শনিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৯
সারাদেশ
৫ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র
মোংলায় গরীবরা টাকা ছাড়া পাচ্ছে না এনজিও থেকে পানির ট্যাংক
কাগজ ডেস্ক :
Published : Thursday, 1 August, 2019 at 11:43 PM
মোংলায় গরীবরা টাকা ছাড়া পাচ্ছে না এনজিও থেকে পানির ট্যাংকমোংলায় পানির ট্যাংক বিতরনে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে জাগ্রত যুব সংঘ (জেজেএস) নামক একটি বেসরকারী এনজিও সংস্থার বিরুদ্ধে। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ উপকুলীয় অঞ্চল মোংলায় বিশুদ্ধ পানিও জলের অভাবে দূর্বিসহ জীবন যাপন করছে হাজার হাজার মানুষ। ফলে ওইসব মানুষদের বিশুদ্ধ পানির সংরক্ষনের জন্য সরকারী ও বিভিন্ন এনজিও সংস্থার মাধ্যমে পানির ট্যাংক বিতরন করা হচ্ছে। চলতি বছরে শুধু মাত্র জেজেএস এনজিও সংস্থাটি বিতরন করবে ৩৯০টি পনির ট্যাংক। এপ্রিল থেকে জুন পর্যন্ত সংস্থটি ৭০টি ট্যাংক বিতরন করেছে তারা। এছাড়া জেজেএস সংস্থার বিভিন্ন প্রকল্পের মালামাল সরবরাহের চাহিদা পত্র দেখিয়ে মোংলা উপজেলার বহু মানুষের কাছ থেকে প্রায় ৫কোটি টাকার বেশি হাতিয়ে নিয়েছে মিল্টন নাথ নামের এক প্রতারক। অভিযোগ রয়েছে ওই এনজিও এলাকায় খামার করার জন্য হাসঁ,মুরগী ও কাকড়াসহ অন্যান্য মালামাল দেয়ার কথা বলে এ মিল্টনের মাধ্যমে কয়েক কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়। এব্যাপারে মামলাও করেছেন তার বিরুদ্ধে ভুক্তভোগীরা। স্থানীয়দের অভিযোগ, বিতরন করা অধিকাংশ পানির ট্যাংক গরিব ও অসহায়দের বাদ দিয়ে দেয়া হয়েছে বিত্তশালীদের মাঝে। চাঁদপাই ইউনিয়নের কাইনমারী এলাকার বাসিন্ধা সত্যজিৎ অভিযোগ করেন, জাগ্রত যুব সংঘ (জেজেএস) সংস্থটির মাঠকর্মী নাজিয়া সুলতানা নগদ অর্থ গ্রহন করে পানির ট্যাংক গুলো বিত্তবানদের মাঝে দিয়ে থাকেন। কারন তার (নাজিয়ার) চাহিদামত টাকা ঘুষ দেয়ার ক্ষমতা গরীবদের নেই তাই তাদের ভাগ্যে জোটেনা মিস্টি পানি সংরক্ষনের ট্যাংক। সংস্থাটির বিতরন লিষ্ট অনুসারে সরেজমিনে কানাইনগর এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, লন্ডন প্রভাসী বিলাস হালদারের স্ত্রী সম্পাকুন্ড পুর্বে একটি আর চলতি বরাদ্ধে জুন মাসে একটিসহ দুটি আর একই এলাকার বাসিন্ধা সবিতা মন্ডল জনস্বাথ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের বরাদ্ধে একটি আরসিসি ট্যাংক ও এনজিও থেকে একটি পলিমার ট্যাংক পুর্বে থেকে ব্যবহার করছেন। তাকেও চলতি বরাদ্ধে জুলাই মাসে জেজেএস একটি পলিমার ট্যাংক বরাদ্ধ করে দেন। স্থনীয় ইউপি সদস্য দূর্জয়, ইউপি সদস্য তুষার মৈত্র ও ইউপি সদস্য মোঃ সেলিম জানান, নিয়মানুসারে ট্যাংক পাওয়ার উপকার ভোগীদের চিহ্ণিত করতে জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত করার কথা থাকলেও এনজিও জেজেএস সংস্থাটি কাগজে কলমে তা দেখিয়ে থাকেন। বাস্তবে তারা এসব কিছুই করেন না। ওই তিন ইউপি সদস্যের অভিযোগ সংস্থাটির মাঠ কর্মি নাজিয়া সুলতানা নিজেকে ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের নেত্রী দাবি করেন জোর পূর্বক সুবিধা ভোগীদের কাছ থেকে টাকা আদায় করে থাকেন। প্রতিদিন তাদের কাছে অসংখ্য অভিযোগ আসে মাঠ কর্মি নাজিয়া সুলতানার বিরুদ্ধে। বিষয়টি জানতে চাইলে, জেজেএস মাঠ কর্মি নাজিয়া সুলতানা সাংবাদিকদের উপর ক্ষিপ্ত হন এবং দেখে নেয়ার হুমকিদেন। এ বিষয়ে জেজেএস এনজিও সংস্থার খুলনা বিভাগীয় কডিনেটর জিয়া আহম্মেদ সংবাদকর্মীদের মাধ্যমে অনিয়মের বিষয়টি জানার পর সাথে সাথে দুইটি ট্যাংকি বিত্তবানদের কাছ থেকে জব্দ করে অসহায়ের মাঝে বিতারন করেন এবং বিষয়টি নিয়ে সংবাদ প্রচার না করার অনুরোধ করেন। জেজেএস কর্তৃক পলিমার পানির ট্যাংক বিতরনে অনিয়মের বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রাহাত মান্নান।




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Design and Developed by i2soft