শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
স্বাস্থ্যকথা
যশোরের ইতিহাসে প্রথম
একদিনেই ৩৭ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত
ফয়সল ইসলাম :
Published : Monday, 5 August, 2019 at 6:02 AM

একদিনেই ৩৭ ডেঙ্গু রোগী শনাক্তযশোরে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা আশংকাজনক হারে বাড়ছে। গত ২১ জুলাই প্রথমে মাত্র চারজন রোগী শনাক্ত হয়। তবে, এতদিনের রেকর্ড ভেঙেছে গতকাল রোববার। এদিন জেলায় ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে ৩৭ জন। এত সংখ্যক ডেঙ্গু রোগী শনাক্তের ঘটনাটি যশোরের ইতিহাসে এই প্রথম।
সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, যশোরে মোট ১শ’ ৮৫জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে। ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪৪জন। আক্রান্তদের মধ্যে ১শ’৪ জনকে সুস্থ করা সম্ভব হয়েছে। তবে, এখনো গুরুতর অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৮০জন রোগী। এর মধ্যে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রয়েছেন ৫৩জন। বাকি ১৭জন চিকিৎসাধীন আছেন বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে। স্বাস্থ্যসেবীরা আশা করছেন আক্রান্ত অন্য রোগীরা সুচিকিৎসায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরবেন।
মশার প্রজননের আদর্শ স্থান হিসেবে গড়ে ওঠার সচিত্র সংবাদ গ্রামের কাগজে প্রকাশের পর যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরিচ্ছন্ন পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে কাজ শুরু করেছেন কর্তৃপক্ষ। পৌরসভা ও হাসপাতালের কর্মীরা মশা মাছির আবাসস্থল ধ্বংস করাসহ যাবতীয় আবর্জনা সরিয়ে ফেলার জন্যে যৌথভাবে কাজ করছেন। ৩ আগস্ট দুপুরে পৌরসভার কর্মীরা হাসপাতাল ক্যাম্পাসে মশা নিধনের জন্যে ওষুধ স্প্রে করেছেন। ৪ আগস্ট রোববার ভোর থেকে স্বচ্ছ পানি জমে থাকা ডাবের খোলা, পলিথিন, প্লাস্টিকজাতীয় দ্রব্য ও পঁচাবাসি খাবারের ভাগাড়ে পরিণত হওয়া ড্রেনগুলো পরিষ্কার করছেন পরিচ্ছন্ন কর্মীরা। যতক্ষণ পর্যন্ত হাসপাতাল ক্যাম্পাস পরিচ্ছন্ন পরিবেশ ফিরে না আসে ততক্ষণ পর্যন্ত অভিযান চলানোর নির্দেশনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন কর্মীরা।
হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার আবুল কালাম আজাদ লিটু জানিয়েছেন, ডেঙ্গু রোগীদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে বিএমএ যশোরের নেতাদের সহযোগিতা নেয়া হয়েছে। প্যাথলজিক্যাল পরীক্ষার জন্যে প্রয়োজনীয় ডিভাইস পর্যাপ্ত মজুদ রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে। হাসপাতাল ক্যাম্পাসে স্বাস্থ্যসেবার উপযোগী পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে পরিচ্ছন্ন অভিযান শুরু হয়েছে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।
সিভিল সার্জন ডাক্তার দিলীপ কুমার রায় জানিয়েছেন, সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসার বিষয়ে তদারকির জন্যে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আজই সরেজমিনে খোঁজ খবর নেয়া হবে। সরকারি নির্দেশনা ও জাতীয় গাইড লাইন মেনে যদি চিকিৎসা সেবা না দেয়া হয় তাহলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। মনিটরিং সেল, ওয়ানস্টপ সার্ভিস সেন্টার, হেল্প ডেস্ক ও নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কার্যক্রম যদি সন্তোষজনক না হয় এবং মানুষের ভোগান্তি লাঘবে কার্যকরী ব্যবস্থা নিতে কারো কোনো গাফিলতি থাকলে তা উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার সুপারিশ করা হবে। ডেঙ্গু রোগের ভয়াবহ প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে যা যা করণীয় জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে তার সবকিছু করা হবে।  



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft