শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৯
আন্তর্জাতিক সংবাদ
কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিল
ভারতীয় হাইকমিশনারকে তলব, জাতিসংঘে যাচ্ছে পাকিস্তান
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
Published : Tuesday, 6 August, 2019 at 4:30 PM
ভারতীয় হাইকমিশনারকে তলব, জাতিসংঘে যাচ্ছে পাকিস্তানমোদি সরকার জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রক্ষাকবচ ৩৭০ ধারা বাতিল করার ঘটনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে পাকিস্তান। তারা এ ইস্যুটি জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার কাছে তুলবে বলেও হুমকি দিয়েছে।
সোমবার ভারতীয় সংসদে কাশ্মীরের ওই বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে রাজ্যটিকে তিন ভাগে বিভক্ত করার ঘোষণা দেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এরপরই ভারতীয় হাইকমিশনার অজয় বিসারিয়াকে তলব করে কড়া প্রতিবাদ জানায় পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। একই সঙ্গে ভারতের এই বেআইনি ও একতরফা ঘোষণার বিরুদ্ধে সম্ভাব্য সকল পদক্ষেপ গ্রহণের হুমকি দিয়েছে পাকিস্তান। এ নিয়ে জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার কাছে বিচার চাইবে বলেও জানিয়েছে ইসলামাবাদ। আগামী মাসে জাতিসংঘের সাধারণ সভাতেও কাশ্মীর নিয়ে সরব হবে পাকিস্তান।
সোমবার কাশ্মীরের মানুষের আত্মপরিচয় নির্ধারণের অবিচ্ছেদ্য অধিকারের প্রতি সমর্থন জানিয়ে দেয়া এক বিবৃতিতে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, ‘জম্মু ও কাশ্মীর আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত একটি বিতর্কিত অঞ্চল। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে গৃহীত প্রস্তাবেও তাকে বিতর্কিত অঞ্চল বলা হয়েছে। ভারতের কোনও একতরফা পদক্ষেপ কাশ্মীরের অবস্থান বদলাতে পারবে না।’
সোমবারই ভারতীয় হাইকমিশনারকে ডেকে পাঠিয়ে কাশ্মীরে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন ও বেআইনি কার্যকলাপের তীব্র নিন্দা করেছেন পাক পররাষ্ট্রসচিব সোহেল মাহমুদ।
পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি বলেছেন, জাতিসংঘ এবং মুসলিম দেশগুলির সংঘঠন ওআইসি’র পাশাপাশি পাকিস্তানের মিত্র দেশ ও মানবাধিকার সংগঠনগুলিকে কাশ্মীর নিয়ে সরব হওয়ার আহ্বান জানাবেন তারা। পাকিস্তানে সফরকারী মার্কিন প্রতিনিধিদলের কাছেও তোলা হবে কাশ্মীর প্রসঙ্গ, চাওয়া হবে আইনি পরামর্শ।
এক টিভি চ্যানেলে দেয়া সাক্ষাৎকারে কুরেশি দাবি করেন, জম্মু-কাশ্মীরের মর্যাদায় বদল এনে জাতিসংঘের কাছে দেয়া নিজের অঙ্গীকার ভেঙেছে ভারত। এই পদক্ষেপের কোনও সাংবিধানিক যৌক্তিকতা নেই। তিনি আরো বলেন, ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ীও ওই এলাকাকে বিতর্কিত বলে মেনেছিলেন। মানুষের মতামত পাল্টাতে পারবে না ভারত। তারাই কাশ্মীরকে আন্তর্জাতিক বিষয় করে তুলল।
পাক মানবাধিকার মন্ত্রী শিরিন মাজ়ারি বলেছেন, ‘অবিলম্বে পাকিস্তানের আন্তর্জাতিক আদালতে যাওয়া উচিত।’
সম্প্রতি পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের যুক্তরাষ্ট্র সফরের সময় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। ট্রাম্পের এ বক্তব্যকে স্বাগত জানান ইমরান। এ ঘটনা থেকে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে ট্রাম্পের সুসম্পর্কেরই আভাস পাওয়া যায়।
তাই ভারতীয় কূটনীতিকদের আশঙ্কা, ট্রাম্পের এই মনোভাবের সুযোগেই সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘের অধিবেশনে কাশ্মীর ইস্যুটি তুলবে পাকিস্তান। তাই জাতিসংঘের আসন্ন অধিবেশনে দক্ষিণ এশিয়ার ঘটনাপ্রবাহের মধ্যে কাশ্মীরই সব চেয়ে বড় ইস্যু উঠতে চলেছে।
এদিকে কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বাতিলের বিষয়ে আলোচনার জন্য মঙ্গলবার পার্লামেন্টের যৌথ অধিবেশন ডেকেছেন পাক প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি। কেবল পাক সরকার নয়, দিল্লির সমালোচনায় সরব পিপিপি শীর্ষ নেতা বিলাবল ভুট্টো জারদারি থেকে পিএমএল(এন) শীর্ষ নেতা শাহবাজ শরিফ। নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি অধিবেশন ডাকার পাশাপাশি চীন, রাশিয়া, তুরস্ক, সৌদি আরবের মতো দেশগুলোর সঙ্গে কাশ্মীর নিয়ে আলোচনার দাবি জানিয়েছেন পিপিবি নেতা শাহবাজও। আর এই ইস্যুতে তারা ইমরান সরকারকে পূর্ণ সমর্থন দেয়ার কথাও ঘোষণা করেছে। সূত্র: আনন্দবাজার




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft