মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই, ২০২০
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
যমেক হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের জন্য আলাদা ওয়ার্ড
নেয়া হয়েছে নানা প্রস্তুতি
ফয়সল ইসলাম :
Published : Tuesday, 6 August, 2019 at 6:17 AM
যমেক হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের জন্য আলাদা ওয়ার্ডবিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীনরা ডেঙ্গু ভাইরাসে সংক্রমনের আতংক থেকে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। ডেঙ্গু রোগীদের জন্যে পৃথক ওয়ার্ড করাসহ জরুরি অবস্থা মোকাবিলার জন্যে পূর্ব প্রস্তুতিও নিয়েছেন কর্তৃপক্ষ।
জাতীয় গাইড লাইন ও সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী গতকালই পৃথক ওয়ার্ডে ডেঙ্গু রোগীদের সর্বোন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার আবুল কালাম আজাদ লিটু ও সিভিল সার্জন ডাক্তার দিলীপ কুমার রায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  
সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, যশোরে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ২শ’ ছাড়িয়ে গেছে। গত ১৬ দিনে (২১ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট সকাল ১০ পর্যন্ত) যশোরে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা ২শ’১৬ জন। এর মধ্যে গতকাল নতুন করে সনাক্ত হয়েছেন ৩১ জন। বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২৯জন। যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে জানানো হয়েছে, সেখানে গতকাল রাত ৮টা পর্যন্ত চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৭৪জন।
ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে ও রোগীদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে সরকারি হাসপাতাল গুলোতে ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টার ও হেল্প ডেক্স চালু করার নির্দেশনা দিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, দক্ষ নার্স ও অভিজ্ঞ স্বাস্থ্যসেবীদের তত্ত্বাবধানে ডেঙ্গু রোগীদের নির্দিষ্ট একটি ওয়ার্ডে রেখে চিকিৎসা দেয়ার নির্দেশনা আছে। কিন্তু যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ লোক দেখানো হেল্প ডেক্স চালু করা (সকাল সাড়ে ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত) ছাড়া আর কোনো নির্দেশনা বাস্তবায়ন করেননি। স্থান সংকুলান না হওয়া ও জনবল সংকটসহ নানা অজুহাতে ডেঙ্গু আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবায় অবজ্ঞা-অবহেলা করা হয়েছে। মেডিসিন ওয়ার্ডের মধ্যে ডেঙ্গু রোগীদের ভর্তি রাখার ফলে অন্য রোগীদের জীবন সংকটে ফেলে দেয়া হয়েছে। এতে পুরো হাসপাতাল জুড়ে আতংক বিরাজ করছে। এসব বিষয় নিয়ে গ্রামের কাগজে সংবাদ প্রকাশের পর উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে ভাবিয়ে তুলেছে। ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসার বিষয়ে খোঁজ খবর নিতে গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে যশোরের সিভিল সার্জন ডাক্তার দিলীপ কুমার রায় হাসপাতালে যান। শোচনীয় পরিবেশ দেখে তিনি তাৎক্ষণিক হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কের সাথে বৈঠক করেন। ওই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, ডেঙ্গু রোগীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পৃথক ওয়ার্ডে রেখে সর্বোন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করার।  যমেক হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের জন্য আলাদা ওয়ার্ড
তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার আবুল কালাম আজাদ লিটু গ্রামের কাগজকে জানিয়েছেন, হাসপাতালের তৃতীয় তলায় পুরুষ পেয়িং ওয়ার্ডটি ডেঙ্গু রোগীদের জন্যে সংরক্ষিত করা হয়েছে। জরুরি পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্যে সিভিল সার্জনসহ স্বাস্থ্য বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করে আপাতত পুরুষ রোগীদের জন্যে পেয়িং ওয়ার্ড বিলুপ্ত করা হলো। ওই ওয়ার্ডে ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত পুরুষদের রেখে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। একই সাথে তৃতীয় তলার কনফারেন্স রুমটিও ডেঙ্গু রোগীদের জন্যে সংরক্ষিত করা হয়েছে। সেখানে মহিলা রোগীদের রেখে চিকিৎসা দেয়া হবে। এছাড়াও পরিত্যাক্ত ঘোষণা হওয়া পুরাতন ভবনটি পরিস্কার পরিচ্ছন্নসহ কিছু সংস্কারের কাজ করা হচ্ছে। রোগীর চাপ সামাল দেয়ার পূর্ব প্রস্তুতি হিসেবে ভবনটি প্রস্তুত রাখা হচ্ছে। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমোদন সাপেক্ষে চিকিৎসা কার্যক্রম চালানোর জন্যে পুরাতন ভবনটি ব্যবহার করা যেতে পারে।
তত্ত্বাবধায়ক আরো জানিয়েছেন, সরকারিভাবে সরবরাহ পাওয়া না গেলেও ডেঙ্গু রোগ নির্ণয়ের জন্যে প্রয়োজনীয় ডিভাইস ও রি-এজেন্ট মুজদ আছে। ব্যক্তি পর্যায় থেকে অনুদান নিয়ে কেনা ও বিএমএ কর্তৃক সরবরাহ পাওয়া ডিভাইস দিয়ে রোগীদের সেবা দেয়া হচ্ছে। আশা করা যায় আগামী দু’তিন দিনে কোনো সংকট তৈরী হবে না।  



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft