দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল
গ্রামের কাগজে সংবাদ প্রকাশে তোলপাড়
যমেক হাসপাতাল চত্বর ও ওষুধের দোকানে অভিযান
ফয়সল ইসলাম :
Published : Monday, 14 August, 2017 at 12:13 AM
যমেক হাসপাতাল চত্বর ও ওষুধের দোকানে অভিযানদালাল চক্রের অবাধ বিচরণ ও সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসা প্রার্থীদের ভাগিয়ে বেসরকারি ক্লিনিকে নিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে গলাকাটা ব্যবসা প্রতিরোধে মাঠে নেমেছে প্রশাসন। গতকাল গ্রামের কাগজে “যত টেস্ট তত ব্যবসা” শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পর দালাল প্রতিরোধ এবং ওষুধ ফার্মেসির প্রতারণা রুখতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। অভিযানে দু’টি ফার্মেসি ও এক দালালের কাছ থেকে জরিমানা ১৫ হাজার ৫শ’ টাকা আদায় করা হয়েছে।
গতকাল দুপুর দেড়টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমান ও আব্দুল্লাহ আল মাহফুজের নেতৃত্বে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনের শান্ত ড্রাগ হাউজ ও বাঘারপাড়া ফার্মেসিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চলে। মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ মজুদ রাখার অভিযোগে শান্ত ড্রাগ হাউজে অভিযান পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমান। ফার্মেসি তল্লাশি করে একমি ল্যাবরেটরিজের উৎপাদিত প্যান্টোপ্রপোজল গ্রুপের প্রোটোসিড আইভি ইনজেকশন (৪০এমজি) ১০টি ও কুমুদিনী কেয়ার কোম্পানির উৎপাদিত বিক্রি নিষিদ্ধ মায়োবিয়ন ট্যাবলেটের (ফিজিশিয়ান স্যাম্পল) ১০টি প্যাকেট উদ্ধার করা হয়। এ অপারাধে ফার্মেসি মালিক সালাউদ্দিন রনির কাছে থেকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। পাশের ওষুধের দোকান বাঘারপাড়া ফার্মেসি মালিক আতিয়ার রহমানকে ৫শ’ টাকা জরিমানা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মাহফুজ। ভবিষ্যতে মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ না রাখার জন্যে ফার্মেসি মালিককে সতর্ক করে দেয়া হয়। সামগ্রিক অভিযানে সহযোগিতা করনে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর যশোর কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সোহেল শেখ ও জেলা ওষুধ তত্ত্বাবধায়ক রেহান হাসান এবং পুলিশ সদস্যরা।
এরপর যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল অভ্যন্তরে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমান। সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের ভাগিয়ে বেসরকারি ডায়াগনস্টিক সেন্টার বহুল বিতর্কিত লাইফ কেয়ারে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টাকালে আটক হয় দালাল ঘেনা সুমন। সে শহরের ঘোপ সেন্ট্রাল রোডের আলী হোসেনের ছেলে। ভ্রাম্যমাণ আদালত চলাকালীন পুলিশের নাকের ডগা থেকে পালাতে সক্ষম হয় অপর দালাল মোটা সুমন। সেও লাইফ কেয়ারের নিয়োগকৃত দালাল। ভবিষ্যতে দালালী পেশায় থাকবে না মর্মে মুচলেকা দিয়ে ৫ হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করে মুক্তি পায় ঘেনা সুমন। যমেক হাসপাতাল চত্বর ও ওষুধের দোকানে অভিযান
উল্লেখ্য, যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওষুধ ফার্মেসি, বেসরকারি ক্লিনিক, ডায়াগনস্টিক সেন্টারের নিয়োগকৃত দালালরা প্রতিনিয়ত রোগীদের সাথে প্রতারণা করে আসছে। তাদের সাথে যুক্ত আছে কতিপয় ডাক্তার, নার্স, কর্মকর্তা-কর্মচারী, সাংবাদিক নামধারী প্রতারকসহ হাসপাতালে টহলরত পুলিশ সদস্যরা। সরকারি হাসপাতালের সামনে সকাল থেকে ওঁৎ পেতে থেকে রোগী ভাগিয়ে নিয়ে যায় বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে। সরকারি হাসপাতালে যেসব প্যাথলজিক্যাল পরীক্ষা করানো সম্ভব সেগুলোও কতিপয় ডাক্তার, নার্স ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা রোগীদের বাধ্য করেন বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে করাতে। এক্ষেত্রে সরকার যেমন রাজস্ব বঞ্চিত হয়, অপরপক্ষে বেসরকারি হাসপাতাল থেকে শতকরা ৩০/৪০ পার্সেন্ট কমিশন পান রোগী ভাগানোর সাথে জড়িতরা। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হন রোগী ও তার স্বজন।
দীর্ঘ অনুসন্ধানের পর রোগী ভাগানোর সাথে জড়িত সরকারি ডাক্তার ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ক্লিনিক ডায়াগনস্টিক সেন্টার এবং তাদের নিয়োগকৃত দালালদের তালিকা প্রকাশ করেছে গ্রামের কাগজ। এরপরই হাসপাতাল থেকে দালাল নিধন ও ফার্মেসি মালিকদের প্রতারণা রুখতে অভিযানে নামে প্রশাসন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমান জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে স্বল্প সময়ের জন্যে অভিযান চালানো হলো। যাতে জনভোগান্তি দূর করতে ও স্বচ্ছতার সাথে মানুষ কাঙ্খিত সেবা পেতে পারে সে জন্যে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করা হবে।
হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার একেএম কামরুল ইসলাম বেনু জানান, দালালমুক্ত পরিবেশে নির্বিঘেœ চিকিৎসা কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্যে কর্তৃপক্ষ সর্বদা সচেষ্ট। কিন্তু কিছু সমস্যার কারণে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ করে উঠতে পারে না। প্রশাসনের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, নিয়মিত অভিযান ও তদারকি চললে যা যা সহযোগিতার প্রয়োজন তা করা হবে। 



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
 আমাদের পথচলা   |    কাগজ পরিবার   |    প্রতিনিধিদের তথ্য   |    অন লাইন প্রতিনিধিদের তথ্য   |    স্মৃতির এ্যালবাম 
সম্পাদক ও প্রকাশক : মবিনুল ইসলাম মবিন
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আঞ্জুমানারা
পোস্ট অফিসপাড়া, যশোর, বাংলাদেশ।
ফোনঃ ০৪২১ ৬৬৬৪৪, ৬১৮৫৫, ৬২১৪১ বিজ্ঞাপন : ০৪২১ ৬২১৪২ ফ্যাক্স : ০৪২১ ৬৫৫১১, ই-মেইল : gramerka@gmail.com, editor@gramerkagoj.com
Design and Developed by i2soft