরুলের নাম নেই। বুধবার সকালে এ মামলা দায়ের করা হয়।
এর আগে যশোরের শার্শা গৌড়াপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই খায়রুল ও সোর্স কামরুলের বিরুদ্ধে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠে। ধর্ষিত নারী দু’সন্তানের জননী।
সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার ঘটনায় গৃহবধূ মঙ্গলবার জানান, আমার স্বামী আগে চোরাচালানিদের পণ্য বহন করতো। কিন্তু এখন কৃষি কাজ করে। গৌড়পাড়া ফাঁড়ির ইনচার্জ গত ২৫ অক্টোবর রাতে তার স্বামীকে পুলিশ বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে যায়। এরপর ফাঁড়িতে নিয়ে তাকে বোতল ফেনসিডিল দিয়ে ২৬ অক্টোবর বিকালে কোর্টে চালান দেয়। সোমবার রাত আড়াইটার দিকে এসআই খায়রুল, সোর্স কামারুল এবং গ্রামের লতিফ ও কাদেরসহ ৪ জনকে সঙ্গে নিয়ে আমাকে ডাকাডাকি শুরু করে।
‘আমি দরজা খুলতে না চাইলে তারা বলেন, স্বামীর মামলার ব্যাপারে কথা আছে। তখন আমি দরজা খুলি। দারোগা খায়রুল আমাকে বলে ৫০ হাজার টাকা দিলে আমার স্বামীর মামলা হালকা করে দেবে। সে সময় আমি বলি বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে ফেনসিডিল দিয়ে চালান দিয়েছেন। এখন বলছেন টাকা দিলে হালকা হয়ে যাবে। এ নিয়ে তার সঙ্গে আমার কথা কাটাকাটি হয়। তখন খায়রুল ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। এরপর ঘরের ভিতর নিয়ে খায়রুল ও কামরুল আমাকে ধর্ষণ করে চলে যায়। তারা চলে গেলে এ ঘটনা এলাকাবাসীকে জানালে তারা আমাকে মামলা করার পরামর্শ দেয়।’
পুলিশ সুপার মঈনুল হক জানান, অভিযোগের পর পরই ভিকটিমকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে পরীক্ষার পরে প্রমাণ মিললে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft