রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
মণিরামপুরে তালের চারা বিপ্লব
জাহাঙ্গীর আলম, মণিরামপুর (যশোর) থেকে :
Published : Wednesday, 28 August, 2019 at 6:12 AM
মণিরামপুরে তালের চারা বিপ্লব ‘তালগাছ এক পায়ে দাঁড়িয়ে সব গাছ ছাড়িয়ে, উঁকি মারে আকাশে। মনে সাধ, কালো মেঘ ফুঁড়ে যায়, একেবারে উড়ে যায়, কোথা পাবে পাখা সে’ কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কবিতার মতো তাল গাছ সবার চেনা। এক সময় গ্রাম্য পথে হেঁটে যাওয়ার সময় চোখে পড়তো আকাশের দিকে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকা তালগাছের সারি। গাছে গাছে ধরে থাকা তাল, পাতার সঙ্গে লেপ্টে থাকা বাতাসে দোল খাওয়া বাবুই পাখির কারুকাজ করা বাসা। কালের আবর্তে কমতে থাকে তালগাছের সংখ্যা। বজ্রপাত প্রতিরোধী এ বৃক্ষ উজাড়ের সাথে সাথে বাড়তে থাকে প্রাকৃতিক বিপর্যয়। মণিরামপুর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্যমতে, যশোরে এ যাবৎ প্রায় ১৫ লাখ তালের আঁটি রোপণ করা হয়েছে। এ বছর আরও ১০ লক্ষাধিক তালের আঁটি রোপণের পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে, যার মধ্যে কৃষি বিভাগের উদ্যোগেই রোপণ করা হবে পাঁচ লাখ আঁটি।
২০০৫ সালে পরিবেশ রক্ষায় মণিরামপুরে তালের আঁটি রোপণের কর্মসূচি শুরু হয় ব্যক্তি উদ্যোগে। তালের আঁটি রোপণে সামাজিক বিপ্লবের পথিকৃৎ চাকলা গ্রামের কৃষক রুহুল আমিন গাজী। কপোতাক্ষ নদের প্রায় ১০ কিলোমিটার বেড়িবাঁধের ওপর তার হাতে লাগানো তালগাছের সংখ্যা ১০ হাজার। তবে, সংখ্যা তত্ত্বে তিনি বিশ্বাসী নন,আমৃত্যু এ অভিযান চলমান রাখবেন বলে তিনি জানিয়েছেন।
উপজেলার মদনপুর সম্মিলনী  ডিগ্রি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সফিয়ার রহমান তার বিভাগের শিক্ষার্থীদের নিয়ে ২০১৫ সালে তালের আঁটি রোপণ কর্মসূচি শুরু করেন। ঐ বছরেই তিনি রোপণ করেন এক হাজার আঁটি। প্রতিবছর সহ¯্রাধিক তালের আঁটি রোপণ করা সফিয়ার রহমান বলেন, ঝিকরগাছা থেকে রাজগঞ্জ পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার রাস্তার পাশে তাল গাছের সারি না হওয়া পর্যন্ত এ কর্মসূচি বন্ধ হবে না।
উপজেলার হাসাডাঙ্গা প্রাঞ্জলতা সাহিত্য সংঘের ২০ জন সদস্য আশপাশের এলাকার ২০ কিলোমিটার রাস্তার দু’ধারে তালের আঁটি রোপণ করেছেন। স্থানীয় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মশিউর রহমান ২০১৪ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর হাসাডাঙ্গা প্রাইমারি স্কুল মাঠে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে এই তালের আঁটি রোপণের কাজ শুরু করেন। এ ছাড়া খেদাপাড়া ইউনিয়নে পাঁচ হাজার তালের আঁটি রোপণ করা হয়েছে। মুজগুন্নী গ্রামের মাটির রাস্তায় তিন হাজার  আঁটি রোপণ করা হয়েছে।
উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আবদুল্লাহ বায়েজিত বলেন, দেশে বজ্রপাতে মানুষের মৃত্যু দিন দিন বেড়েই চলেছে। বজ্রপাত প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে তালের চারা রোপণের নির্দেশনা দিয়েছেন। তার ঘোষণা অনুযায়ী উপজেলার সর্বস্তরের জনগণকে তালের আঁটি রোপণের জন্য উজ্জীবিত করা হচ্ছে।
উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা হীরক কুমার সরকার বলেন, তাল শতগুণে গুণান্বিত। এটি বজ্রপাত প্রতিরোধী। এ কারণে তালের চারা রোপণের বিষয়ের উপর জোর দেয়া হচ্ছে। তালের চারা রোপণে সারাদেশে মণিরামপুর উপজেলা দৃষ্টান্ত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন সংশ্লিষ্ট সকলে।



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft